Daily Sunshine

পবায় পার্টনারের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ

Share

স্টাফ রিপোর্টার: পার্টনারের অসুস্থ্যতার সুযোগে ৫০ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে অপর পার্টনারের বিরুদ্ধে। এ ব্যাপারে আরএমপি পবা থানায় অভিযোগ হয়েছে।
অভিযোগ থেকে জানা যায়, পবা থানার পারিলার বজরাপুর গ্রামের মৃত আব্দুল্লাহ প্রামানিকের ছেলে আয়নাল হক ও একই গ্রামের উমেদ আলীর ছেলে হাবিবুর রহমান হাবিবের সাথে পার্টনারশীপে ১০ বছরের চুক্তিতে মাছ চাষ শুরু করেন। এই মাছ চাষে আয়নাল হক ৫০ লাখ টাকা বিনিয়োগ করেন। দুই বছর আগে হঠাৎ আয়নাল হক অসুস্থ্য হয়ে পড়লে চিকিৎসার জন্য স্বপরিবারে ভারত যান। তখন আয়নাল হক ব্যবসায়িক অংশের সকল দায়দায়িত্ব হাবিবুর রহমান হাবিবকে অর্পণ করেন। এরপর আয়নাল হকের অনুপস্থিতিতে তার অংশ হাবিবুর রহমান কৌশলে নিজের দখলে নিয়ে নেন।
এ অবস্থায় আয়নাল হক ভারত থেকে ফিরে তার অংশ ফিরে পেতে চাইলে হাবিবুর রহমান আর তা ফেরত দেয় নাই এবং অংশের সকল হিসেব দিতেও অস্বীকার করে। পাশাপাশি হাবিবুর রহমান আয়নাল হককে বলেন বেশী বাড়াবাড়ি করলে অসুবিধা আছে। এতে আয়নাল হক অংশের টাকা ফেরত পেতে ও নিরাপত্তার জন্য হাবিবুরের বিরুদ্ধে পবা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।
এদিকে আয়নাল হকের সাথে হাবিবুর রহমান হাবিবের অংশিদারিত্বে মাছ চাষের ব্যবসা ছিল নিশ্চিত করেছেন হাট পারিলা গ্রামের মৃত শফি মাষ্টারের ছেলে হক সাহেব, চক পারিলা গ্রামের ইউনুছ আলীর ছেলে রেজাউল ইসলাম ও কাঁঠালপাড়া গ্রামের মৃত ভরশ মন্ডলের ছেলে আব্দুস সালাম।
এ ব্যাপারে হাবিবুর রহমান হাবিব জানান, আয়নাল হকের সাথে আমার অংশিদারিত্বে মাছ চাষের ব্যবসা ছিল। আয়নালের অংশ অনেক আগেই স্থানীয়ভাবে বসে বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে। তবে তার কাছে ডিডের যে স্ট্যাম্প ছিল সে তা ফেরৎ দেয় নাই। স্ট্যাম্প দিব দিচ্ছি করে কালক্ষেপন করে। এখন ওই ডিডকে কাজে লাগানোর চেষ্টা করছে যা সম্পূর্ণ অমানবিক ও উদ্দেশ্য প্রনোদিত।

মে ০১
০৫:৪০ ২০২১

আরও খবর