Daily Sunshine

তানোর পৌরসভা নির্বাচন আ’লীগ নেতাদের রঙ বদল

Share

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীর তানোর পৌর সভা নির্বাচনকে নিয়ে আওয়ামী লীগের নেতারা নিজেদের স্বার্থে কাজ করছে। যার ফলে আওয়ামী লীগের কর্মীরা পড়েছে বিপাকে।
৩০ জানুয়ারি মুন্ডুমালা পৌরসভা নির্বাচনে তানোর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম রাব্বানী ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্ল্াহ আল মামুন নৌকার মেয়র প্রার্থীর আমিনের পক্ষে মাঠে নামেনি এমনকি কোন কাজ করেননি। উল্টো স্বতন্ত্র প্রার্থী (জগ) সাইদুরের পক্ষে কাজ করছে। আমিনের হাতে তুলে দেয়া শেখ হাসিনার উপহার নৌকাকে ফেল করিয়ে স্বতস্ত্র প্রার্থীকে বিজয়ী করেছে। নৌকার বিপক্ষে কাজ করেছে। শেখ হাসিনার (নৌকার) সম্মান তারা রক্ষা করেননী। তারা নৌকাকে ডুবিয়েছেন।
মুন্ডুমালা পৌরসভায় মেয়রপদে তীরে এসে ডুবেছে নৌকা। বিদ্রোহী প্রার্থী সাইদুর রহমানের কাছে মাত্র ৬১ ভোটে পরাজিত হয়েছেন আ’লীগ মনোনীত নৌকার মেয়রপ্রার্থী আমির হোসেন আমিন।
জানা গেছে, উপজেলা আ’লীগ সভাপতি মেয়র গোলাম রাব্বানীর নিজ ভোট কেন্দ্রেই এতো বিপুল ভোটের ব্যবধানে নৌকার পরাজয় ঘটেছে। অপরদিকে, নবনির্বাচিত মেয়র সাইদুর রহমান তার নিজ ভোট কেন্দ্রেই নৌকার কাছে পরাজিত হন। মোট ১০টি কেন্দ্রের মধ্যে ৭টি কেন্দ্রেই নৌকা বিজয়ী। কিন্তু সভাপতির ভোট কেন্দ্রেই এতো বিপুল ভোটে নৌকার পরাজয় মেনে নেয়ার নয়। নৌকাকে ডুবিয়ে বিদ্রোহী সাইদুর জগ প্রতীকে ১০৪৯ ভোট পেয়েছেন। আর নৌকা প্রতীকে ৫৫৮ ভোট পেয়ে আমিন পরাজিত হন। তবে, ধানের শীষ প্রতীকে বিএনপি প্রার্থী ফিরোজ কবির শুধু ২৮০ ভোট পান।
এব্যাপারে মুন্ডুমালার বাসিন্দা জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি শরিফ খাঁন বলেন, আওয়ামী লীগের মনোনীত মেয়র প্রার্থী আমিন ও বিদ্রোহী প্রার্থী সাইদুর মুন্ডুমালা বালিকা দাখিল মাদ্রাসা একই কেন্দ্রের ভোটার। নিজ কেন্দ্রে নৌকা প্রতীকে আমিন ৫৭৪ ভোট পান। কিন্তু সাইদুর তার নিজ ভোট কেন্দ্রেই নৌকার কাছে ১৪৭ ভোটে পরাজিত হন।
তিনি আরও বলেন, এই হিসেব থেকে বোঝা যায়, আওয়ামী লীগ সভাপতির ইশারায়, ইন্ধনে ও তার খেদমতে তীরে এসে তার কেন্দ্রেই নৌকাকে ডুবিয়েছেন রাব্বানী।
বর্তমানে রাব্বানী ও মামুন তানোর পৌরসভায় নৌকার পক্ষে কাজ করছে। তবে কেন মুন্ডুমালা পৌরসভায় নৌকার পক্ষে কাজ করলো না। আমি কেন্দ্র ও জেলার নেতাদের কাছে দাবি জানাচ্ছি রাব্বানী ও মামুনের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়ার জন্য দৃষ্টি আকর্ষন করছি।
অপর দিকে নৌকা ডুবিয়ে মুন্ডুমালা পৌর সভার বর্তমান মেয়র সাইদুর রহমান (জগ) আজ তানোরে এসে ইমরুলের পক্ষে নৌকার ভোট চাইচ্ছেন। তার মানে কি বোঝায়? তিনি মুন্ডুমালা নৌকার বিপক্ষে কাজ করে নিজের র্মাকা জগ কে জয়ী করে নিলেন। এখন তানোরে এসে নৌকার পক্ষে সুর মিলাচ্ছে। এমপি সাহেব তানোরে পৌরসভায় আবুল বাসার সুজনকে চাচ্ছিলেন। কিন্তু রাজনৈতিক দিক দিয়ে দলের সিন্ধান্ত মতে সুজন বাদ পড়ে ইমরুলকে দলীয় মনোনিত করেন।
ওই সব ব্যক্তিরা আজ তানোর পৌর সভার নির্বাচনে নৌকা পক্ষে কাজ করছে। ভোটার দের দ্বারে দ্বারে গিয়ে ভোট চাইছেন। েেভাটাররা বলছেন, আ’লীগের থানা পর্যায়ের হাতে গোনা কয়েকজন ক্ষনে ক্ষনে রঙ বদলানো নিজেদের স্বার্থে কখনো হাতুড় দিয়ে নৌকা ফুটো করা আবার কখনো কলস আবার কখনো জগ দিয়ে নৌকা ডুবিয়ে আবার নৌকার পক্ষে নৌকার নির্বাচনী সভার নামে ভোট চাওয়া ওইসব নেতাদের রাজনৈতিক আদর্শকে নৌকার আদর্শিক নেতা হিসেবে মানতে না পারা ভোটার সহ সচেতন মহলে শুরু হয়েছে মুখরোচক আলোচনা ও সমালোচনা।
দলীয় নেতা কর্মী সমর্থকসহ ভোটারদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, যেসব নেতারা জাতীয় সংসদ নির্বাচন থেকে শুরু করে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনসহ সম্প্রতি মুন্ডমালা পৌর সভা নির্বাচনে সরাসরি নৌকার বিরুদ্ধে করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ছিলো এবং সরাসরি নৌকার বিরুদ্ধে নির্বাচনে অংশ নিয়ে বিজয়ী ও পরাজিত হয়েছেন (তারাও) ওইসব নেতারাও তানোর পৌর সভা নির্বাচনে নৌকার পক্ষে ভোট চাচ্ছেন এর হেতু কি।
সোমবার বিকালে তানোর গোল¬াপাড়া বাজার ফুটবল মাঠে অনুষ্ঠিত আওয়ালী লীগ দলীয় মেয়র নৌকার মেয়র প্রার্থী ইমরুল হকের নির্বাচনী সভায় নৌকার বিপক্ষে ভোটে অংশ নিয়ে নৌকা ফুটো করা নেতারাসহ তাদের কর্মী সমর্থকরা উপস্থিত ছিলেন থাকলেও ডাকা হয়নি মুল ধারার আওয়ামী লীগ যুবলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা কর্মী ও সমর্থকদের।
তানোর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান লুৎফর হায়দার রশিদ ময়না বলেন, মুন্ডুমালা পৌর সভার নির্বাচনে যদি রাব্বানী ও মামুন বিরোধীতা না করতেন তাহলে নৌকা বিজয়ী হতো। তাদের জন্য নৌকার আজ ভরা ডুবি। মুন্ডুমালা পৌরসভায় নৌকার বিরোদ্ধিতা করে আজ তারা তানোর পৌরসভায় নৌকার পক্ষে কাজ করছে। এমপি সাহেবকে নেতাদের কাছে ছোট করতে রাব্বারী ও মামুন জাল একেছে। কিন্তু তারা জানে না তাদের জালে তারা নিজেরাই ধরা পড়বে। আমি সব সময় চাই নৌকার বিজয়ী হোক। সেজন্য আমিসহ আমার নেতা-কর্মীরা মাঠে কাজ করছে।

