Daily Sunshine

শিশুর ক্রিকেট বিস্ময়

Share

মতলুব হোসেন, জয়পুরহাট: বয়স মাত্র ৯ বছর। এ বয়সে তার হাতে থাকার কথা সাধারণ খেলনা। কিন্তু এসব বাদ দিয়ে তার কাছে যেন সব ধ্যান-জ্ঞান এখন ক্রিকেট। এ বয়সেই রপ্ত করেছেন ব্যাটিং-বোলিং এর সব কৌশল। চোখ ধাধানো তার পারফমেন্সে অবাক মানুষ। বলছি জয়পুরহাটের বিস্ময় বালক সম্ভাবনাময় ক্ষুদে ক্রিকেটার আসওয়াদ হাসান চমকের কথা।
সম্প্রতি বিকেএসপি বিভাগীয় মেধা অন্বেষন প্রতিযোগিতায় প্রায় ৩ হাজার প্রতিযোগির মধ্যে হয়েছেন প্রথম। তার স্বপ্ন ভবিষ্যতে সাকিব-তামিম-মুস্তাফিজের মত জাতীয় দলে খেলা। আর এমন একটি প্রতিভা যেন অকালে হারিয়ে না যায় সেজন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের পদক্ষেপ চান তার পরিবারসহ জয়পুরহাটবাসী। আসওয়াদ হাসান চমক জয়পুরহাট সদর উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের সাহাপুর সরদার পাড়ার শাকিউল হাসানের ছেলে। সে সাহাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৪র্থ শ্রেণির ছাত্র।
ক্রিকেটার চমকের বাড়িতে গিয়ে তার পরিবারের সাথে কথা বলে জানা গেছে, মাত্র ৪ বছর বয়স থেকেই ক্রিকেটের প্রতি এমন টান দেখে চমকের বাবা তাকে বিসিবির জয়পুরহাট জেলা কোচ মনোয়ার হোসেন নিপুর কাছে ভর্তি করায় প্রশিক্ষণের জন্য। এরপরে যেন হয়ে ওঠে সে ক্রিকেটের বিষ্ময়। বা হাতি এ বালককে দেখে মনে হবে যেন ব্যাট করছে সাকিব আল হাসান। আবার বাম হাতে ফাস্ট বল করেন মুস্তাফিজের মত।
তার অলরাউন্ডিং এমন পারফমেন্সে হয়ে উঠেছেন কোচসহ সবার প্রিয় খেলোয়ার। এ বয়সে সে খেলছে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে। চমকের বাবা শাকিউল হাসান বলেন, আমার ছেলের মাত্র ৪ বছর বয়স থেকে ক্রিকেটের এমন প্রতিভা দেখে কোচের কাছে ভর্তি করাই। এরপর সে বিকেএসপির জেলা মেধা অন্বেষন প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়। শুধু বয়সের কারণে তাকে নিতে পারেনি। দ্বিতীয়বার আবারও সে প্রথম হয়। এরপরে ২০২০ সালে বগুড়া চান্দু স্টেডিয়ামে বিভাগীয় পর্যায়ে ৩ হাজার বাচ্চাদের মধ্যেও প্রথম হয়। শুধুমাত্র বয়সের সমস্যার কারণে তাকে নিতে পারছে না।
তিনি বলেন, আমি গরীব কৃষক মানুষ। আমার অভাবের কারণে আমার ছেলের প্রতিভা যেন হারিয়ে না যায়, এজন্য প্রধানমন্ত্রীসহ বিসিবির কর্মকর্তাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। আর আমার স্বপ্ন আমার এই ছোট ছেলে একদিন জাতীয় ক্রিকেট দলে খেলবে। এলাকাবাসী সাহাবুল আলম, জাহিদ হাসান, সাওন, ফারদিন সাদিক, ইসরাত জাহানসহ আরও অনেকে বলেন, চমকের খেলার ধরন দেখে আমরা অবাক হয়ে যাই।
এত কম বয়সে সে বড় বড় খেলোয়ারদের মতো ব্যাটিং-বোলিং ও ফিল্ডিং করে। এমন সম্ভাবনাময় প্রতিভা যেন অকালে হারিয়ে না যায় সেজন্য সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। ক্ষুদে ক্রিকেটার চমক বলেন, ৩ বছর বয়সের পর থেকেই আমার ক্রিকেট খুব ভাল লাগত। টিভিতে সাকিব, তামিম, মুস্তাফিজদের খেলা দেখে ভাবতাম তাদের মত ক্রিকেটার হব। দেশের বিভিন্ন জায়গায় আমি খেলেছি। জাতীয় দলের অনেক খেলোয়ার আমার খেলা দেখেছে।
তারা আমাকে বলেছে, আমি এভাবে খেলতে থাকলে আমিও একদিন তাদের মতো জাতীয় দলে সুযোগ পাবো। আর আমারও স্বপ্ন আমি একদিন সাকিব, তামিম, মুস্তাফিজের মত জাতীয় দলে খেলব এবং দেশের সুনাম অর্জন করব।
বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের জয়পুরহাট জেলা কোচ মনোয়ার হোসেন নিপু বলেন, চমক আমাদের একাডেমীর অত্যন্ত প্রতিভাসম্পন্ন একজন ক্ষুদে খেলোয়ার। সে কয়েক বছর ধরে আমার কাছে কাউন্সিলিং করছে। গত বছর বিকেএসপির একটা প্রোগ্রামে আমরা তাকে নিয়ে গিয়েছিলাম। সেখানে বিকেএসপির চীফ কোচ তার ব্যাটিং-বোলিং স্টাইল দেখে অবাক হয়ে বলেছিলেন, ‘এ ছেলেটা অনেক দুর যাবে’। আমিও তাকে নিয়ে অনেক আশাবাদি। যদি তাকে ধরে রাখতে পারি ও ঠিকমত কাউন্সিলিং করাতে পারি তাহলে সে একদিন অনেক দুর যাবে এবং অনেক বড় খেলোয়ার হবে।
জেলা ক্রীড়া সংস্থার অতিরিক্ত সাধারণ সম্পাদক আহসান কবির এপ্লব বলেন, আমাদের জয়পুরহাট ছোট একটি জেলা হওয়ায় পৃষ্ঠপোষকতা না পাওয়ায় অনেক প্রতিভা অকালে ঝরে যায়। তবে চমকেরও অনেক প্রতিভা আমি দেখেছি। সে কাউন্সিলিং ও পৃষ্ঠপোষকতা পেলে অনেক দুর এগিয়ে যাবে বলে আশা করি।

