Daily Sunshine

পেঁয়াজ কদমে মড়ক

Share

আসাদুজ্জামান মিঠু, তানোর: রাজশাহীর তানোর উপজেলার মুন্ডুমালা পৌর এলাকার গোরাঙ্গাপুর গ্রামের কৃষক সমশের আলী। চলতি রবিশস্য মৌসুমে তিনি অন্যের এক বিঘা জমি বর্গা নিয়ে তিনি পেঁয়াজের বীজ (কদম) উৎপাদন করতে রোপন করেছিলেন।
শুরু থেকেই ধার দেনা করে রোপন, কীটনাশক, সেচসহ প্রায় ২৬ হাজার টাকা খরচও করেছেন তিনি। ভাল ভাবে বেড়ে উঠেছিল তার গাছ। পেঁয়াজের কদমে ফুলও ছিল বেশ বড় বড়। ক্ষেতে সুন্দর কদম ফুল দেখে মনে অনেক স্বপ্ন ছিল,আর মাত্র এক মাস পরেই বীজ ঘরে উঠলে ধার দেনা মিটিয়ে হাতে কিছু টাকা পয়সা থাকবে।
কিন্ত শেষ সময় এসে হঠাৎ করে তার পেঁয়াজ কদমে মরক ধরে পুরো ক্ষেত ফল নষ্ট হয়ে গেছে। এতে করে তার স্বপ্ন ভাঙতে বসেছে।
একই গ্রামের লুৎফর রহমান, মানুম, তালেবও একরামুলসহ আরো ৮ থেকে ৯ জন কৃষক তারাও এবার এক বিঘা থেকে তিন বিঘা পর্যন্ত পেঁয়াজ কদম চাষ করেছিলেন। তাদের ক্ষেতেও নষ্ট হতে বসেছে। এখন শুধু ডাঠা থাকলেও ফুলগুলো পচে গেছে। কীটনাশকসহ নানান উপকরণ দিয়েও মড়ক রোধ করে পারেনি। খরচা-খরচ শেষ সময়ে এসে ফুল মরে যাওয়াই এখন তারা দিশেহারা হয়ে পড়েছে তারা।
রাজশাহী জেলার মাঠে মাঠে শত শত কৃষকের পেঁয়াজ কদম এবার বেশি ভাগ মড়কে নষ্ট হয়ে গেছে।
জেলার চাষীরা জানান, পেঁয়াজ কদমে মড়করোধে কীটনাশকসহ নানান পদ্ধতি তারা ব্যবহার করেছেন। তবুও রোধ করতে পারেনি। স্থানীয় কৃষি কর্মকর্তারা মড়করোধে কোন সুপরামর্শ দিতে পারেনি।
তবে, মাঠ পর্যায়ের স্থানীয় কৃষি কর্মকর্তারা পেঁয়াজ কদম মড়ক ধরার কারণ হিসাবে আবহাওয়াকে দায়ি করে বলেছে, চৈত্রের অতিরিক্ত তাপমাত্রা, রাতে কুয়াশা এছাড়াও মৌমাছি কম থাকাকেই মড়ক হয়েছে বলে দাবি করেন।
রাজশাহী জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রমতে, গত বছর জেলায় পেঁয়াজ বীজ উৎপাদনে চাষ হয়েছিল ২৭৫ হেক্টর। চলতি বছর আরো ৫০ হেক্টর বেড়ে উৎপাদন হচ্ছে ৩২৫ হেক্টর জমিতে। এর মধ্যে গোদাগাড়ী উপজেলাতেই চলতি মৌসুমে প্রায় ১০০ হেক্টর বেশি জমিতে পেঁয়াজের বীজ চাষ হয়েছে।
পানি খরচ কম ও উৎপাদিত বীজের বাজার মূল্য আকাশছোঁয়া থাকায় অনেক কৃষক অন্যসব ফসলের চেয়ে পেঁয়াজের বীজ চাষেই ঝুঁকছেন।
রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার জটেবটতলা গ্রামের একাধিক কৃষক জানান, অন্যসব বছরের চেয়ে এবার উপজেলায় বেশি জমিতে পেঁয়াজ কদম চাষ করেছে কৃষক। তারা ভাল ফলনের আশা করেছিলেন। পেঁয়াজের বীজ ঘরে তোলার আগেই মরক ধরে ক্ষেতের ৫০ থেকে ৬০ ভাগ পর্যন্ত নষ্ট হয়ে গেছে।
মুন্ডুমালা পৌর এলাকায় দায়িত্বপ্রাপ্ত উপ-সহকারী কৃষিকর্মকর্তা সমশের আলী বলেন, আবহাওয়ার বিরূপ আচরণ কারণে পেঁয়াজ কদমেক্ষতি বেশি হয়েছে। অতিরিক্ত তাপমাত্রা, রাতে কুয়াশা ও মৌমাছি না থাকায় ফুলে পরাগায়ন হয়নি। পেঁয়াজ কদমে এমন ক্ষতি শুধু তানোর উপজেলায় নয়, অন্য অন্য অঞ্চলেও একই অবস্থা হয়েছে বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে।
তানোর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সামিউল ইসলাম বলেন, পেঁয়াজ বীজের ফুলে মড়ক ধরে পচে গেছে বিষয়টি কোন কৃষক বা উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তারা তাকে জানাননি।

এপ্রিল ০৪
০৬:১৮ ২০২১

আরও খবর

Subcribe Youtube Channel

বিশেষ সংবাদ

ঈদের আগে ৫০ লাখ পরিবার পাচ্ছে আর্থিক সহায়তা

সানশাইন ডক্সে; করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ওয়েভে ক্ষতিগ্রস্ত ৫০ লাখ গরিব পরিবারকে আর্থিক সহায়তা দেওয়ার চিন্তা করছে সরকার। প্রত‌্যকে পরিবারকে ২৫০০ টাকা করে দেওয়া হবে। ঈদের আগে মোবাইলের মাধ্যমে সুবিধাভোগী পরিবারের হাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঈদ উপহার হিসেবে এ অর্থ পৌঁছে দেওয়া হবে বলে অর্থ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে। সূত্র জানায়, সম্প্রতি

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

টিকা কার্ড নিয়ে যাতায়াত করা যাবে

টিকা কার্ড নিয়ে যাতায়াত করা যাবে

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির অবনতির কারণে ১৪ এপ্রিল সকাল ৬টা থেকে ২১ এপ্রিল মধ্যরাত পর্যন্ত বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। তবে এ সময়ে টিকা কার্ড নিয়ে টিকা গ্রহণের জন্য যাতায়াত করা যাবে বলে জানানো হয়েছে। সোমবার (১২ এপ্রিল) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, অতি জরুরি প্রয়োজন

বিস্তারিত