Daily Sunshine

রাজশাহীর থানায় থানায় কঠোর নিরাপত্তা

Share

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহী মহানগরীর ১২টি থানাসহ জেলার মোট ২০টি থানায় কঠোর নিরাপত্তা জারি করা হয়েছে। এর মধ্যে নগরীর ১২টি থানার প্রবেশদ্বারে অতিরিক্ত নিরাপত্তা হিসেবে এলএমজি (লাইট মেশিনগান) পোস্ট নির্মাণ করা হয়েছে। সোমবার দুপুরের পর থেকে থানাগুলোতে এধরণের অতিরিক্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়। তবে থানাগুলোতে অতিরিক্ত নিরাপত্তা জারি করা হলেও জনগণের সেবার বিঘ্ন ঘটবে না। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা ও মাহানগর পুলিশের মুখপাত্র।
সোমবার দুপুরের পর সরেজমিনে আরএমপি’র বোয়ালিয়া ও চন্দ্রিমা থানাসহ নগরীর থানাগুলো পরিদর্শন করে দেখা যায়, থানাগুলোর সামনে বালুর বস্তা দিয়ে অস্থায়ি বাঙ্কার নির্মাণ করা হয়েছে। তার মাঝে পুলিশের একজন সদস্য সুসজ্জিত অবস্থায় একটি এলএমজি অস্ত্র নিয়ে বাইরের দিকে তাক করে দাড়িয়ে রয়েছেন। থানাগুলোতে প্রবেশে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে। পরিচয় ও থানায় আসার কারণ নিশ্চিত হবার পর থানায় প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছে।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে পুলিশের একটি সোর্স জানিয়েছেন, সম্প্রতি দেশের একটি থানায় দুস্কৃতিকারীরা হামলা চালায়। এটি দেশের সার্বভৌমত্বের উপর হামলার শামীল। সাধারণ মানুষ এতে মনে করতে পারে পুলিশ যদি নিজেদের নিরাপত্তাই নিশ্চিত করতে না পারে, তবে দেশের সাধারণ জনগণের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পারবে কী ভাবে?
রাজশাহী জেলা পুলিশের মুখপাত্র ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইফতে খায়ের আলম জানান, রাজশাহী জেলার ৮টি থানায় সেন্ট্রি পোস্টগুলোকে সতর্ক করা হয়েছে। প্রতিটি থানায় ব্রিফ করা হয়েছে, সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে পুলিশের সকল সদস্যদের। তবে জেলা পুলিশের ৯টি থানায় এলএমজি পোস্ট স্থাপন করা হয়নি বলে নিশ্চিত করেছেন জেলা পুলিশের মুখপাত্র।
এদিকে রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) মুখপাত্র ও অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার গোলাম রুহুল কুদ্দস জানান, দেশের সার্বির পরিস্থিতি বিবেচনায় ও নিরাপত্তার স্বার্থে আরএমপির ১২টি থানায় এলএমজি পোস্ট নির্মাণ করা হয়েছে। তবে এতে করে থানাগুলোতে সেবা প্রার্থীদের কোনো বিঘ্ন ঘটবে না। থানাগুলো সাধারণ নিয়মেই পরিচালিত হবে।

এপ্রিল ১৩
০৬:০৪ ২০২১

আরও খবর