Daily Sunshine

রাজশাহী ও জয়পুরহাটে সড়কে ঝড়লো ৪ প্রাণ

Share

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীতে দূরপাল্লার দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুইজন নিহত এবং অন্তত ১৩ জন আহত হয়েছেন। সোমবার দুপুরে মহানগরীর উপকণ্ঠে থাকা কাটাখালী পৌরসভার চৌদ্দপাই এলাকার গম গবেষণা ইনস্টিটিউটের সামনের মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
নিহতদের মধ্যে এক জনের নাম রবিউল আউয়াল (৩২)। তিনি একজন মোটর শ্রমিক। তিনি ঘটনাস্থলেই মারা গেছেন। অপরজনের নাম নবাব আলী (৪৮)। তিনি রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার থানা পাড়া গ্রামের বাবর আলীর ছেলে। দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে আহত হওয়ার পর তাকে রামেক হাসপাতালের ৮নং ওর্য়াডে ভর্তি করা হয়। এরপর পরই তার মৃত্যু হয়।
এ ঘটনায় আহতের উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদেরকে হাসপাতালের ৮ ও ৩১ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে। আহতরা হলেন- নওগাঁ জেলার ধামুইরহাট উপজেলার ইউনুস আলী (৬৫), রাজশাহীর তানোর উপজেলার কলমা গ্রামের আবু রায়হান (২৩), ঢাকা আশুলিয়ার আক্তার হোসেন (৪০), বাঘা উপজেলার চক নারায়ণপুর গ্রামের সুজন (৪৫), চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার তরাকু গ্রামের মনিরুল ইসলাম (৫০), রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার গোবিন্দপুর গ্রামের আমান উল্লাহ (৬০), পাবনার (বাস চালক) মাসুদ রানা (৬০), রাজশাহীর বাঘা উপজেলার নারায়ণপুর গ্রামের শাফি আলম (২৮), চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার মনকষা গ্রামের কোহিনুর বেগম (৩৮), রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার শালঘরিয়া গ্রামের মাহাবুল আলম (৩০), রাজশাহী মহানগরের শালবাগান এলাকার আফজাল হোসেন (৫০) ও গোদাগাড়ীর ললিতনগর গ্রামের বেনজামিন (২৪)।
রাজশাহী ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সহকারী উপ-সহকারী পরিচালক জাকির হোসেন জানান, দুর্ঘটনাস্থল থেকে একজনকে নিহত অবস্থায় পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এছাড়াও ১৩ জনকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে রামেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
তিনি আরও জানান, রাজশাহীগামী হানিফ এন্টারপ্রাইজ ও বিপরীত দিক থেকে আফিয়া নামের দুইটি বাসের মধ্যে দুপুরে এই মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। হানিফ এন্টারপ্রাইজের যাত্রীবাহী বাসটি ঢাকা থেকে রাজশাহী আসছিল। আর আফিয়া নামের বাসটি রাজশাহী থেকে যাচ্ছিল।
দুইটি বাসই বেপরোয়া গতিতে চলছিল। কাটাখালির চৌদ্দপাই এলাকায় গম গবেষণা ইনস্টিটিউটের কাছাকাছি পৌঁছালে বেপরোয়া গতির কারণে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে হতাহতের এই ঘটনা ঘটে।
নিসচা, রাজশাহী জেলা : দুইটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ২জন নিহত ও ১৩জন আহত হওয়ায় নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা), রাজশাহী জেলা শাখার এক শোকবার্তায় নিহতদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করা হয় ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানানো হয় এবং আহতদের দ্রুত আরোগ্য লাভের জন্য প্রার্থনা করা হয়।
শোক বার্তায় বিবৃতি প্রদান করেন নিরাপদ সড়ক চাই, রাজশাহী জেলা শাখার সভাপতি এ্যাডভোকেট তৌফিক আহসান টিটু, সহসভাপতি ওয়ালিউর রহমান বাবু, সিরাজুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক সুলতান মাহমুদ সুমন, সহসাধারণ সম্পাদক মামুনার রশীদ, মাসুদুজ্জামান কাজল, অর্থ সম্পাদক বজলুর রশীদ লিটন, সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. আমানুল্লাহ বিন আখতার আবিদ, প্রকাশনা সম্পাদক প্রকৌশলী জুনায়েদ আহমেদ, সাংস্কৃতিক সম্পাদক এ্যাডভোকেট মুন্সী আবুল কালাম আজাদ, সমাজকল্যান ও ক্রীড়া সম্পাদক সাবান আলী দিলীপ, মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা তাছলিমা আক্তার মনি, যুব বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল ওয়াহাব, কার্যকরী সদস্য ময়নুল হক, মিজানুর রহমান, আসাদ হোসেন, ডা. আনোয়ারুল ইসলাম, রাকিবুল ইসলাম রকি, অধ্যক্ষ সিরাজুল ইসলাম, সাজিদ রওশন ইশান, সিরাজুল ইসলাম, রুহুল হাসান পলাশ, জুখার দুদায়েব, তমাল, আনোয়ার হোসেন, মিঠুন প্রমুখ।
গোদাগাড়ী : রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে পিকআপ ও মোটরসাইকেল মুখোমুখি সংঘর্ষে শফিকুল ইসলাম শফি মেম্বার (৬৫) নামের এক মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। সোমবার(২৪মে) ভোর ৬টার দিকে মহিশালবাড়ি বাজারে রাজশাহী চাঁপাইনবাবগঞ্জ মহাসড়কে এ ঘটনা ঘটে।
গোদাগাড়ী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খলিলুর রহমান পাটোয়ারী জানান, রেলবাজার থেকে ছেড়ে আসা একটি মোটরসাইকেল মহিশালবাড়ি বাজারে এসে পৌঁছলে চাঁপাইনবাবগঞ্জমুখী দ্রুতগামী একটি পিকআপের চাকায় পিষ্ট হয়ে গুরুতর জখম হয়। স্থানীয়রা উদ্ধার করে দ্রুত রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।
জয়পুরহাট : জয়পুরহাটের কোমরগ্রাম চারমাথা এলাকায় ট্রাক্টর নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে আব্দুল আলী (৫৫) নামে এক চালক নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আনোয়ার হোসেন (৪৫) নামে একজন কৃষক আহত হয়েছেন। সোমবার বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে জয়পুরহাট-হিলি বাইপাস সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত আব্দুল আলী ক্ষেতলাল উপজেলার বটতলী গ্রামের আব্দুল মালেকের ছেলে। আহত কৃষক আনোয়ার হোসেন সদর উপজেলার কোমরগ্রাম গ্রামের মোয়াজ্জেম হোসেনের ছেলে।
বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জয়পুরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর জাহান। তিনি জানান, বটতলী বাজার থেকে একটি খালি ট্রাক্টর পাঁচবিবিতে বালু নেওয়ার উদ্দেশ্য যাচ্ছিল। পথে কোমরগ্রাম চারমাথা এলাকায় আনোয়ার হোসেন নামে এক কৃষক খড় শুকানোর কাজ করছিলেন এসময় ট্রাক্টরটি তাকে ধাক্কা দিলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাশের ধানক্ষেতে পড়ে যায়। চালক আব্দুল আলী ও আনোয়ার হোসেন গুরুতর আহত হন।
স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে জয়পুরহাট হাসপাতালে ভর্তি করেন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুরে আব্দুল আলী মারা যান।

মে ২৫
০৪:৩৭ ২০২১

আরও খবর