Daily Sunshine

আমনুরা-নাচোল-রহনপুরে চালু হলো নেসকোর বিদ্যুৎ

Share

গোমস্তপুর প্রতিনিধি: সম্প্রতি চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর ও নাচোল উপজেলায় বিদ্যুত বিভ্রাট বেড়ে যাওয়ায় গ্রাহকদের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হওয়ায় সাবেক সাংসদ জিয়াউর রহমান নেসকো কর্তৃপক্ষের সাথে সাক্ষাত করে বিদ্যুৎ সমস্যার সমাধান দাবি করেন।
এর পরিপ্রেক্ষিতে ঘনঘন বিদ্যুৎ বিভ্রাট নিরসনে অবশেষে চালু হলো আমনুরা-নাচোল-রহনপুর নতুন বিদ্যুত সঞ্চালন লাইন গত ২৩ মে আনুষ্ঠানিক ভাবে উদ্বোধন করা হলেও যান্ত্রিক সমস্যার কারণে ১ জুন থেকে এ লাইন চালু করা হয়। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন গোমস্তাপুর নেসকোর নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল হান্নান।
এদিকে এ নতুন বিদ্যুৎ লাইন চালু হওয়ায় বুধবার দুপুরে নেসকো অফিসে উপস্থিত হয়ে কর্মকর্তা কর্মচারীদের অভিনন্দন জানিয়েছেন সাবেক সাংসদ জিয়াউর রহমান।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন রহনপুর পৌর মেয়র মতিউর রহমান খান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান জামাল উদ্দিন মন্ডল। সাবেক সাংসদ জিয়াউর রহমান জানান, এ বিষয়ে নেসকোর রাজশাহী অঞ্চলের উদ্ধর্তন কর্মকর্তাদের সাথে এলাকার বিদ্যুৎ সমস্যা নিয়ে সম্প্রতি আলোচনা করে দ্রুত চালুর ব্যবস্থা করা হয়।
এদিকে নেসকোর নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল হান্নান সাংবাদিকদের জানান, জরাজীর্ণ রহনপুর চাঁপাইনবাবগঞ্জ ৩৩ কেভি সঞ্চালন লাইনটি সম্প্রতি রহনপুর চাঁপাইনবাবগঞ্জ সড়কের পাশে নেয়া হয়েছে। যা গত ১৩ এপ্রিল চালু করা হয়। কিন্তু প্রযুক্তিগত ও রাস্তার ধারে গাছপালা থাকায় কিছুটা সমস্যা দেখা দিয়েছে। যা অচিরেই সমাধান করা হবে।
তিনি আরো জানান, নেসকো প্রায় ৮৯ কোটি ৫৬ লক্ষ টাকার প্রকল্প গ্রহন করেছে। এ বরাদ্দের ভিতরে নাচোলে একটি সাব-স্টেশন করা হবে এবং জমি অধিগ্রহনের প্রক্রিয়া চলছে। এছাড়া রহনপুর সাব স্টেশনে নির্মানাধীন নতুন একটি ইউনিট চালু হলে লোড ম্যানেজমেন্টের সক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে।
এছাড়া পৌর মেয়র মতিউর রহমান খানের আবেদনের প্রেক্ষিতে পৌর এলাকার যেসব জায়গার বিদ্যুৎ পোল তা অচিয়েই স্থাপন করা হবে। তিনি আরো জানান, বর্তমানে গোমস্তাপুর ও নাচোলে ৮.৫ মে. বিদ্যুৎ এবং সেচ মৌসুমে ১২.৫ মে. বিদ্যুৎ প্রয়োজন। যার সবটাই নগদ অর্থে কিনতে হয়। এ কারণে সময়মতো বিদ্যুৎ বিল পরিশোধের জন্য গ্রাহকদের অনুরোধ জানান।

জুন ০৪
০৬:৫২ ২০২১

আরও খবর