Daily Sunshine

রাজশাহীতে পৃথক অভিযানে মাদকদ্রব্য উদ্ধার, গ্রেপ্তার ৪

Share

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীতে অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন মাদকদ্রব্য উদ্ধার করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি), র‌্যাব ও পুলিশ। অভিযানে র‌্যাব ও পুলিশ চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে। অন্যদিকে মাদকদ্রব্য জব্দ করা হলেও বিজিবি কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।
গ্রেপ্তার চারজন হলেন, রাজশাহী মহানগরীর বেলপুকুর থানার ভরুয়াপাড়া গ্রামের গোলাম মোস্তফার ছেলে রিপন সরকার (২৮), মতিহার থানার চরশ্যামপুর মহল্লার নাজিম উদ্দিনের ছেলে হেলাল (৩০), পুঠিয়া উপজেলার বানেশ্বর পূর্বপাড়া গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে কাওছার আলী (৩২) এবং বানেশ্বর কাচারীপাড়া গ্রামের আবদুল গাফফারের ছেলে তৌহিদুল ইসলাম (৩২)।
রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, রোববার দিবাগত রাত ১১টার দিকে গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) পুলিশের একটি দল ভরুয়াপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৫০০ গ্রাম হেরোইনসহ রিপন সরকারকে গ্রেপ্তার করে।
র‌্যাবের দুটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, রোববার রাতে র‌্যাব-৫ এর নাটোর ক্যাম্পের একটি দল রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার বানেশ্বর বাজারে অভিযান চালায়। এ সময় ২৯ বোতল ফেন্সিডিল ও ২৫ গ্রাম গাঁজাসহ কাওছার আলী ও তৌহিদুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করা হয়।
অন্যদিকে র‌্যাবের রাজশাহীর মোল্লাপাড়া ক্যাম্পের একটি দল রাজশাহী মহানগরীর আলিফ-লাম-মীম ভাটা এলাকায় অভিযান চালায়। এ সময় ৪৭০ পিস ইয়াবা বড়িসহ হেলালকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ চার মাদক কারবারির বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় আলাদা আলাদা মামলা করা হয়েছে।
এদিকে বিজিবির রাজশাহীর ১ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল সাব্বির আহমেদ জানান, রাজশাহীর তালাইমারী ও ইউসুফপুর সীমান্ত ফাঁড়ির সদস্যরা অভিযান চালিয়ে ৫০০ গ্রাম ভারতীয় হেরোইন, ১৯০ পিস ইয়াবা বড়ি এবং দুই কেজি ৩০০ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করেছে।
তবে টহল দলের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক কারবারিরা পালিয়ে যাওয়ায় কাউকে শনাক্ত করা যায়নি। উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্য প্রচলিত নিয়ম অনুযায়ী ধ্বংস করা হবে।

মে ০৪
০৫:০৫ ২০২১

আরও খবর