Daily Sunshine

কাঁচা হয়ে যাচ্ছে পাকা সড়ক

Share

রাণীনগর প্রতিনিধি: নওগাঁর রাণীনগর-আবাদপুকুর প্রায় ২২ কিলোমিটার সড়কটি পুনঃনির্মাণের লক্ষ্যে উপরিভাগ তুলে ফেলার দীর্ঘ দুই বছরে নির্মাণ কাজ শেষ না হওয়ায় সড়কটি চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে।
নওগাঁর রাণীনগর ও আত্রাই, বগুড়ার আদমদিঘী ও নন্দিগ্রাম এবং নাটোরের সিংড়া উপজেলার হাজার হাজার মানুষ প্রতিদিন সড়ক বিভাগের এ রাস্তা ধরে স্ব-স্ব উপজেলা সদর এবং নওগাঁ জেলা সদরে যাতায়াত করে থাকেন। এ রাস্তা দিয়ে রবীন্দ্র কুঠিবাড়ি পতিসর এবং বৃহৎ হাট আবাদাপুকুর যাতায়াত করতে হয় মানুষকে। ফলে যানবাহন ও পথচারীদের চলাচল দুরুহ হয়ে পড়েছে।
জানা গেছে, নতুন করে সংস্কারের লক্ষ্যে নওগাঁর রাণীনগর-আবাদপুকুর পর্যন্ত ২২ দশমিক ২২০ কিলোমিটার দৈর্ঘ্য পুরো সড়কটির কার্পেটিং সম্পূর্ণভাবে তুলে ফেলা হয়। ৪৮ কোটি ৮৭ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মাণের জন্য টেন্ডার ও ঠিকাদার পর্যন্ত নিয়োগ দেওয়া হয়। কিন্তু দুইবছর অতিবাহিত হলেও সড়কটির নির্মাণ কাজ শেষ হয়নি। পরবর্তীতে ওই ঠিকাদার পৌণে ৯ কোটি টাকার কাজ করার পর অজ্ঞাত কারণে কাজটি বন্ধ করে কেটে পড়েন। এবরো খেবরো হয়ে পড়ে সড়কের উপরিভাগ।
রাস্তার নির্মাণাধীন ব্রিজগুলো রয়ে গেছে অসমাপ্ত। রাস্তাটি দীর্ঘদিন ধরে চলাচলের সম্পূর্ণ অযোগ্য হয়ে পড়ায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রিক্সা, ভ্যান, বেবী ট্যাক্সি, ভটভটি, টমটম ইত্যাদি যানবাহন চলাচল করছে। প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনার আশঙ্কায় যানবাহনের চালক এবং যাত্রীরা ভীত সন্ত্রস্ত্র চলাচল করছেন। সময়ের ব্যবধানে পুরো সড়ক জুড়ে সৃষ্টি হয় অসংখ খানা-খন্দকের। সামান্য বৃষ্টি হলেই জমে যায় বৃষ্টির পানি।
নওগাঁ সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী প্রকৌশলী সাজেদুর রহমান বলেন, কাজ করতে করতে হঠাৎ ঠিকাদার কাজ বন্ধ করে দিয়ে কেটে পড়ার কারণে কাজ বন্ধ হয়ে পড়ে।
বিভাগীয় নিয়ম কানুন যথারীতি অনুসরণ করে অবশিষ্ট ৪০ কোটি টাকার কাজের উপর ১০ শতাংশ হিসেবে ঠিকাদারের প্রায় ৪ কোটি টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। পুনরায় কাজের নির্মাণ ব্যয় পুনরায় যাচাই করে ৪৩ কোটি টাকা নির্ধারণ করে পুনরায় টেন্ডার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। খুব শীঘ্রই রাস্তর নির্মাণকাজ শুরু হবে।

জুন ১০
০৫:২৪ ২০২১

আরও খবর