Daily Sunshine

সাবেক জেলা রেজিস্ট্রারের বিরুদ্ধে ভুয়া নিকাহ রেজিস্ট্রার নিয়োগের অভিযোগের তদন্ত সিআইডিতে

Share

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী জেলা রেজিস্ট্রারের বিরুদ্ধে ঘুষ দুর্নীতির মাধ্যমে জাল ও ভুয়া নিকাহ রেজিস্ট্রার নিয়োগের অভিযোগ উঠেছে। সাবেক জেলা রেজিস্ট্রারের যোগসাজসে জাল ও ভুয়া আদেশে নিকাহ রেজিস্ট্রার নিয়োগ দিয়েছেন বলে এ অভিযোগ। এ ব্যাপারে রাজশাহী জেলা নিকাহ রেজিস্ট্রার কল্যাণ সমিতির সদস্য ইনছান আলীর অভিযোগ এখন সিআইডি তদন্ত করছে।
জানা গেছে, ১৯৮৮ সালে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার হুজরাপুর গ্রামের মৃত রফিকুর রহমানের ছেলে নূরুল ইসলাম দাখিল পাস না করেই কর্তৃপক্ষকে প্রভাবিত করে অবৈধভাবে আলিম ও ফাজিল পাস জাল সনদ দিয়ে রাসিক ১৮ নম্বর ওয়ার্ডে নিকাহ ও তালাক রেজিষ্ট্রার হিসেবে নিয়োগ পান।
এছাড়াও হুজুরীপাড়া ইউনিয়নের কর্ণহার গ্রামের মৃত ইস্কেন্দার শেখের ছেলে হাবিবুল্লাহ ২০০৩ সালের এবং ২০১৬ সালের মন্ত্রনালয়ের জাল ও ভুয়া চিঠি জেলা রেজিস্ট্রার কার্যালয়ে জমা দেন। তৎকালিন জেলা রেজিস্ট্রার আবুল কালাম আজাদ ওই ইউনিয়নের কয়েকটি ওয়ার্ডে নিকাহ রেজিস্ট্রার হিসেবে হাবিবুল্লাকে নিয়োগ দেন। সে সময়ে জেলা কাজী সমিতির নির্বাহী সভাপতি মিকাইল হোসেন মন্ত্রনালয়ের প্রজ্ঞাপন বিরোধী নিয়োগ দেয়া হয়েছে বলে জানান। প্রজ্ঞাপনে স্পষ্ট করা আছে কোন ইউনিয়নে ওয়ার্ড ভিত্তিক নিকাহ রেজিস্ট্রার নিয়োগ দেয়া যাবে না। পাশাপাশি হাবিবুল্লাহর ২০০৩ সাল হতে কোন ফি প্রদান করেননি।
জেলা কাজী সমিতির এসব অভিযোগ যাচাইয়ে মন্ত্রনালয়ের সাথে যোগাযোগ করলে হাবিবুল্লার কাজগপত্র জাল ও ভুয়া বলে জানায়। এ ব্যাপারে তৎকালিন জেলা রেজিস্ট্রার আবুল কালাম আজাদ নিকাহ রেজিস্ট্রার হাবিবুল্লাহকে জানাই। হাবিবুল্লাহ ২০১৯ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর স্ব-শরীরে জেলা রেজিস্ট্রার কার্যালয়ে হাজির হয়ে নিজের দোষ স্বীকার করেন এবং নিকাহ রেজিস্ট্রার পদ থেকে ইস্তফা দেন।
তৎকালিন জেলা রেজিস্ট্রার আবুল কালাম আজাদ বদলীজনিত কারণে অন্যত্র চলে যান। এরপর সদ্য সাবেক জেলা রেজিস্ট্রার ইলিয়াস হোসেন বিতর্কিত নিকাহ রেজিস্ট্রার হাবিবুল্লাকে আবারো হুজুরীপাড়া ইউনিয়নের ১-৫ ওয়ার্ডের নিকাহ রেজিস্ট্রার হিসেবে নিয়োগ দেন। এতে জেলা রেজিস্ট্রার ইলিয়াস হোসেনের বিরুদ্ধে মন্ত্রনালয়ের প্রজ্ঞাপনকে উপেক্ষা করে ঘুষ ও দুর্নীতির মাধ্যমে নিকাহ রেজিস্ট্রার হাবিবুল্লাকে নিয়োগ দেয়ার অভিযোগ উঠে। গত বছরের ১৭ নভেম্বর রাজশাহী জেলা নিকাহ রেজিস্ট্রার কল্যাণ সমিতির সভাপতি কাজী আব্দুল জব্বার জেলা রেজিস্ট্রার বরাবরে হাবিবুল্লার অবৈধ নিয়োগ বাতিলের আবেদন করেন। পাশাপাশি রাজশাহী জেলা নিকাহ রেজিস্ট্রার কল্যাণ সমিতির সদস্যরা হাবিবুল্লার নিয়োগ অবৈধ বলে চ্যালেঞ্জ করেন। এতে তৎকালিন জেলা রেজিস্ট্রার ইলিয়াস হোসেন নিকাহ রেজিস্ট্রার হাবিবুল্লাহর নিয়োগ বাতিল করেন। এরপর তিনি আবারো মন্ত্রনালয়ের টেলিফোনে আদেশের উল্লেখ করে ৭ ডিসেম্বর অবৈধভাবে প্রজ্ঞাপন বহির্ভূত হুজুরীপাড়া ইউনিয়নের ১-৫ নম্বর ওয়ার্ডের নিকাহ রেজিস্ট্রারের নিয়োগ দেন বিতর্কিত ওই হাবিবুল্লাকে। এ নিয়ে পবা উপজেলা বিভিন্ন ইউনিয়ননে নিকাহ রেজিস্ট্রারের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। তারা সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন।
এ ব্যাপারে সাবেক জেলা রেজিস্ট্রার ইলিয়াস হোসেন বলেন, হাবিবুল্লাহ’র নিয়োগ বাতিল করা ভুল হয়েছিল। বরং তাকে পুনর্বহাল করে ওই ভুল সংশোধন করেছি। তাছাড়া মন্ত্রনালয়ের চিঠি অনুযায়ী তাকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। প্রজ্ঞাপনে আছে প্রতিটি ইউনিয়নে একজন করে নিকাহ রেজিস্ট্রার থাকবে এতে শর্ত বহির্ভুতভাবে হাবিবুল্লাহ’র ইউনিয়নের ১-৫ নম্বর ওয়ার্ডের নিকাহ রেজিস্ট্রার করা হয়েছে? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এটা বিচার বিভাগের বিষয়। আমি নিয়োগ দেই না এবং বাতিলও করি না।

