Daily Sunshine

উপকূলের ১০ লাখের বেশি মানুষকে সরিয়ে নিচ্ছে ভারত

Share

সানশাইন ডেস্ক: পশ্চিম উপকূলে প্রাণঘাতী একটি ঘূর্ণিঝড় আঘাত হানার কয়েকদিন পর ভারতের পূর্ব উপকূলের দিকে ধেয়ে যাওয়া প্রবল ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের পথে থাকা ১০ লাখের বেশি মানুষকে সরিয়ে নিচ্ছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া এই ঝড় বুধবার ভারতের উড়িষ্যা ও পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য এবং বাংলাদেশে আঘাত হানতে পারে বলে জানিয়েছে ভারতের আবহাওয়া বিভাগ (আইএমডি)।
“বড় ধরনের ক্ষয়ক্ষতির সম্ভাবনা আছে,” বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে টেলিফোনে এমনটাই বলেছেন আইএমডির প্রধান মৃত্যুঞ্জয় মহাপাত্র। দেশটির কর্মকর্তাদের মঙ্গলবার গাড়ি ও নৌকায় করে উপকূলের নিচু এলাকার বাসিন্দাদের স্কুল, সরকারি ভবন ও আশ্রয়কেন্দ্র বানানো বিভিন্ন স্থাপনায় সরিয়ে নিতে দেখা গেছে। গর্ভবতী নারী ও শিশুদের পাঠানো হচ্ছে সরকারি হাসপাতালে। জেলেরা তাদের নৌকাগুলোকে তুলে রাখছেন তীরে।
ঘূর্ণিঝড় টি যেখানে আছড়ে পড়বে বলে ধারণা করা হচ্ছে, তার নিকটবর্তী উড়িষ্যার বালাসোর জেলায় স্বেচ্ছাসেবকদেরকে মেগাফোন ব্যবহার করে বাসিন্দাদের সতর্ক করতে ও সরিয়ে নিতে দেখা গেছে। বাসিন্দাদের সরিয়ে নেওয়া সবসময়ই চ্যালেঞ্জের। সাধারণ সময়েও নানা ধরনের প্রতিবন্ধকতা থাকে। আর এখনতো কোভিড আছেই,” বলেছেন বালাসোরের ত্রাণ কার্যক্রম দেখভালের দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তা ভিশাল কুমার দেব।
“বেশিরভাগ সময়ই লোকজন বলে, আমরা তখনই যাবো যখন বৃষ্টি বাড়বে। আমরা তাদেরকে বোঝানোর চেষ্টা করছি,” বলেছেন তিনি। বছরের এই সময়ে বঙ্গোপসাগর থেকে উদ্ভূত ঝড় বাংলাদেশ ও ভারতের উপকূলে আছড়ে পড়ে প্রাণহানি ও ক্ষয়ক্ষতি ঘটায়। গত সপ্তাহে আরেকটি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ভারতের পশ্চিম উপকূলে আছড়ে পড়ে দেড়শর বেশি মানুষের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে। গত দুই দশকে ভারতের পশ্চিম উপকূলে এরকম শক্তিশালী ঝড় আর আঘাত হানেনি।

মে ২৬
০৬:৩৩ ২০২১

আরও খবর