Daily Sunshine

বাগমারায় উন্নয়ন মেলায় পরিষোধ করা যাচ্ছে ভূমি কর

Share

স্টাফ রিপোর্টার, বাগমারা: স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণ উপলক্ষে শনিবার বাগমারা উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ২৭ ও ২৮ মার্চ দুই দিনব্যাপি উপজেলা শহীদ মিনার চত্বরে এক উন্নয়ন মেলার আয়োজন করা হয়েছে। এ মেলায় ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধসহ নানান সুবিধা জনগণ এখন হাতের নাগালেই পাচ্ছেন।
এ উপলক্ষে শনিবার সকালে শহীদ মিনার চত্বর থেকে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি ভবানীগঞ্জ বাজার প্রদক্ষিণ শেষে শহীদ মিনারে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার শরিফ আহম্মেদেরে সভাপতিত্বে সভায় মুঠোফোনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বাগমারার সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক।
অনুষ্ঠানে সম্মানীত অতিথি ছিলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান অনীল কুমার সরকার, সহকারি কমিশনায় (ভুমি) মাহমুদুল হাসান, থানার অফিসার ইনচার্জ মোস্তাক আহম্মেদ, টিএইচও ডা. গোলাম রাব্বানী, উপজেলা প্রকৌশলী সানোয়ার হোসেন, কৃষি কর্মকর্তা রাজিবুর রহমান, পিআইও মাসুদুর রহমান।
বিভিন্ন সরকারি দপ্তরসহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান উন্নয়ন মেলায় স্টল স্থাপন করে জনসাধারনকে সেবা প্রদান করে। সহকারি কমিশনার ভূমির স্টলের মাধ্যমে প্রায় অর্ধশতাধিক গ্রাহক ভূমি উন্নয়ন কর প্রদানসহ ভূমি সংক্রান্ত বিভিন্ন সেবা গ্রহন করেন।

মার্চ ২৯
০৬:০৯ ২০২১

আরও খবর

Subcribe Youtube Channel

বিশেষ সংবাদ

কী বন্ধ, কী খোলা জেনে নিন

কী বন্ধ, কী খোলা জেনে নিন

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে ১৪ এপ্রিল থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত দেশের সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকছে, বন্ধ থাকছে যানবাহনও। বিধি-নিষেধ থাকছে সার্বিক কার্যাবলী ও চলাচলেও। সোমবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। বন্ধ থাকছে: সকল সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত ও বেসরকারি অফিস/আর্থিক প্রতিষ্ঠান। সকল প্রকার পরিবহন (সড়ক, নৌ, রেল, অভ্যন্তরীণ

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

টিকা কার্ড নিয়ে যাতায়াত করা যাবে

টিকা কার্ড নিয়ে যাতায়াত করা যাবে

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির অবনতির কারণে ১৪ এপ্রিল সকাল ৬টা থেকে ২১ এপ্রিল মধ্যরাত পর্যন্ত বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। তবে এ সময়ে টিকা কার্ড নিয়ে টিকা গ্রহণের জন্য যাতায়াত করা যাবে বলে জানানো হয়েছে। সোমবার (১২ এপ্রিল) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, অতি জরুরি প্রয়োজন

বিস্তারিত