Daily Sunshine

বাগমারায় একদিনে চার মৃত্যু, গনিপুর হটস্পট

Share

মাহফুজুর রহমান প্রিন্স, বাগমারা: কিছুতেই ঠেকানো যাচ্ছে না করোনার দ্বিতীয় ঢেউ। স্থানীয় স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তারা বলছেন করোনায় ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট চাঁপাইনবাবগঞ্জ হয়ে রাজশাহীতে আঘাত হেনেছে। এখন রাজশাহী হয়ে এ করোনার ঢেউ বাগমারায় বিস্তার শুরু হয়েছে। স্থানীয় স্বাস্থ্য বিভাগ বাগমারার গনিপুর ইউপিকে করোনার হটস্পট হিসাবে চিহ্নিত করেছে।
জানা গেছে গত মঙ্গলবার বাগমারায় একদিনে মহামারি করোনায় আক্রান্ত হয়ে চার জনের মৃত্যু হয়েছে এবং একই সময়ে আক্রান্ত হয়েছে প্রায় অর্ধশতাধিক। আক্রান্তের অনেকেই রাজশাহী মেডিকেলের করোনা ওযার্ডে ও আইসিইউতে এবং কয়েকজনকে বাগমারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনা অবজারভেশনে ভর্তি করা হয়েছে।
উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার ভোরে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মোহনগঞ্জ বাজারপাড়া এলাকার আজমত আলী (৪২) মারা যান। একই দিন দুপুরে মোহনগঞ্জ মন্ডলপাড়া এলাকার এনামুল মন্ডলের স্ত্রী বিলকিস বেগম (৩৫) করোনা আক্রান্ত হয়ে মারাত্মক শ্বাসকষ্টে ভুগতে থাকেন। সাথে সাথে তাকে রাজশাহী মেডিকেলে নিয়ে যাওয়ার পথে তার মৃত্যু বলে এলাকাবাসী জানায়।
এছাড়া করোনা আক্রান্ত হয়ে তাহেরপুরে পদক্ষেপ এনজিও’র কর্মী হাফিজ উদ্দিন (৩৬) ও মোহনগঞ্জ এলাকার রোকেয়া বেগম (৪৫) মারা গেছেন বলে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি সূত্রে জানা গেছে।
এছাড়া মৃত্যুর এ তথ্যগুলো নিশ্চিত করেছেন বাগমারা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা গোলাম রাব্বানী। তিনি বলেন, মৃত্যুবরণকারী এসব ব্যক্তিদের কেউ নমুনা পরীক্ষা করতে আসেনি। তবে তাদের মৃত্যুর ধরন ও অন্যান্য উপসর্গ দেখে ধারনা করা হচ্ছে তারা করোনা আক্রান্ত ছিলেন।
এদিকে গত কয়েকদিনে বাগামারায় করোনায় আক্রান্তে সংখ্যা প্রায় শতাধিক ছাড়িয়ে গেছে। বিশেষজ্ঞরা বলেছেন লোকলজ্জা ও সামাজিক মর্যাদাহানির কারণে তাদের আক্রান্তের বিষয়টি গোপন করে রাখায় পরিস্থিতি আরো ভয়াবহর দিকে যাচ্ছে। আক্রান্ত এসব ব্যক্তিদের মাধ্যমে আরো ভালো লোক আক্রান্ত হয়ে পড়ছে। এ জন্য আক্রান্ত ব্যক্তিদের আরো কঠোর ভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা উচিত বলে তারা মনে করছেন।
জানা গেছে গত কয়েকদিনে করোনা আক্রান্ত হয়ে রামেকের আইসিইউতে ভর্তি রয়েছেন ঝিকরা ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হামিদ ফৌজদার (৫৮)। এরতিন দিন আগে আব্দুল হামিদ ফৌজদারের স্ত্রী বুকুল নাহার (৪০) করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন। ঝিকরা ইউপির প্যানেল চেয়ারম্যান ও আ’লীগ নেতা মানিক হোসেন জানান, আইসিইউতে চেয়ারম্যানের অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে। আমরা সার্বক্ষণিক তার খোজখবর নিচ্ছি।
এছাড়া রাজশাহী মেডিকেলের আইসিইউতে করোনা আক্রান্ত হয়ে ভর্তি রয়েছে বাগমারা উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি প্রবীন বিএনপি নেতা সহকারি অধ্যাপক মোকলেছুর রহমান (৫৫) জানা গেছে তার স্ত্রীসহ পরিবারের অন্য সদস্যরা করোনার নমুনা পরীক্ষায় পজিটিভ আসলে তাদেরকে আইসোলেশনে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এছাড়া করোনা আক্রান্ত হয়ে আইসোলেশনে রয়েছেন বাগমারা উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মাসুদুর রহমান। তিনি জানান, আমি রাজশাহীতে আইসোলেশনে রয়েছি এবং ডাক্তারের পরামর্শে চিকিৎিসা নিচ্ছি। আপনারা সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন।
এদিকে বাগমারার মোহনগঞ্জ এলাকাকে করোনার হটস্পট হিসাবে চিহ্নিত করেছে উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. গোলাম রাব্বানী জানান, মোহনগঞ্জ করোনার হটস্পট হওয়ার বেশকিছু কারণ আছে। আমরা শত চেষ্টা করেও এ ইউনিয়নের কাউকে টিকা নেওয়াতে পারিনি। আমরা মাইকিং করেছি, সেখানে জনপ্রতিনিধিদের দিয়ে ব্যাপক বুঝানোর পরও তাদের টিকা দেওয়া সম্ভব হয়নি। এছাড়া মোহনগঞ্জ এলাকার লোকজনকে আমরা স্বাস্থ্যবিধি মানাতেও বেগ পেতে হয়েছে। এসব নানান কারণে আজ সেখানে করোনার মৃত্যুহার ও আক্রান্তের হার দুটোই বেশি। ডা. গোলাম রাব্বানী আরো বলেন, করোনার বাগমারার পরিস্থিতি এখন অনেকটাই ঝুকিপূর্ন। এ অবস্থা মোকাবেলার জন্য আমরা সার্বিক প্রস্তুতি নিয়েছি। ২৪ ঘণ্টা আমাদের হটলাইন খোলা রয়েছে এবং প্রস্তুত রয়েছে মেডিকেল টিম।
উপজেলা চেয়ারম্যান অনীল কুমার সরকার জানান করোনায় পনিপুর ইউনিয়নের পরিস্থিতি ক্রমেই অবনতি হচ্ছে। দ্রুত মাইকিং করার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। যেখানে পরিস্থিতি খুবই খারাপ সেখানে কঠোর লকডাউনের ব্যবস্থা করা হবে। তিনি আরো জানান, আগামী শুক্রবার স্থানীয় সাংসদ এনামুল হক বাগমারায় আসবেন করোনা পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করার জন্য।
থানার ওসি মোস্তাক আহম্মেদ জানান, এর পূর্বেও আমরা করোনার পরিস্থিতি সফলভাবে মোকাবেলা করেছি। এবারও আমরা সার্বিক প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছি। উপজেলা নির্বাহী অফিসার শরিফ আহম্মেদ জানান, বাগমারায় করোনার সার্বিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। তিনি সবাইকে মাস্ক পরিধান করাসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শ দিয়েছেন।

জুন ০৯
০৫:৫২ ২০২১

আরও খবর