Daily Sunshine

মাঝ চৈত্রেও কুয়াশা!

Share

স্টাফ রিপোর্টার: সময়টা এখন চৈত্র মাসের মাঝামাঝি। এমন সময়ে সকালের সূর্য আগুন ছড়ানোর কথা। কিন্তু না, প্রচণ্ড ঘন কুয়াশায় ঢেকে গেছে প্রকৃতি। বৃহস্পতিবার সকালে রাজশাহী মহানগরীর কুয়াশা ঢাকা প্রকৃতি দেখে বুঝা যায় না এখন চৈত্র মাস। পৌষ-মাঘ মাসের মতো ঘন কুয়াশা।
চৈত্র মাসে শুস্ক মৌসম এমনিতে ধুলাবালি। আবার ঠান্ডা গরমে মিলে জ্বর-সর্দি, হাঁচি-কাশি হয়। এমন দিনে কুয়াশাযুক্ত প্রকৃতি ঠাণ্ডাজনিত রোগের প্রকোপ আরো বাড়িয়ে দেয়।
খনার বচনের সঙ্গে আমরা কমবেশি পরিচিত। বাংলার প্রকৃতির রূপ নিয়ে তার অনেক বচন মানুষের মুখে মুখে ঘোরে। চৈত্রের কুয়াশা নিয়েও খনার জনপ্রিয় একটি বচন আছে। সেটি হলো, ‘ চৈত্রে কুয়াশা ভাদ্রে বান/ সেই বর্ষে মরক জান।’
এর অর্থ যদি চৈত্র মাসে কুয়াশা হয় আর ভাদ্রে যদি বন্যা হয় সে বছর মরক আসে। সম্প্রতি সময়ে চৈত্র যেন নতুন রূপ ধারণ করছে। বিজ্ঞানীরা বলছেন, আবহাওয়ার এই পরিবর্তনে ফসলের রোগবালাই বাড়ছে।
চৈত্রের এমন পরিবর্তিত আবহাওয়ার কারণে এখনই ধানে রোগবালাই দেখা দিচ্ছে। এমন আবহাওয়া টমেটো ও আমের জন্যও ক্ষতির কারণ।
রাজশাহীর পবা উপজেলার বাগধানী এলাকার চাষী আফজাল হোসেন জানান, গত বছর এমন আবহাওয়ার কারণে ধানে ব্লাস্ট রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়। এই রোগ ধানের পাতায়, কাণ্ডে, শিষের গোড়ায়ও দেখা যায়।
নওগাঁর পোরশা উপজেলার আম বাগানের মালিক আব্দুল কাইয়ুম জানান. এ রকম আবহাওয়ার কারণে আমের রোগবালাই বাড়ে।

এপ্রিল ০২
০৫:২৪ ২০২১

আরও খবর

Subcribe Youtube Channel

বিশেষ সংবাদ

কী বন্ধ, কী খোলা জেনে নিন

কী বন্ধ, কী খোলা জেনে নিন

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে ১৪ এপ্রিল থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত দেশের সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকছে, বন্ধ থাকছে যানবাহনও। বিধি-নিষেধ থাকছে সার্বিক কার্যাবলী ও চলাচলেও। সোমবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। বন্ধ থাকছে: সকল সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত ও বেসরকারি অফিস/আর্থিক প্রতিষ্ঠান। সকল প্রকার পরিবহন (সড়ক, নৌ, রেল, অভ্যন্তরীণ

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

টিকা কার্ড নিয়ে যাতায়াত করা যাবে

টিকা কার্ড নিয়ে যাতায়াত করা যাবে

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির অবনতির কারণে ১৪ এপ্রিল সকাল ৬টা থেকে ২১ এপ্রিল মধ্যরাত পর্যন্ত বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। তবে এ সময়ে টিকা কার্ড নিয়ে টিকা গ্রহণের জন্য যাতায়াত করা যাবে বলে জানানো হয়েছে। সোমবার (১২ এপ্রিল) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, অতি জরুরি প্রয়োজন

বিস্তারিত