Daily Sunshine

শ্রমিকলীগ নেতার রগ কাটার ঘটনায় মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান গ্রেফতার

Share

নওগাঁ প্রতিনিধি: নওগাঁর আত্রাই উপজেলা শ্রমিকলীগের সাধারণ সম্পাদক সরদার সোয়েবের উপর হামলা ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হাত এবং পায়ের রগ কাটার অভিযোগ ও পূর্ব শত্রুতার জের উল্লেখ করে ১২ জনসহ অজ্ঞাতনামা আরও ৪-৫ জনকে আসামী করে থানায় মামলা দায়ের হয়েছে।
আহত উপজেলা শ্রমিকলীগের সাধারণ সম্পাদক সরদার সোয়েবের স্ত্রী সাবরিনা সুলতানা ঝর্ণা বাদী হয়ে সোমবার সকালে থানায় এ মামলা দায়ের করেন। মামলার হত্যার উদ্দেশ্যে এ হামলা ও হাত পায়ের রগ কাটার মূল পরিকল্পনাকারী হিসাবে উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ বেগম ও হামলাকারী হিসেবে তার ছেলে মির্জা রাব্বীসহ ১২ জনের নাম উল্লেখ করে এ মামলা দায়ের করা হয়। মামলার প্রেক্ষিতে সোমবার সকাল উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ বেগমকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এ মামলার গ্রেপ্তার দেখিয়ে ওইদিন দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাকে নওগাঁ জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। আর গুরুত্বর আহত সরদার সোয়েবকে বর্তমানে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ ঘটনায় পুরো উপজেলায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।
আত্রাই থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ বলেন, মামলায় উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ বেগমকে আসামী করায় তাকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। আর অন্য আসামীদের গ্রেপ্তারের জোর চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।
গত রবিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার নিউ মার্কেটে ঠিকাদারি অফিস কক্ষে ছিলেন সরদার সোয়েব। হঠাৎ দুর্বৃত্তরা সোয়েবের উপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় ফেলে রেখে চলে যায়।
বাজারের লোকজন টের পেয়ে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজে স্থানান্তর করা হয়। তার অবস্থার অবনতি হলে রাতেই আহত সোয়েবকে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

মে ১৮
০৪:৫৬ ২০২১

আরও খবর