মার্চ ১৭
০৬:২০ ২০২১

আরও খবর

Subcribe Youtube Channel

বিশেষ সংবাদ

কী বন্ধ, কী খোলা জেনে নিন

কী বন্ধ, কী খোলা জেনে নিন

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে ১৪ এপ্রিল থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত দেশের সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকছে, বন্ধ থাকছে যানবাহনও। বিধি-নিষেধ থাকছে সার্বিক কার্যাবলী ও চলাচলেও। সোমবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। বন্ধ থাকছে: সকল সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত ও বেসরকারি অফিস/আর্থিক প্রতিষ্ঠান। সকল প্রকার পরিবহন (সড়ক, নৌ, রেল, অভ্যন্তরীণ

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

টিকা কার্ড নিয়ে যাতায়াত করা যাবে

টিকা কার্ড নিয়ে যাতায়াত করা যাবে

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির অবনতির কারণে ১৪ এপ্রিল সকাল ৬টা থেকে ২১ এপ্রিল মধ্যরাত পর্যন্ত বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। তবে এ সময়ে টিকা কার্ড নিয়ে টিকা গ্রহণের জন্য যাতায়াত করা যাবে বলে জানানো হয়েছে। সোমবার (১২ এপ্রিল) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, অতি জরুরি প্রয়োজন

বিস্তারিত