Daily Sunshine

বাঘায় গাছে বেঁধে যুবককে নির্যাতনের ঘটনায় দু’জন আটক

Share

স্টাফ রিপোর্টার, বাঘা: রাজশাহীর বাঘায় জল মটার চুরির অভিযোগে তিন চোরকে গাছে বেধে নির্যাতন করার অভিযোগ দায়ের করা মামলায় চোরসহ বাদীর ভাইকে আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাতে মোহদীপুর এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।
বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নজরুল ইসলাম জানান, গত ২৪ এপ্রিল উপজেলার জোতনশী এলাকায় চোর সন্দেহে তিনজনকে গাছে বেধে নির্যাতন করার ঘটনা ঘটে। বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশ হলে আমরা উভয় পক্ষকে থানায় ডেকে মামলা নেই। মামলায় বৃহস্পতিবার রাতে বাদী আইযুব আলীর ভাই মোখলেসুর রহমান এবং তিন চোরের মধ্যে শহিদুল ইসলামকে আটক করি। পরে জিজ্ঞাসাবাদে শহিদুল ইসলাম চুরির সত্যতা স্বীকার করে। অপরদিকে আইন হাতে তুলে গাছে বেধে চোর পেটানোর অভিযোগে মটার মালিকের ভাই মোখলেছুর কেউ জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।
উপজেলার মনিগ্রাম ইউনিয়নের মহদিপুর গ্রামের আজিজুল হকের ছেলে আযুব আলীর বাড়ির আঙ্গিনায় জল মটার বসানো ছিল। মটারটি চুরির অভিযোগে বারশতদিয়াড় গ্রামের টুলু হোসেনের ছেলে দুলু হোসেন (৩০), হেলালপুর গ্রামের সারাত আলীর ছেলে মাইদুল ইসলাম (৪০) ও মহদিপুর গ্রামের জান মোহাম্মদের ছেলে সাইদুল ইসলামকে (৪৫) ধরে এনে গাছের সাথে বেধে নির্যাতন করা হয়।

মে ০১
০৫:৪৩ ২০২১

আরও খবর