Daily Sunshine

কৃষকের পাকা ধান কেটে দিলো আনসার সদস্যরা

Share

ভাঙ্গুড়া প্রতিনিধি: করোনাকালে পাবনার ভাঙ্গুড়ায় দরিদ্র এক কৃষকের পাকা ধান কেটে দিলেন উপজেলা আনসার ও ভিডিপি সদস্যরা। বিনামুল্যে ধান কাটতে পারায় খুশি পৌর এলাকার ওসমান গনি নামের ওই কৃষক। এমন উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে স্থানীয় সচেতন নাগরিকরা।
রবিবার সকালে পাবনার ভাঙ্গুড়া পৌরসভার উত্তর মেন্দা মহল্লার একেন আলী মুন্সির ছেলে দরিদ্র কৃষক ওসমান গনি। মহামারি করোনায় অর্থাভাবে ফসল ঘরে তোলা নিয়ে দুশ্চিন্তায় ছিলেন ওই কৃষক। কালবৈশাখী ঝড় ও বৃষ্টি কেড়ে নিয়েছে তার দুই চোখের ঘুম। আর এমন সময় তার কাছে আশিবার্দ হয়ে দাঁড়িয়েছে উপজেলা আনসার কমান্ডারের তরুণ সদস্যরা।
জানায়ায়, ওসমান গনি নামের ওই কৃষক ভাঙ্গুড়ার একটি ব্যাংকে মাত্র ৫ হাজার ৪০০ টাকা বেতনের নাইটগার্ড হিসেবে চাকরি করেন। বর্তমান বাজারে মাত্র ৫ হাজার ৪০০ টাকা বেতনের চাকরি করে সংসার চালানো খুবই কষ্টসাধ্য ব্যাপার হয়ে উঠেছে তার জন্য। এমন অবস্থায় তার লাগানো জমির ধান কাটার এ ভরা মৌসুমে অর্থ এবং শ্রমিক উভয় সংকটে পড়ে খুবই দুশ্চিন্তায় পড়েন মাঠের পাকা ধান ঘরে তোলা নিয়ে।
খবর পেয়ে ওই কৃষকের সাথে কথা বলে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের ইউনিয়ন আনসার প্লাটুন কমান্ডার ও সদস্যদের নিয়ে কৃষক ওসমান গনির মাঠের পাকা ধান কেটে ঘরে তুলে দেন ভাঙ্গুড়া উপজেলার চৌবাড়িয়া মাস্টার পাড়ার আব্দুস সামাদের ছেলে সাখাওয়াত হোসেন।
তিনি ভাঙ্গুড়া আনসার কোম্পানি কমান্ডার হিসেবে উপজেলা আনসার ও ভিডিপি অফিস ভাঙ্গুড়াতে কর্মরত আছেন। তিনি ইতিপূর্বেও বিভিন্ন সেবামূলক কাজে নিজেকে সম্পৃক্ত করে অনেকের প্রশংসা লাভ করেছেন।
দরিদ্র কৃষক সাখাওয়াত হোসেনের এমন মহৎ কাজ দেখে আবেগ আপ্লুত হন।

মে ৩১
০৫:০৮ ২০২১

আরও খবর