Daily Sunshine

নগর আ’লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় মাসব্যাপি নানা কর্মসূচি

Share

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সভা শনিবার সন্ধ্যা ৭টায় কুমারপাড়াস্থ দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় সভাপতিত্ব করেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন। সভায় সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার। সভায় রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সভায় মার্চ মাস উপলক্ষে মাসব্যাপি নানা কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।
সভাপতির বক্তব্যে এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, মার্চ মাস বাংলাদেশের অভ্যূদয়ের মাস। এই মাসেই ১৭ তারিখে বাংলাদেশের একটি নিভৃত গ্রাম টুঙ্গিপাড়ায় জন্মেছিলেন সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। সেই গ্রামের জন্ম নেয়া খোকা থেকে শেখ মুজিবুর রহমান, শেখ মুজিবুর রহমান থেকে বঙ্গবন্ধু, বঙ্গবন্ধু থেকে জাতির পিতা হয়েছিলেন বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।
তিনি বলেন, এই মার্চ মাসেই ৭ তারিখে বঙ্গবন্ধু অগ্নিঝরা ভাষণ দিয়ে বাঙ্গালী জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করেছিলেন পাকিস্তানী শাসকদের জুলুম, অত্যাচার ও নির্যাতনের বিরুদ্ধে স্বাধীন বাংলাদেশের অভিপ্রায়ে। এই মার্চ মাসেই পাকিস্তানীরা আমাদের প্রিয় মাতৃভূমিকে পোড়া মাটির নীতি অবলম্বন করে অতিরিক্ত সৈন্য সমাবেশ ও অস্ত্র গোলা-বারুদ মজুদ করে বাঙ্গালী নিধনের পরিকল্পনা গ্রহন করে। এই মার্চ মাসের ২৫ তারিখে বঙ্গবন্ধু গ্রেফতারের পূর্বে ইপিআর এর ওয়ারলেস যোগে বাংলাদেশের স্বাধীনতার ঘোষণা দেন ও শত্রুদের মোকাবিলা করার জন্য প্রস্তুতি গ্রহনের নির্দেশ দেন।
সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার নির্বাহী কমিটির গৃহীত সকল কর্মসূচী সফল ও সার্থক করার লক্ষ্যে উপস্থিত নেতৃবৃন্দের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করে বলেন, মার্চ মাস আমাদের স্বাধীনতার মাস, আমাদের আত্মপরিচয়ের মাস। মার্চ মাস বাংলাদেশের জাতীয় জীবনে এক ঐতিহাসিক মাস। এই মাসেই বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশ নামক একটি রাষ্ট্রের অস্তিত্ব তুলে ধরেন স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের মহানায়ক ও বাংলাদেশের স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। এই মাসেই বাঙ্গালী তার সশস্ত্র যুদ্ধের মধ্যে দিয়ে ত্রিশ লক্ষ শহীদ ও দুই লক্ষ মা-বোনের সম্ভ্রমের বিনিময়ে লাল-সবুজের পতাকা, জাতীয় সঙ্গীত, বিশ্বের মানচিত্রে আমাদের প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশের অভ্যূদয় ঘটে।
সভার মার্চ মাস ব্যাপি নানা কর্মসূচির সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। যার মধ্যে রয়েছে, ৭মার্চ বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ভাষণ দিবস উপলক্ষ্যে সূর্যোদয়ের সাথে সাথে দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন। ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে মাইকযোগে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ প্রচার। সকাল ১০টায় স্বাধীনতা চত্বরে বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণ। বেলা সাড়ে ১০ টায় দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা। ১৭মার্চ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষ্যে সূর্যোদয়ের সাথে সাথে দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন। ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে মাইকযোগে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ প্রচার। সকাল ১০টায় স্বাধীনতা চত্বরে বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণ। কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর সাথে সমন্বয়করণ। চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার আয়োজন। সুবিধাজনক সময়ে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা। ২৫মার্চ গণহত্যা দিবস উপলক্ষ্যে সন্ধ্যা ৭টায় দলীয় কার্যালয় থেকে আলোর মিছিল নিয়ে ভূবন মোহন পার্কে অবস্থান ও মোমবাতি প্রজ্বলন। এরপর এক মিনিট নিরবতা পালন করা হবে। রাত সাড়ে ৭ টায় ভূবন মোহন পার্কে আতাউর রহমানের রচিত ঐতিহাসিক মঞ্চ নাটক ‘রক্তের রং লাল’ মঞ্চস্থ করা হবে। রাত ৯টায় এক মিনিট স্ব স্ব অবস্থান থেকে ব্লাক আউট। ২৬মার্চ স্বাধীনতার সূবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষ্যে সূর্যোদয়ের সাথে সাথে দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন। ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে মাইকযোগে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ প্রচার। বিকেল সাড়ে ৪টায় দলীয় কার্যালয় থেকে বর্নাঢ্য শোভাযাত্রা বের হবে। সকল ধর্মীয় উপাসনালয়ে শহীদদের আত্মার শান্তি কামনা করে প্রার্থনা করা হবে।

ফেব্রুয়ারি ২৮
০৫:৪৬ ২০২১

আরও খবর

Subcribe Youtube Channel

বিশেষ সংবাদ

চিকিৎসক-পুলিশের পাল্টা বিবৃতি, হাইকোর্টের ক্ষোভ

সানশাইনডক্সে: চলমান লকডাউনে রাস্তার ‘মুভমেন্ট পাস’ নিয়ে চিকিৎসক, ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশের বাগবিতণ্ডার ঘটনায় দুই পেশাজীবী সংগঠনের পাল্টাপাল্টি বিবৃতিতে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন হাইকোর্ট। আদালত বলেছেন, ওই ঘটনায় সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পাল্টাপাল্টি বিবৃতি দেয়া সমীচীন হয়নি। তাদের এমন আচরণ অনাকাঙ্ক্ষিত। সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কাছে এমন আচরণ কাম্য নয়। মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) হাইকোর্টের বিচারপতি এম.

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

টিকা কার্ড নিয়ে যাতায়াত করা যাবে

টিকা কার্ড নিয়ে যাতায়াত করা যাবে

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির অবনতির কারণে ১৪ এপ্রিল সকাল ৬টা থেকে ২১ এপ্রিল মধ্যরাত পর্যন্ত বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। তবে এ সময়ে টিকা কার্ড নিয়ে টিকা গ্রহণের জন্য যাতায়াত করা যাবে বলে জানানো হয়েছে। সোমবার (১২ এপ্রিল) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, অতি জরুরি প্রয়োজন

বিস্তারিত