Daily Sunshine

আজ পহেলা ফাল্গুন ভালোবাসার দিনে এলো বসন্ত

Share

স্টাফ রিপোর্টার : আজ ফাল্গুনের প্রথম দিন। বসন্তকাল! সাথে যোগ হয়েছে ভ্যালেন্টাইনস ডে। তাই বলা চলে ভালোবাসায় হবে বসন্তবরণ। কবি সুভাস মুখোপাধ্যায়ের কথায়- ‘ফুল ফুটুক না ফুটুক, আজ বসন্ত’। ভালোবাসার উষ্ণতায় উপেক্ষা করতে পারেনি ফুলরাজি। ফুল ফুটেছে, কাননে কাননে ফুলের হাসি জানান দিয়েছে বসন্তের আগমনী বার্তা।
প্রকৃতি যেমনই হোক মানুষের মনরাজ্যে আজ বসন্ত! তবে করোনা মহামারির কারনে এবার বসন্তের আনন্দ-উচ্ছ্বাস কিছুটা সীমিত ও মার্জিত হবে বলে মনে করছেন জনসাধারণ।
প্রতিবছর বর্ণাঢ্য আয়োজনে সারাদেশের মত রাজশাহীজুড়ে চলে বসন্তবরণ উৎসব। কিন্তু এবার বসন্তবরণে নেই তেমন আয়োজন। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে সব ধরণের অনুষ্ঠান ও জনসমাবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। টি-স্টল, ফুল, পিঠাসহ কোনো ধরণের দোকান নিয়ে বসা যাবে না। কোনো ধরণের আতশ ও ফটকাবাজি করা যাবে না। এদিন বহিরাগতদের ক্যাম্পাসে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না। শিক্ষার্থীরা চাইলে আইডিকার্ড দেখিয়ে ক্যাম্পাসে প্রবেশ করতে পারবে, তবে সন্ধ্যা ৬টার মধ্যে সবাই ক্যাম্পাস ত্যাগ করতে হবে বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান।
অন্যদিকে, সীমিত পরিসরে বসন্তবরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছেন রাজশাহী কলেজ। বসন্তবরণ উপলক্ষে শোভাযাত্রা, বসন্ত কথন ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ প্রফেসর মোহাঃ আব্দুল খালেক। এছাড়া প্রতিবছর অন্যান্য প্রতিষ্ঠান যেমন আড়ম্বর অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বসন্তবরণ করে, সেরকম কোন আয়োজন থাকছে না এবার।
করোনা আতঙ্ক থাকলেও থামানো যাবে বাঙ্গালীর বসন্ত উচ্ছ্বাস। সাধারণ মানুষ বলছেন, করোনার ভীতি অনেকটাই কেটে গেছে। ভ্যাকসিনও এসে গেছে। দীর্ঘদিন কোন উৎসবের স্বাদ নেয়নি বাঙ্গালী। তাই বসন্তবরণটাও হবে ভালোবাসাময়।
প্রতিবছর নগরীর বিভিন্ন জায়গায় চোখে পড়ে লাল আর বাসন্তী রঙে প্রকৃতির সঙ্গে নিজেদের সাজিয়ে বসন্তের উচ্ছলতা ও উন্মাদনায় মেতে ওঠা বাঙালি। বসন্ত অনেক ফুলের বাহারে সজ্জিত হলেও গাঁদা ফুলের রংকেই এদিনে তাদের পোশাকে ধারণ করে তরুণ-তরুণীরা। খোঁপায় শোভা পায় গাঁদা ফুলের মালা। বসন্তের আনন্দযজ্ঞ থেকে বাদ যায় না গ্রামীণ জীবনও। বসন্তকে তারা আরও নিবিড়ভাবে বরণ করেন। এবছরও সেরকম আনন্দের প্রত্যাশায় রাজশাহীবাসী।
বসন্তের বন্দনা আছে কবিতা, গান, নৃত্য আর চিত্রকলায়। সাহিত্যের প্রাচীন নিদর্শনেও বসন্ত ঠাঁই করে নিয়েছে তার আপন মহিমায়। অতীতে বসন্তবরণ ও বিশ্ব ভালোবাসা দিবস পালন করা হতো পৃথক দিনে। বাংলা বর্ষপঞ্জি সংশোধনের মাধ্যমে তা একই দিনে করা হয়েছে। এর ফলে দিনটির গুরুত্ব আরও বেড়েছে।
বসন্তবরণ ও বিশ্ব ভালোবাসা দিবসের অন্যতম অনুসঙ্গ ফুল। ফুল আদান-প্রদানের মাধ্যমে ভালোবাসা বিনিময় করেন মানুষ। ফলে বসন্তজুড়ে বাজারে ফুল কেনাবেচার ধুম পড়ে যায়। তবে কোভিড-১৯ এর কারণে এবছর রাজশাহীতে ফুল বেচাকেনা অনেক কম বলে জানিয়েছেন বিক্রেতারা। তবে আজ সেই খরা কাটিয়ে বসন্তের আনন্দ ছুঁয়ে যাবে তাদের বেচাকেনায়, এমন প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন তারা। সবকিছু ছাপিয়ে ভালোবাসা ও বসন্তের রঙে রঙিন হয়ে উঠবে বাঙ্গালী জীবন এমটাই প্রত্যাশা রাজশাহীবাসীর।

ফেব্রুয়ারি ১৪
০৭:২৫ ২০২১

আরও খবর

বিশেষ সংবাদ

প্রাণ ফিরে পাচ্ছে রাবির টুকিটাকি চত্বর

প্রাণ ফিরে পাচ্ছে রাবির টুকিটাকি চত্বর

স্টাফ রিপোর্টার ,রাবি: টুকিটাকি চত্বর। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের চিরপরিচিত একটি চত্বর। প্রায় ৩৫ বছর আগে বিশ্ববিদ্যালয়টির লাইব্রেরি চত্বরে ‘টুকিটাকি’ নামের ছোট্ট একটি দোকান চালু হয়। খুব অল্প সময়ের মধ্যেই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মুখে মুখে টুকিটাকি নামটি ছড়িয়ে পড়ে। দোকানটি ভীষণ জনপ্রিয়তা পায়। ফলে সবার অজান্তেই একসময় লাইব্রেরি চত্বরটির নাম হয়ে যায়

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

আসছে ৫৫ হাজার শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি

আসছে ৫৫ হাজার শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি

সানশাইন ডেস্ক : মান্থলি পেমেন্ট অর্ডারভুক্ত (এমপিও) শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ৫৫ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হবে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অনুমতি পেলে চলতি মাসেই গণবিজ্ঞপ্তি জারি করতে পারে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। এনটিআরসিএ সূত্রে জানা গেছে, সারা দেশের এমপিওভুক্ত স্কুল-কলেজ, মাদরাসা ও কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রায় ৫৭ হাজার ৩৬০টি শূন্য পদের তালিকা

বিস্তারিত