Daily Sunshine

বড়াইগ্রামে যুবকের কান কেটে নিয়েছে প্রতিপক্ষ

Share

বড়াইগ্রাম প্রতিনিধি: নাটোরের বড়াইগ্রামে মতিউর রহমান (৩২) নামের এক যুবকের কান কেটে দিয়েছে প্রতিপক্ষের লোকজন কুপিয়ে কান কেটে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। বুধবার বিকেলে উপজেলার বড়াইগ্রাম মধ্যেপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আতহ অবস্থায় মতিউরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। মতিউরের স্ত্রী পেয়ারা বেগম বাদী হয়ে শুক্রবার থানায় মামলা দায়ের করেছে।
এজাহার সুত্রে জানা যায়, মতিউরের বাড়ির পাশে একটি মসজিদ আছে। মসজিদে যাতায়াতের জন্য রয়েছে একটি রাস্তা। রাস্তাটির পাশে হাতেম খাঁ’র ওয়ারিশদের জমি ভোগ দখল করে একই গ্রামে আসমত আলী পুত্র সুজন (৩৫)।
সুজন পুকুর সংস্কারের নামে রাস্তা কেটে জোরপুর্বক মতিউরের পুুকুর ভোগ দখল করেছেন। মতিউর চাকুরি সুত্রে বাইরে থাকায় এ বিষয়ে কোন পদক্ষেপ নেয়া হয়নি। সম্প্রতি বাড়িতে এসে তিনি পৌরসভায় রাস্তা পরিমাপের জন্য আবেদন করেন।
কিন্তু এ আবেদনের পরই ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে সুজন। বুধবার সকালে ঝড়ে পড়ে যাওয়া একটি বাঁশ কাটতে গেলে সুজন মতিউরকে হাসুয়া দিয়ে কোপ দিয়ে কান কেটে দেয়। তাকে উদ্ধার করতে এগিয়ে আসলে মতিউরের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী ও বিধবা ভাবিকে পিটিয়ে জখম করে সুজনসহ আরো কয়েকজন।
সুজন বলেন, আমার নিজের জমিতে মাটি মাটি কাটা নিয়ে তিনি অভিযোগ করেন। অথচ সরকারি রাস্তায় বাঁশঝাড়ে বাঁশ কাটতে যান। নিষেধ করায় আমার মাকে লাঞ্চিত করা হয়েছে। এগিয়ে গেলে আমাকে মারতে আসে। আমাকে তাড়াতে গিয়ে পড়ে তার কান কেটে যায়।
বড়াইগ্রাম থানার পরিদর্শক আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, এ বিষয়ে মামলা হয়েছে। আসামি গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

এপ্রিল ১৭
০৩:৩৪ ২০২১

আরও খবর