Daily Sunshine

নওগাঁয় ৩ লাখ ৬২ হাজার টন আম উৎপাদনের আশা

Share

নওগাঁ প্রতিনিধি: নওগাঁয় এ বছর গত বছরের থেকে ১ হাজার ৭৫ হেক্টর বেশী জমিতে আমের বাগান গড়ে উঠেছে। কৃষি বিভাগের মতে ফলনও হয়েছে বাম্পার। এরই মধ্যে গতকাল বৃহষ্পতিবার থেকে জেলায় আম ভাঙ্গা শুরু হচ্ছে।
কৃষি সম্প্রসারন অধিপ্তরের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ শামসুল ওয়াদুদ জানিয়েছেন গত মওসুমে এ জেলায় মোট আমের বাগান ছিল ২৪ হাজার ৭৭৫ হেক্টর জমিতে। এ বছর বাগান সৃজিত হয়েছে ২৫ হাজার ৮৫০ হেক্টর জমিতে।
উপজেলা ভিত্তিক আম বাগানের পরিমাণ হচ্ছে নওগাঁ সদর উপজেলায় ৪৪০ হেক্টর, রানীনগর উপজেলায় ৩৫ হেক্টর, আত্রাই উপজেলায় ১২০ হেক্টর, বদলগাছি উপজেলায় ৩৩৫ হেক্টর, মহাদেবপুর উপজেলায় ৬২৫ হেক্টর, পত্নীতলা উপজেলায় ৩ হাজার ১৫ হেক্টর, ধামইরহাট উপজেলায় ৬৭৫ হেক্টর, সাপাহার উপজেলায় ৮ হাজার ৫২৫ হেক্টর, পোরশা উপজেলায় ১০ হাজার ৫৫০ হেক্টর, মান্দা উপজেলায় ৪০০ হেক্টর এবং নিয়ামতপুর উপজেলায় ১ হাজার ১৩০ হেক্টর।
কৃষি বিভাগের তথ্য অনুযায়ী জেলায় এ বছর গুটি আম, গোপালভোগ, রানী পছন্দ, খিরসাপাত, হিমসাগর, নাগফজলী, ল্যাংড়া, ফজলী, আম্রপালী, আশ্বিনা, বারী-৪ এবং ঝিনুক জাতের আম উৎপাদিত হয়েছে।
চলতি মওসুমে হেক্টর প্রতি গড়ে ১৪ মেট্রিক টন আম উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারন করা হয়েছে। সেই হিসেবে জেলায় এ বছর মোট আম উৎপাদনের পরিমাণ প্রত্যাশা করা হচ্ছে ৩ লক্ষ ৬২ হাজার মেট্রিক টন। গড়ে প্রতি কেজি আম ৬০ টাকা হিসেবে উৎপাদিত আমের মোট বিক্রিত অর্থের পরিমান হচ্ছে ২ হাজার ১৭১ কোটি ৪০ লাখ টাকা।
কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক এ ব্যপারে বলেছেন যদিও এই লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারিত হয়েছে, তবে এ বছরের বাস্তবতায় এর চেয়ে অধিক পরিমাণ আম উৎপাদনের প্রত্যাশা রয়েছে। কারন এ বছর তেমন ঝড় হয়নি। এর ফলে আমের তেমন ক্ষতি সাধিত হয় নি। কাজেই ধার্যকৃত লক্ষমাত্রার থেকে বেশী আম উৎপাদনের সম্ভাবনা রয়েছে।
এদিকে জেলায় ২০ মে থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে আম ভাঙ্গা শুরু হচ্ছে। এ দিন থেকে গুটি আম ভাঙ্গা শুরু হচ্ছে। এ ছাড়াও ২৫ মে থেকে গোপালভোগ ও রানিপছন্দ আম, ২ জুন থেকে খিরসা পাত ও হিমসাগর আম, ৪ঠা জুন থেকে নাগফজলী আম, ১০ জুন থেকে ল্যাংড়া আম, ২০ জুন থেকে ফজলী আম, ২২ জুন থেকে আম্রপালী আম এবং ৮ জুলাই থেকে আশ্বিনা, বারী-৪ ও ঝিনুক জাতের আম ভাঙ্গা শুরু হবে বলে কৃষি বিভাগ জানিয়েছে।

মে ২১
০৪:৩৬ ২০২১

আরও খবর