Daily Sunshine

বীরাঙ্গনার স্বীকৃতি পাননি হাজেরা, তিনি কাজের ঝি

Share

অহিদুল হক, বড়াইগ্রাম: নাটোরের বড়াইগ্রামে স্বাধীনতার ৫০ বছরেও বীরাঙ্গনা তালিকাভূক্ত হতে পারেননি একাত্তুরের মহান মুক্তিযুদ্ধে সম্ভ্রমহারা হাজেরা বেগম। মুক্তিযুদ্ধকালে উপজেলার নগর ইউনিয়নের দিঘলকান্দি গ্রামে পাক সেনাদের দ্বারা সম্ভ্রমহানীর শিকার হন তিনি। হানাদারদের কাছে সম্ভ্রম হারানোর দায়ে হারিয়েছেন স্বামীর সংসার। বর্তমানে অন্যের বাড়িতে ঝিয়ের কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করেন, আর শীত-গরম-ঝড় বৃষ্টিতে অন্যের বাড়ির বারান্দায় রাত কাটে তাঁর।
উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা শামসুল হক জানান, ১৯৭১ সালের ১৫ নভেম্বর ছিল ভয়াল ঢুলিয়া যুদ্ধ দিবস। ওইদিন ঢুলিয়া গ্রামে এক ভয়াবহ সম্মুখ যুদ্ধ সংঘঠিত হয়। এ সময় পাক সেনাদের গুলিতে বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহাদৎ হোসেন শহীদ হন। পরে রাজাকারদের সহযোগিতায় পাকসেনারা সেখানে অন্তত ২০টি বাড়িতে লুটপাট শেষে একটি বাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়। এরপর উল্লাস করতে করতে হানাদাররা ফিরে যাওয়ার পথে দিঘলকান্দি গ্রামের আরশেদ আলীর নব বিবাহিতা স্ত্রী হাজেরা বেগমকে দেখতে পায়। পরে গাড়ি থেকে নেমে তারা কয়েকজন হাজেরাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে সংজ্ঞাহীন অবস্থায় ফেলে রেখে যায়।
এরপর প্রতিবেশীরা তাঁকে উদ্ধার করে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন। আরশেদ আলী বাড়ি ফিরে লোকমুখে এ ঘটনা শোনার পর তাঁকে তালাক দিলে তিনি বাবার বাড়ি চলে যান। পরে তিনি দ্বিতীয়বার বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হলেও কিছুদিন পর পুরাতন সেই অপবাদ দিয়ে হাজেরাকে পুনরায় তালাক দেয়া হয়। ইতমধ্যে তার বাবাও মারা যান। তার নিজের কোন ঘরবাড়িও নাই। সেই থেকে হাজেরার জীবন চলে পরের বাড়িতে ঝি এর কাজ করে। রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি পেতে তিনি কয়েকবার বীরাঙ্গনা তালিকায় নাম অন্তর্ভূক্তির চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছেন।
হাজেরা বেগম বলেন, নির্যাতনের দুঃসহ স্মৃতি নিয়ে আমি নীরবে কাটিয়ে দিলাম আমার জীবন ও যৌবন। অন্যের বাড়ীতে ‘ঝি’ হিসেবে, কখনো ধান-চাতালে শ্রমিক হিসেবে কাজ করে অর্ধাহারে-অনাহারে দিন কাটাচ্ছি। লজ্জায় ঘৃণায় কয়েকবার আত্মহত্যা করতে চেয়েও পারিনি। জীবনের শেষ বেলাতেও যদি বীরাঙ্গনা হিসাবে স্বীকৃতি পেতাম তাহলে অপবাদ ঘুচিয়ে একটু শান্তিতে মরতে পারতাম।
প্রতিবেশী অধ্যাপক দুলাল উদ্দীন আহমেদ জানান, হাজেরার জাতীয় পরিচয় পত্রে জন্ম তারিখ ভুল বশত ৯ মার্চ ১৯৫৯ লেখা হয়েছে। প্রকৃতপক্ষে তা ৯ মার্চ ১৯৫৩ হবে। পরিচয় পত্রের এ ভুলে বয়সের মারপ্যাঁচে হাজেরা বারবার ভাগ্য বিড়ম্বনার শীকার হচ্ছেন। আমরা তার প্রকৃত বয়স ও সঠিক তদন্ত সাপেক্ষে বীরাঙ্গনা স্বীকৃতি প্রদানের দাবী জানাই।
মুক্তিযোদ্ধা মেহের আলী বলেন, ওইদিন পাক বাহিনী অনেকটা প্রকাশ্যেই হাজেরা বেগমের সম্ভ্রমহানী করে। আমরা তাঁকে রাষ্ট্রীয়ভাবে স্বীকৃতি দেয়ার দাবী জানাই।

মার্চ ২৬
০৬:১৪ ২০২১

আরও খবর

Subcribe Youtube Channel

বিশেষ সংবাদ

ঈদের আগে ৫০ লাখ পরিবার পাচ্ছে আর্থিক সহায়তা

সানশাইন ডক্সে; করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ওয়েভে ক্ষতিগ্রস্ত ৫০ লাখ গরিব পরিবারকে আর্থিক সহায়তা দেওয়ার চিন্তা করছে সরকার। প্রত‌্যকে পরিবারকে ২৫০০ টাকা করে দেওয়া হবে। ঈদের আগে মোবাইলের মাধ্যমে সুবিধাভোগী পরিবারের হাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঈদ উপহার হিসেবে এ অর্থ পৌঁছে দেওয়া হবে বলে অর্থ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে। সূত্র জানায়, সম্প্রতি

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

টিকা কার্ড নিয়ে যাতায়াত করা যাবে

টিকা কার্ড নিয়ে যাতায়াত করা যাবে

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির অবনতির কারণে ১৪ এপ্রিল সকাল ৬টা থেকে ২১ এপ্রিল মধ্যরাত পর্যন্ত বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। তবে এ সময়ে টিকা কার্ড নিয়ে টিকা গ্রহণের জন্য যাতায়াত করা যাবে বলে জানানো হয়েছে। সোমবার (১২ এপ্রিল) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, অতি জরুরি প্রয়োজন

বিস্তারিত