Daily Sunshine

রমজানের প্রথম জুমায় মহামারি থেকে মুক্তির প্রার্থনা

Share

সানশাইন ডেস্ক: করোনা ভাইরাস মহামারি থেকে মুক্তির প্রার্থনায় মহান আল্লাহ তায়ালার সাহায্য কামনা করে মাহে রমজানের প্রথম জুমার নামাজ আদায় করেছে ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা। মাহে রমজানের হক আদায় করে রোজা রাখার মাধ্যমে গুনাহমুক্ত জীবনযাপন করার আহ্বান জানিয়েছেন জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে ইমাম মাওলানা মহিউদ্দিন কাসেমি।
শুক্রবার পবিত্র রমজানের প্রথম জুমা পূর্ব খুতবায় সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে নামাজ আদায়ের পরামর্শ দিয়ে এ আহ্বান জানান তিনি। এসময় পবিত্র হাদিসের উদ্ধৃতি দিয়ে মাওলানা কাসেমি বলেন, ‘আমাদের সিয়াম সাধনা যেন আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য হয়। ইমানের সঙ্গে যে ব্যক্তি সওয়াবের আশায় আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য মাহে রমজানে রোজা রাখবেন আল্লাহ সেই ব্যক্তির বিগত জীবনের সব গুনাহ ক্ষমা করে দেবেন।’
তিনি বলেন, ‘মাহে রমজানে হক আদায় করে আমাদের রোজা রাখতে হবে। রোজার হক হচ্ছে গুনাহমুক্ত জীবনযাপন করা। কিন্তু রোজা রাখছেন গুনাহও করছেন, সুদও খাচ্ছেন, এই রোজা কোনও কাজে আসবে না। পরকালে এই রোজা ঢাল হবে না, বরং তা জাহান্নামে নিয়ে যাবে।’
মাওলানা কাসেমি বলেন, ‘আল্লাহর রাসুল বলেছেন, রোজা হচ্ছে ঢালস্বরূপ। এই রোজা পরকালে বান্দাকে জাহান্নামের আগুন থেকে মুক্তি দেয়। একমাত্র রোজার প্রতিদান আল্লাহপাক স্বয়ং নিজ হাতে দেবেন। তাই রোজা রেখে মিথ্যে পরিহার করতে হবে, গুনাহমুক্ত জীবনযাপন করতে হবে।’
করোনা মহামারি থেকে মুক্তি পেতে মুসল্লিদের তওবা করার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘এক বছরের বেশি সময় ধরে করোনা মহামারি সারা বিশ্বকে বিপর্যস্ত করে ফেলেছে। কখন এ মহামারি থেকে মুক্তি পাবে কেউ জানে না। বিপদমুক্ত হতে হলে খাস নিয়তে আমাদের তওবা করতে হবে। আর রোজা রেখে তওবা করতে পারলে আল্লাহ আমাদের তওবা নিশ্চয়ই কবুল করবেন। আর তখনই বিপদ থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে।’
এসময় মাওলানা কাসেমি আরও বলেন, ‘মহামারি থেকে বাঁচতে সরকারের দেয়া স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। আজ রমজানের প্রথম জুমায় মুসল্লির ঢল নামার কথা। কিন্তু অনেকেই মসজিদে আসতে পারছেন না। অনেকে অসুস্থ, অনেকে মারা গেছেন।’

এপ্রিল ১৭
০৩:৩১ ২০২১

আরও খবর