Daily Sunshine

ওয়ানডের শীর্ষে নিউ জিল্যান্ড, টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের উন্নতি

Share

স্পোর্টস ডেস্ক: ২০১৯ সালের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ডকে পেছনে ফেলে পুরুষ ওয়ানডে র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষ দল এখন নিউ জিল্যান্ড। আইসিসির বার্ষিক হালনাগাদ র‌্যাংকিংয়ে দুই ধাপ এগিয়েছে বিশ্বকাপের গত দুই আসরের রানার্স আপরা। এই সংস্করণে চতুর্থ স্থানে নেমে গেছে ইংল্যান্ড। তবে টি-টোয়েন্টির শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে তারা। নিউ জিল্যান্ড এই সংস্করণে পঞ্চম থেকে তৃতীয় স্থানে উঠে গেছে।
র‌্যাংকিং বিশ্লেষণে ২০১৮-১৯ ও ২০১৯-২০ মৌসুমের ৫০ শতাংশ ও ২০২০ সালের মে থেকে এখন পর্যন্ত খেলা সবগুলো ম্যাচের শতভাগ পারফরম্যান্স বিবেচনা করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে ২০১৯ সালের বিশ্বকাপও। এই তিন বছরে ৩০টির মধ্যে ২০টি ওয়ানডে জিতেছে নিউ জিল্যান্ড। বিশ্বকাপ ফাইনালে তারা ইংল্যান্ডের কাছে হেরে হয়েছে রানার্সআপ। পরে শ্রীলঙ্কা, ভারত ও বাংলাদেশের বিপক্ষেও সিরিজ জিতেছে। তাতে সব মিলিয়ে পয়েন্ট ১২১। অস্ট্রেলিয়া ১১৮ পয়েন্ট নিয়ে দুই ধাপ এগিয়ে দ্বিতীয় স্থানে। ভারত এক ধাপ নেমে তৃতীয় স্থানে, পয়েন্ট ১১৫। ইংল্যান্ডের সঙ্গে তাদের পার্থক্য দশমিকে।
অস্ট্রেলিয়া ও ভারতের কাছে ২-১ এ সিরিজ হারায় এই অবনতি হলো ইংল্যান্ডের। গত ১২ মাসে আয়ারল্যান্ডের কাছেও একটি ওয়ানডে ম্যাচ হারে তারা। শ্রীলঙ্কাকে টপকে অষ্টম স্থানে উঠেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। বাংলাদেশ আছে ক্যারিবিয়ানদের উপরে সাত নম্বরে। পাঁচ ও ছয়ে যথাক্রমে দক্ষিণ আফ্রিকা ও পাকিস্তান। আফগানিস্তানের অবস্থান দশে।
টি-টোয়েন্টিতে যথারীতি শীর্ষে আছে ইংল্যান্ড। ভারতের সঙ্গে তাদের পয়েন্ট ব্যবধান পাঁচে বেড়ে গেছে। অস্ট্রেলিয়া তিন থেকে পাঁচে নেমেছে। নিউ জিল্যান্ড দুই ধাপ এগিয়ে তিনে। শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশ এক ধাপ করে এগিয়ে অষ্টম ও নবম স্থানে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ দুই ধাপ নেমে দশ নম্বরে। ওয়ানডের মতো টি-টোয়েন্টিতেও আগের অবস্থানে আফগানিস্তান, পাকিস্তান ও দক্ষিণ আফ্রিকা। চার নম্বরে পাকিস্তান, দক্ষিণ আফ্রিকা ষষ্ঠ ও তাদের পরে সপ্তম স্থানে আফগানরা।

মে ০৪
০৩:২৬ ২০২১

আরও খবর