Daily Sunshine

মান্দায় আত্মহত্যার প্ররোচণায় স্বামী-শাশুড়ির বিরুদ্ধে মামলা

Share

মান্দা প্রতিনিধি: নওগাঁর মান্দায় জেসমিন আক্তার (২৫) নামে এক গৃহবধূ বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন। এ ঘটনায় স্বামী ও শাশুড়ির বিরুদ্ধে প্ররোচণার মামলা দায়ের করা হয়েছে। জেসমিন আক্তারের বাবা সাইদুর রহমান বাদি হয়ে বৃহস্পতিবার রাতে মান্দা থানায় মামলাটি দায়ের করেন।
নিহত জেসমিন আক্তার মান্দা উপজেলার গনেশপুর ইউনিয়নের সূর্য নারায়নপুর গ্রামের আব্দুস সাত্তার মোল্লার স্ত্রী ও দুই সন্তানের জননী। তিনি নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার সফাপুর ইউনিয়নের প্রসাদপুর গ্রামের সাইদুর রহমানের মেয়ে।
স্থানীয়রা জানান, উপজেলার সূর্য নারায়নপুর গ্রামের তৈয়মুর মোল্লার ছেলে আব্দুস সাত্তার মোল্লার সঙ্গে প্রায় ৯ বছর আগে প্রসাদপুর গ্রামের সাইদুর রহমানের মেয়ে জেসমিন আক্তারের বিয়ে হয়। বিয়ের সময় জামাইকে টাকাসহ বিভিন্ন উপঢৌকণও দেওয়া হয়েছিল।
মামলার বাদি সাইদুর রহমান জানান, বিয়ের পর থেকে পারিবারিক ছোট-খাটো বিষয় ও নেশাগ্রস্থ অবস্থায় বাড়ি ফিরে মেয়েকে প্রায়ই নির্যাতন করে আসছিল জামাই আব্দুস সাত্তার। এনিয়ে এলাকায় একাধিকবার সালিশও হয়েছে। কিন্তু মেয়ের ওপর নির্যাতন বন্ধ হয়নি। শাশুড়ি সামেনা বেগমের সহায়তায় জামাই সাত্তার মেয়ের ওপর নির্যাতন করতেন বলে অভিযোগ করেন তিনি।
তিনি অভিযোগ করে বলেন, নির্যাতনের সময় জামাই সাত্তার ও তার মা সামেনা বেগম প্রায়ই আত্মহত্যার জন্য প্ররোচিত করতেন মেয়েকে। বৃহস্পতিবার বিকেলে পারিবারিক বিষয় নিয়ে আবারো মারপিট করা হলে মেয়ে জেসমিন বিষপান করে। অসুস্থ অবস্থায় মান্দা হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় জামাই সাত্তার মোল্লা ও তার মা সামেনা বেগমের বিরুদ্ধে মান্দা থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।
মান্দা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাহিনুর রহমান জানান, নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নওগাঁ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এপ্রিল ১০
০৬:৩৭ ২০২১

আরও খবর