মার্চ ১০
০৫:৫৮ ২০২১

আরও খবর

Subcribe Youtube Channel

বিশেষ সংবাদ

২০৩০ সালে রমজান মাস হবে দুইটি

২০৩০ সালে রমজান মাস হবে দুইটি

আর মাত্র একদিন পরই শুরু হবে আত্মশুদ্ধি ও সিয়াম-সাধনার মাস রমজান। বছরের এই একটি মাসে আমরা আমলের মাধ্যমে সওয়াবকে ৭০ গুণ বাড়িয়ে নিতে পারি। ইংরেজি বর্ষপঞ্জি অনুযায়ী বছরে একবারই আসে রমজান মাস। কিন্তু কেমন হবে যদি বছরে দুইটি রমজান মাস হয়? হ্যাঁ- আগামীতে এমনই একটি বছর আসবে যেটিতে রমজান মাস

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

টিকা কার্ড নিয়ে যাতায়াত করা যাবে

টিকা কার্ড নিয়ে যাতায়াত করা যাবে

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির অবনতির কারণে ১৪ এপ্রিল সকাল ৬টা থেকে ২১ এপ্রিল মধ্যরাত পর্যন্ত বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। তবে এ সময়ে টিকা কার্ড নিয়ে টিকা গ্রহণের জন্য যাতায়াত করা যাবে বলে জানানো হয়েছে। সোমবার (১২ এপ্রিল) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, অতি জরুরি প্রয়োজন

বিস্তারিত