Daily Sunshine

আমে ঠাসা সাপাহার

Share

সাপাহার প্রতিনিধি: ফলের রাজা আম পাল্টে দিয়েছে নওগাঁ জেলার সীমান্ত ঘেঁষা প্রাচীন বরেন্দ্রভুমির সভ্যতাকে। এক কালের ঠাঁঠাঁ বরেন্দ্র অঞ্চল সাপাহার, পোরশায় এবারে আমের বাম্পার ফলনেরও সম্ভাবনা রয়েছে বলে কৃষি দপ্তর ও বাগান মালিকরা জানিয়েছেন। গতবছরের করোনায় আমের ক্ষতি এবারে অনেকটায় পুশিয়ে নিতে পারবে বলেও ধারণা আমচাষীদের। জেলার সীমান্ত ঘেঁষা সাপাহার পোরশার বাগানে বাগানে ঝুলন্ত আমের দোল খাওয়া যেন এক মনমুগ্ধকর দৃশ্যের সৃষ্টি করেছে।
সাপাহার ও পোরশার আমচাষী তছলিম উদ্দীন, ডিএম রাশেদ, রইচ উদ্দীন, ওমর আলী, দেলোয়ার হোসেন, মমিনুল হক, শাহজাহান আলী, জাহাঙ্গীর আলমসহ অসংখ্য আমচাষীদের সাথে কথা বলে জানা গেছে এবছর আমের গুটি হওয়ার সময় ব্যাপক হারে প্রতিটি বাগানে আকষ্কিক এক শোষক পোকার আক্রমণ ঘটে। দিশে হারা হয়ে যান বাগান মালিকরা, ওষুধের পর ওষুধ প্রয়োগ করেও কিছুতেই এ পোকার আক্রমণ ঠেকাতে না পেরে হতাশ হয়ে পড়েন। অবশেষে আম একটু বড় আকার ধারণ ও অম্বলত্ব বাড়ার সাথে সাথে প্রকৃতিগতভাবেই এ পোকার আক্রমণের হার অনেকাংশে কমতে শুরু করে এবং এক সময় নিঃশেষ হয়ে যায়। তবে এ পোকার আক্রমণ ঠেকাতে প্রতিটি বাগান মালিমদের অতিরিক্ত অর্থ খোয়াতে হয়েছে, ফলে কিছুটা হলেও এবারে আমের উৎপাদন খরচ একটু বেশী হয়েছে বলেও বাগানমালিকগন জানিয়েছেন। বর্তমান সময় পর্যন্ত এলাকার প্রতিটি বাগানে ব্যাপক হারে আম রয়েছে বলে আমচাষীরা জানিয়েছেন।
প্রতি শ্রেণির আমের হারভেষ্টিং সময় পর্যন্ত আবহাওয়া আমচাষীদের অনুকুলে থাকলে ও আমের বাজার ভাল থাকলে এবারে এ জেলায় আমের বাম্পার ফলনসহ অধিক হারে লাভবান হবেন আমচাষীরা বলে উপজেলা কৃষি দপ্তর ও অভিজ্ঞজনরা ধারণা করছেন।
সাপাহার উপজেলা কৃষিদপ্তর ও নওগাঁ জেলা কৃষি অধিদপ্তরের কর্মকর্তাগরা নিকট থেকে জানা যায়, সারা নওগাঁ জুড়ে যে আম উৎপাদন হয় তার সিংহ ভাগ উৎপাদন হয়ে থাকে সীমান্ত ঘেঁষা সাপাহার ও পোরশা উপজেলায়।
এ জেলায় যতগুলি আম উৎপাদন হয়ে থাকে তার মধ্যে ৬০%ভাগ আম্রপলী ও বাকী ৪০%ভাগ ফজলী, নাগফজলী, ন্যাংড়া, খিরশা, হিমসাগরসহ অন্য সকল প্রজাতির আম।
তারা আরোও জানান গতবছর আমের সিজনে জেলায় সর্বমোট ২৪ হাজার ৭৫০ হেক্টোর জমিতে ্আমের চাষাবাদ হয়ে ছিল এবং ওই সিজনে এ জেলায় প্রায় দেড় হাজার কোটি টাকার আম বানিজ্য হয়েছিল তবে এবারে আমের ফলন ও চাষাবাদের পরিধি বৃদ্ধি পাওয়ায় গতবছরের রেকর্ডকে ছাড়িয়ে যাবে বলেও ধারণা করছেন তারা।
এছাড়া সারা জেলার আম ক্রয় বিক্রয়য়ের জন্যও সর্ববৃহৎ আমের মার্কেট গড়ে উঠেছে জেলার সাপাহার উপজেলায়। আগামী ২৫ মে নওগাঁ জেলায় আম সংগ্রহের শুভ উদ্বোধন সাপাহারেই অনুষ্ঠিত হবে বলে সাপাহার উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল্যাহ আল মামুন জানিয়েছেন। আম ক্রয় বিক্রয়কে কেন্দ্র করে ইতোমধ্যেই সাপাহার উপজেলায় কয়েক কিলোমিটার এলাকা জুড়ে আমের আড়তঘর নির্মানে আড়ত মালিকরা ব্যস্ত সময় পার করছেন।
বর্তমানে ফলের রাজা আম জেলার সকল মানুষের ভাগ্যের চাকা খুলে দিয়েছে এবং দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে নওগাঁ জেলা আমের বাণিজ্যিক রাজধানী বলেও পরিচিতি লাভ করেছে।
নওগাঁ-১ আসনের সংসদ সদস্য ও খাদ্যমন্ত্রী বাবু সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি এক ভার্চ্যুয়াল বক্তব্যে জেলায় যাতে আম ক্রয় বিক্রয়ে আমচাষীসহ কোন ব্যাপারীরা কোন প্রকার হয়রানীর শিকার না হয় সে জন্য প্রশাসনকে নির্দেশ দিয়েছেন।

মে ২৪
০৪:৪৬ ২০২১

আরও খবর