Daily Sunshine

আত্রাই নদীর গতিপথ পরিবর্তনের আশঙ্কা

Share

রুবেন্স চৌধুরী, পত্নীতলা: পত্নীতলায় আত্রাই নদীতে অবৈধ ভাবে ড্রেজার মেশিন দিয়ে নদীগর্ভ থেকে বালু উত্তোলন করার ঘটনায় শনিবার দুপুরে নজিপুর পৌরসভার কাউন্সিলর অরুণ পালকে লাঞ্চিত করেছে বালু উত্তোলনকারীরা। পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। আহত অরুণ পালকে উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে চিকিৎস্যার জন্য ভর্তি করা হয়েছে। এঘটনায় এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনার সৃষ্টি হয়েছে।
পত্নীতলায় আত্রাই নদীর বাঁধের ধারের সিমানা মহাদেবপুর থেকে ধামইরহাট পর্যন্ত প্রায় ১৬ থেকে ১৮ কিলোমিটার হলেও বালু মহালের আয়তন প্রায় ৮০.১৯৮ হেক্টর। পত্নীতলার সিমানায় আত্রাই নদীর বালু নওগাঁ জেলাসহ বাহিরের অন্যান্য জেলাতেও চাহিদা অনুযায়ী সরবরাহ হয়ে থাকে।
এদিকে নদী থেকে অবৈধ ভাবে নিয়মিত ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন করায় তীরবর্তী জনবসতি ভেঙ্গে নদীগর্ভে বিলীন সহ নদীর গতিপথ পরিবর্তন হওয়ার হুমকি বাড়ছে। এতে হুমকির আশঙ্কায় রয়েছে পত্নীতলা থানা, সামাজিক বন বিভাগ রাজশাহী পাইকবান্দা রেঞ্জের ফরেষ্ট বাগান, বিট অফিস, শ্মশান, পলিপাড়া গ্রাম, মন্দির, প্রাথমিক বিদ্যালয় ও বাঁধসহ আত্রাই নদীর উপরে নির্মিত সিদ্দিক প্রতাপ সেতু ও তীরবর্তী জনবসতি।
স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, কাউন্সিলর অরুণ পাল ওই এলাকা থেকে অবৈধ ভাবে নিয়মিত ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন বন্ধ করে দেয়ার হুমকি দেয়ায় জনৈক নুরু মেম্বারসহ তার লোকজন শনিবার দুপুরে পলিপাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সন্নিকটে বালু মহালের পাশে অরুণ পালকে ডেকে নিয়ে তার উপর চড়াও হয় এবং তাকে বেদম মারপিট করে। এসময় অরুণ পাল গুরুত্বর আহত হয়ে উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে চিকিৎস্যার জন্য ভর্তি হয়।
অপরদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয়রা জানায়, বালু মহালকে কেন্দ্র করে নুরু মেম্বার ও তার লোকজনের সাথে নজিপুর পৌরসভার কাউন্সিলর অরুণ পালের এ দ্বন্দ্ব বাধে। পত্নীতলা সিমানার বালু মহালের নির্দিষ্ট ৮টি যায়গা বাদেও আত্রাই নদীর দুই ধারের বিভিন্ন যায়গাসহ নদী গর্ভ থেকে অবৈধ ভাবে ড্রেজার মেশিন দিয়ে রাজনৈতিক ছত্র ছায়ায় থেকে এসব বালু ব্যবসায়ীরা নিয়মিত বালু উঠানো অব্যাহত রেখেছে।
এতে করে সরকারী ও বে-সরকারী প্রতিষ্ঠান, বাগান, আবাদী জমি, শ্মশান, পলিপাড়া গ্রাম, মন্দির, প্রাথমিক বিদ্যালয় ও বাঁধের মারাত্মক ক্ষতিসহ নদীর গতিপথ পরিবর্তনের আশঙ্কাও দেখা দিয়েছে। তারা আরও জানান, এলাকায় অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলনের মহোৎসব চলছে। এ উৎসবকে কেন্দ্র করে ভবিষ্যতে আরো বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কা রয়েছে।
এ বিষয়ে পত্নীতলা থানার ইন্সপেক্টর তদন্ত হাবিবুর রহমান জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। তবে ঘটনায় এখনও পর্যন্ত থানায় কোন অভিযোগ করা হয়নি।
এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার লিটন সরকারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, শ্যালো মেশিন দিয়ে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলের বিষয়ে অভিযোগ দায়ের হলে তিনি আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেবেন।
এ রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছিল।

জুন ০৭
০৫:২২ ২০২১

আরও খবর