ফেব্রুয়ারি ১০
০৭:২৮ ২০২১

আরও খবর

বিশেষ সংবাদ

প্রাণ ফিরে পাচ্ছে রাবির টুকিটাকি চত্বর

প্রাণ ফিরে পাচ্ছে রাবির টুকিটাকি চত্বর

স্টাফ রিপোর্টার ,রাবি: টুকিটাকি চত্বর। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের চিরপরিচিত একটি চত্বর। প্রায় ৩৫ বছর আগে বিশ্ববিদ্যালয়টির লাইব্রেরি চত্বরে ‘টুকিটাকি’ নামের ছোট্ট একটি দোকান চালু হয়। খুব অল্প সময়ের মধ্যেই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মুখে মুখে টুকিটাকি নামটি ছড়িয়ে পড়ে। দোকানটি ভীষণ জনপ্রিয়তা পায়। ফলে সবার অজান্তেই একসময় লাইব্রেরি চত্বরটির নাম হয়ে যায়

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

আসছে ৫৫ হাজার শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি

আসছে ৫৫ হাজার শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি

সানশাইন ডেস্ক : মান্থলি পেমেন্ট অর্ডারভুক্ত (এমপিও) শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ৫৫ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হবে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অনুমতি পেলে চলতি মাসেই গণবিজ্ঞপ্তি জারি করতে পারে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। এনটিআরসিএ সূত্রে জানা গেছে, সারা দেশের এমপিওভুক্ত স্কুল-কলেজ, মাদরাসা ও কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রায় ৫৭ হাজার ৩৬০টি শূন্য পদের তালিকা

বিস্তারিত