Daily Sunshine

ভাঙ্গুড়ায় ইউএনও’র মোবাইল নম্বর ক্লোন করে প্রতারণা

Share

চলনবিল প্রতিনিধি: পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সরকারি নাম্বার ক্লোন করে (০১৭৬২৬২১০১৬) বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধানদেরকে ফোন করে চাঁদা চাওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় উপজেলার একাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানরা বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানালে প্রতারণার বিষয়টি সামনে আসে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ আশরাফুজ্জামান এ ঘটনায় ভাঙ্গুড়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন। একই সাথে তার কার্যালয় থেকে উপজেলাবাসীকে প্রতারক চক্রের বিষয়ে সতর্ক থাকতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সরকারি নাম্বার থেকে উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রধান ও গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিকে ফোন করা হয়। এ সময় ফোন করে সরকারি সুবিধা দেওয়ার কথা বলে চাঁদা চাওয়া হয়। প্রতারক চক্র কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানকে সরকারি ল্যাপটপ দেওয়ার কথা বলে বিকাশ নম্বরে (০১৬৩৭৬৮৮০৮৫) ৫ হাজার টাকা দ্রুত পাঠাতে বলেন। বিষয়টি নিয়ে সন্দেহ হলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সঙ্গে যোগাযোগ করলে প্রতারণার বিষয়টি ধরা পড়ে।
এরপর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান, অন্যান্য প্রতিষ্ঠান প্রধান এবং গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদেরকে এ ব্যাপারে সতর্ক থাকতে বলা হয়। এছাড়া উপজেলার সর্বস্তরের মানুষকে প্রতারক চক্র থেকে সতর্ক করতে উপজেলা প্রশাসন, ভাঙ্গুড়া পৌর মেয়রসহ জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনের কর্মকর্তাদের ফেসবুক প্রোফাইল থেকে এ সংক্রান্ত একটি স্ট্যাটাস দেওয়া হয়েছে।
ভাঙ্গুড়া টেকনিক্যাল এন্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজের অধ্যক্ষ বদরুল আলম বলেন, ভাঙ্গুড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ আশরাফুজ্জামান একজন সৎ, দায়িত্বশীল ও মানবিক কর্মকর্তা। তাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার ফোন নম্বর থেকে কল করে টাকা চাওয়া হলেই সবার সন্দেহ হয়। এতে প্রতারণার বিষয়টি তাৎক্ষণিক ধরা পড়ে।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ আশরাফুজ্জামান বলেন, কেউ যেন প্রতারক চক্রের ফাঁদে পা না দেয় এজন্য সবাইকে সতর্ক করা হয়েছে। পাশাপাশি প্রতারক চক্রকে ধরতে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে।

মে ২৯
০৪:৫১ ২০২১

আরও খবর