Daily Sunshine

সিংড়ায় ছুরিকাঘাতে ব্যবসায়ি খুন, অগ্নিকান্ডে ছাই ৪ বাড়ি

Share

সিংড়া প্রতিনিধি: নাটোরের সিংড়ায় তরমুজ ক্রেতার ছুরিকাঘাতে ব্যবসায়ি খুন। অপরদিকে পৃথক দুটি অগ্নিকান্ডে ৪টি পরিবার সর্বস্বান্ত হয়ে গেছেন। ক্রেতার ছুরিকাঘাতে ব্যবসায়ি খুনের ঘটনায় অভিযুক্ত বাচ্চু ঘটককে আটক করেছে সিংড়া পুলিশ।
শুক্রবার দুপুরে উপজেলার সাতপুকুরিয়া বাজারে তরমুজ বিক্রি করা নিয়ে তর্কবিতর্কে ক্রেতার ছুরিকাঘাতে জিল্লুর প্রামানিক (৪৫) নামে এক তরমুজ ব্যবসায়ী খুন হয়েছেন। নিহত জিল্লুর প্রামানিক ইন্দ্রাসন গ্রামের গেদা প্রামানিকের ছেলে।
স্থানীয়রা জানান, দুপুরে সাতপুকুরিয়া বাজারে তরমুজ বিক্রি করছিল জিল্লুর। এসময় তরমুজ কিনতে দোকানে যায় ক্রেতা বাচ্চু ঘটক। তরমুজের দাম নিয়ে দোকানী জিল্লুরের সাথে বাচ্চু ঘটকের কথা কাটাকাটি শুরু হয়। একপর্যায়ে বাচ্চু ঘটক জিল্লুরের দোকানে থাকা তরমুজ কাটার ধারালো ছুরি দিয়ে জিল্লুরের শরীরে আঘাত করে। স্থানীয়রা আহত অবস্থায় জিল্লুরকে উদ্ধার করে সিংড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে এলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। অভিযান চালিয়ে বাচ্চু ঘটককে আটক করে পুলিশ।
সিংড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নূর-এ-আলম সিদ্দিকী জানান, ছুরিকাঘাতে নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করে তিনি বলেন, অভিযুক্তকে আটক করা হয়েছে। অপরদিকে পৃথক দুটি অগ্নিকান্ডে উপজেলার কলম নজরপুর গ্রামের তিনটি পরিবার এবং সিংড়া পৌর এলাকার গোডাউন পাড়া মহল্লায় অগ্নিকান্ডে সর্বস্বান্ত হয়েছেন।
বৃহস্পতিবার বিকেলে কলম নজরপুর গ্রামে বৈদ্যতিক শর্ট শার্কিটের আগুনে আকতার, আমির ও তোফায়েলের তিনটি বাড়ি পুড়ে যায়। এতে প্রায় ৫ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়। একইদিন বৃহস্পতিবার গভীর রাতে আরেকটি বৈদ্যতিক শর্ট সার্কিটের আগুনে রহিদুল ইসলামের মুদি দোকানসহ ৪টি ঘর পুড়ে যায়। এতে ৪টি ছাগল, ৫০টি মুরগী, ৫০ কবুতর, নগদ ৭ লক্ষ টাকা এবং রাজু আহমেদ নামে ভাড়াটিয়ার নগদ আড়াই লক্ষ টাকাসহ ২০ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়।
আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের দেওয়া ১০ হাজার টাকা সহায়তা দেন সিংড়া পৌর মেয়র জান্নাতুল ফেরদৌস।

এপ্রিল ১০
০৬:৩৯ ২০২১

আরও খবর