Daily Sunshine

রাজশাহীতে থেকে সব রুটে বাস চালানোর ঘোষণা শ্রমিক নেতাদের

Share

স্টাফ রিপোর্টার: গণপরিবহন চালুর দাবিতে রাজশাহী জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছেন রাজশাহী জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নে নেতৃবৃন্দ। মঙ্গলবার রাজশাহী জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মাহাতাব হোসেন চৌধুরীর নেতৃত্বে এ স্মারকলিপি দেয়া হয়। শ্রমিক নেতা মাহাতাব হোসেন চৌধুরী রাজশাহী জেলা প্রশাসক আবদুল জলিলের হাতে এ স্মারকলিপি তুনে দিন।
শ্রমিক নেতা মাহাতাব হোসেন চৌধুরী জানান, কঠোর লকডাউনে বন্ধ আছে গণপরিবহন। এ খাতে জড়িত রাজশাহীর প্রায় ২০ হাজার শ্রমিক ও তাদের পরিবার দিশেহারা জীবন-জীবিকা নিয়ে। নেই কাজ। এ অবস্থায় পরিবার-পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন তারা। আয়শূন্য এসব মানুষের দিন কাটছে খেয়ে না খেয়ে। এমন অবস্থায় চরম হতাশায় দিন পার করছেন পরিবহন শ্রমিকরা।
এদিকে স্মারকলিপি দেয়া শেষে শ্রমিক নেতা মাহাতাব হোসেন চৌধুরী শ্রমিকদের বেহাল দশার কথা উল্লেখ করে জানান, বিধিনিষেধ ভেঙ্গে যেকোন মূল্যে রাজশাহী থেকে দুরপাল্লার বাস চালানোর ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি বলেন, আগামি ৬ মে থেকে যেকোনো মূল্যে বাস চলবে। কোনো বাধা মানা হবে না। যেখানে বাধা দেয়া হবে সেখানেই ব্যারিকেড গড়ে তোলা হবে।
তিনি বলেন, আন্তঃজেলা বাস যদি চলে তাহলে দুরপাল্লার বাস চললে সমস্যাটা কোথায়? বরং দুরপাল্লার বাসেই ক্ষতির আশঙ্কা কম। ট্রেন চললে বাস চলতে পারবে না কেন? ঢাকা থেকে একজন যাত্রী রাজশাহীতে আসতে চাইলে তাকে কতটা জেলা পার হতে হয় সে হিসেব কি আছে তাদের কাছে?
মাহাতাব হোসেন চৌধুরী বলেন, আমাদের শ্রমিকরা মানবেতর জীবনযাপন করছেন। তাদের পেটে ভাত নেই। তারা করোনায় মরতে চাই; কিন্তু না খেয়ে মরতে চায় না। এইজন্য আমরা সরকারি নির্দেশনায় সম্পূর্ণ স্বাস্থ্যবিধি মেনে ৬ মে থেকে বস রুটে বাস চালাবো। কোনা বাধা মানা হবে না। শ্রমিকরা যদি রাস্তায় নেমে পড়ে তবে আমাদের কিছু করার থাকবে না বলে মন্তব্য করেন তিনি।
শ্রমিক নেতা মাহাতাব হোসেন চৌধুরী জানান, দেশে লকডাউনে মার্কেট খোলা। তাহলে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরিবহন চললে সমস্যা কোথায়। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চললে মানুষের ভোগান্তিও যেমন কমবে তেমন শ্রমিকরাও দু বেলা দু মুঠো ভাত খাওয়ার টাকাটা জোগাড় করতে পারতেন।

মে ০৫
০৩:২০ ২০২১

আরও খবর