Daily Sunshine

ইউনিয়ন পরিষদ ও পৌরসভার বিতর্কে নাকাল দুশ’ মিটার সড়ক

Share

বড়াইগ্রাম প্রতিনিধি: নাটোরের বড়াইগ্রামে বনপাড়া পৌরসভা ও মাঝগ্রাম ইউপির সীমানা দ্বন্দ্বে ২শ মিটার রাস্তা পাকা করণ না হওয়ার কারণে দুর্ভোগে কয়েক হাজার মানুষ।
উপজেলার হারোয়া গ্রামের আনসার ভিডিপি ক্লাব হতে পূর্বপাড়া অভিমুখে রাস্তার জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। স্বাভাবিক চলাচল বিঘ্নিত হচ্ছে। দুই পরিষদই নিজেদের দায় সারা জবাব দিচ্ছে।
বুধবার সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, হারোয়া ঈদগাহ মোড় পাকার রাস্তা হতে মসজিদ মোড় পাকা রাস্তা পার্শে মাঝগ্রাম ইউপির আরেক পাশে বনপাড়া পৌরসভার। গ্রামের ও মসজিদ মোড় পাকা রাস্তা। মাঝে ২‘শ মিটার রাস্তা পাকা না হওয়ায় দুর্ভোগে পরেছে কয়েক গ্রামের মানুষ। রাস্তাটি পাকা করণ না হওয়ার কারনে প্রায় দুই কিলোমিটার ঘুরে চলাচল করতে হচ্ছে কয়েক গ্রামের মানুষের।
মোস্তাফিজুর রহমানের বৃদ্ধ জানান, রাস্তাটি পাকা করণের জন্য পৌর সভার মেয়র এবং ইউনিয়ন পরিষদের বারবার ধরনা দিয়েও পাকাকরণ হয়নি। সদস্য জাহিদুল ইসলাম বারবার প্রতিশুতি দিলেও তা বাস্তবায়ন হয়নি। উপজেলা পরিষদ থেকে কিছুটা রাস্তা কাজ হয়েছে। পরিষদ ও পৌরসভার উভয়ের রাস্তার অংশ থাকায় উপজেলা পরিষদ উন্নায়ন কাজ করতে পারছেন না।
তিনি আরো বলেন, মরার আগে হয়তো রাস্তাটি পাকা করণ দেখে যেতে পারব না।
ইউপি সদস্য জাহিদুল ইসলাম প্রথমে রাস্তাটি তাদের সীমানা নয় দাবি করেন। পরে চেয়ারম্যানের সহযোগিতা করলে আমি প্রাথমিক ভাবে ভরাট ভরাট বালি দিয়ে রাস্তায় চলাচলের ব্যবস্থা করা হবে বলে জানান।
ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাইদুল ইসলাম বলেন, রাস্তাটি ইউনিয়ণ পরিষদের আওতায়। পৌরসভা কোন কাজ করতে পারবে না।
ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল আলীম বলেন রাস্তাটি পৌর এবং ইউপি উভয়ের অংশ আছে, আমি দু’একদিনের মধ্যে জায়গাটি পরিদর্শন করব। মেয়র জাকির হোসেন বলেন, রাস্তাটি ইউনিয়ন পরিষদের অংশে।
উপজেলা চেয়ার ডা. সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারী বলেন, উপজেলা পরিষদের বরাদ্দ কম। তার পরেও চেষ্টা করছি রাস্তাটির উন্নায়ন করা করার।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম বলেন, বিষয়টি আমি খোজ নিয়ে দেখব।

জুন ০৩
০৫:৩৯ ২০২১

আরও খবর