Daily Sunshine

কোপা আমেরিকা ব্রাজিলে

Share

স্পোর্টস ডেস্ক: শতবর্ষের কোপা আমেরিকা ইতিহাসে প্রথমবার দুই দেশ আয়োজক হওয়ার মর্যাদা পেয়েছিল। কিন্তু রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে কলম্বিয়ার কাছ থেকে সেই অধিকার হারায়। তাদের সঙ্গে যৌথভাবে টুর্নামেন্ট আয়োজন করার কথা ছিল আর্জেন্টিনার। সোমবার কনমেবল জানায়, আর্জেন্টিনাতেও হবে না মহাদেশীয় ফুটবল প্রতিযোগিতা। কয়েক ঘণ্টার মধ্যে তারা জানালো, ব্রাজিলে হচ্ছে এবারের কোপা আমেরিকা।
এক আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে দক্ষিণ আমেরিকার শীর্ষ ফুটবল সংস্থা কনমেবল বলেছে, ‘কনমেবল কোপা আমেরিকা ২০২১ এর খেলা হবে ব্রাজিলে। টুর্নামেন্ট শুরু ও শেষে তারিখ আগেই নিশ্চিত হয়েছে। ভেন্যু ও ম্যাচের সূচি পরবর্তী কয়েক ঘণ্টার মধ্যে কনমেবল জানিয়ে দেবে। বিশ্বের সবচেয়ে পুরোনো জাতীয় দলের টুর্নামেন্ট পুরো মহাদেশকে রোমাঞ্চিত করবে।’
গত আগে ২০ মে কলম্বিয়া আয়োজক দেশের মর্যাদা হারায়। আর্জেন্টিনাতেও হচ্ছে না এই টুর্নামেন্ট, ছোট বিবৃতি দেয় কনমেবল, বর্তমান পরিস্থিতির কারণে এ সিদ্ধান্ত। তবে কারণটা খোলাসা করেনি সংস্থাটি। বেলা গড়াতে তারা জানালো, টানা দ্বিতীয়বার কোপা আমেরিকা হবে ব্রাজিলে। ২০১৯ সালে সবশেষ আসরে ব্রাজিল ঘরের মাঠে এক যুগের শিরোপা খরা ঘুচিয়ে দেয় পেরুকে ফাইনালে হারিয়ে। এখনও ভেন্যু চূড়ান্ত করেনি কনমেবল।
১৩ জুন থেকে ১০ জুলাই পর্যন্ত যৌথভাবে আর্জেন্টিনা ও কলম্বিয়ার ৯ শহরে টুর্নামেন্টটি অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। শুরু হওয়ার দুই সপ্তাহও যখন বাকি নেই তখন অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়ে যায়। পর্যায়ক্রমে বাদ গেলো দুটি আয়োজক দেশই। দুই দেশের ৯টি শহরের ৯ ভেন্যুতে হওয়ার কথা ছিল ম্যাচ। গত মাস থেকে কলম্বিয়ায় চলছে রাজনৈতিক অস্থিরতা। সাধারণ জনগণের বিক্ষোভ আর সহিংস আন্দোলনে উত্তাল দক্ষিণ আমেরিকার দেশটি। এই টালমাটাল পরিস্থিতিতে আসন্ন কোপা আমেরিকার যৌথ আয়োজক হওয়ার মর্যাদা হারায় কলম্বিয়া। ফাইনালসহ দেশটির মাঠে ১৫টি ম্যাচ হওয়ার কথা ছিল।
৪৭তম আসরে মহাদেশের বাইরে থেকে অস্ট্রেলিয়া ও কাতারকে আমন্ত্রণ করা হয়েছিল। কিন্তু তারা সরে যাওয়ায় এইবার খেলবে দক্ষিণ আমেরিকার ১০টি দল। পাঁচটি করে দল নিয়ে দুই গ্রুপে হবে লড়াই। প্রতি গ্রুপের শীর্ষ চার দল খেলবে কোয়ার্টার ফাইনাল। কলম্বিয়া, ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার সঙ্গে অংশ নিচ্ছে প্যারাগুয়ে, ইকুয়েডর, বলিভিয়া, পেরু, ভেনেজুয়েলা, চিলি, উরুগুয়ে।

জুন ০১
০৫:৩১ ২০২১

আরও খবর