Daily Sunshine

বাঘায় জমি নিয়ে সংঘর্ষে তিন নারীসহ আহত ৮

Share

স্টাফ রিপোর্টার, বাঘা: রাজশাহীর বাঘায় জমি-জমা নিয়ে স্বপন সাহা এবং উত্তম সাহা এই দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় তিন নারীসহ মোট ৮ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে ৬ জনকে স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। শনিবার সকাল ৯ টায় উপজেলার নারায়নপুর এলাকায় অবস্থিত কেন্দ্রীয় পুজা মন্ডপের পাশে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় উভয় পক্ষ থানায় পৃথক দুটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।
আহতরা হলেন স্বপন পক্ষের তিনি নিজে (৫১) ও তার বোন ছবি সাহা (৪৮) তুষার (২২) এবং জুতি সাহা (২০)। তাদের বাঘা উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে তুষার গুরুতর জখম হয়েছেন।
অপরদিকে উত্তম পক্ষে আহত হয়েছেন তার ছোট ভাই অপুর্ব সাহা (৪২), বিক্রম জিত সাহা (৪৮), বিদ্যুৎ সাহা (৩৫) এবং কবিতা সাহা (৪০)। অপূর্ব এবং কবিতা সাহা সাময়িক চিকিৎসা নিয়ে হাসপাতাল ছাড়লেও অন্য দু’জন হাসপাতালে ভতি রয়েছেন।
স্থানীয় লোকজন জানান, উপজেলার নারায়নপুর কেন্দ্রীয় পুজা মণ্ডপের পাশে পল্লী চিকিৎসক উত্তম কুমার সাহা ও তার চাচাতো ভাই শিক্ষক স্বপন সাহার সাথে জমি-জমা এবং পূজা মন্ডপে যাওয়ার রাস্তা নির্মাণ দিয়ে দির্ঘদিন থেকে বিরোধ চলে আসছে। বিরোধকে কেন্দ্র করে সম্প্রতি বাঘা পৌর সভার মেয়র আব্দুর রাজ্জাক ও স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ একটি (শালিস) আপোশ-মিমাংসা করে আসেন। সে মর্মে স্বপন সাহা তার পুর্বের সীমানা প্রাচীর ভেঙ্গে পাঁচ ফিট দুরে নুতন করে কাজ শুরু করেন।
এদিক থেকে উত্তম সাহাকে তার সীমানা প্রাচীরের প্রবেশ মুখে চার ফিট ভেঙ্গে সেটিকে সরিয়ে নতুন ভাবে প্রাচীর নির্মাণ করার নির্দেশ দেন শালিস বোর্ড। পরবর্তীতে স্বপন সাহা শালিসের নির্দেশ মেনে তার প্রাচীর ভেঙ্গে নতুন করে কাজ শুরু করলেও উত্তম সাহা ও তার ভাই অপুর্ব সাহা স্থানীয় প্রভাবশালীর নেতৃত্বে তা আংশিক ভেঙ্গে কাজ বন্ধ রাখেন। এ নিয়ে উভয় পক্ষে মধ্যে চাপা উত্তেজনা চলতে থাকে।
বিষয়টি ঘটনা অবগত হয়ে গত তিনদিন পুর্বে সেখানে উপস্থিত হন বাঘা পৌর সভার মেয়র আব্দুর রাজ্জাক, প্যানেল মেয়র শাহিনুর রহমান পিন্টু, উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়াহেদ সাদিক কবির, বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ নজরুল ইসলাম এবং হিন্দু সম্প্রদায়ের নেতা অশিত কুমার ওরুপে বাকু পান্ডে।
তারা উত্তম সাহা এবং তার ভাই অপুর্ব সাহাকে অবিলম্বে সালিশের রায় মোতাবেক তাদের প্রাচীর সরিয়ে ফেলার নির্দেশ দেন। এ নির্দেশ তারা তাৎক্ষণাত মানলেও পরবর্তীতে মাত্র একজন লেবার নিয়ে নির্মিত প্রাচীরের উপর থেকে এক ফিট ভেঙ্গে কাজ বন্ধ করে দেন।
এ খবর শোনার পর শালিসের লোকজন স্বপন সাহাকে পুর্বের জায়গায় প্রাচীর নির্মাণের অনুমতি দেন। সে মোতাবেক শনিবার স্বপন সাহা নতুন করে কাজ শুরু করতে গেলে অপুর্ব এবং তার ভাই উত্তম সাহা তাদের লোকজন নিয়ে অতর্কিত স্বপন সাহা এবং ভাতিজা তুষারের উপরে আক্রমন করে। তার বোন ছবি সাহা ও ভাতিজি জুথি এগিয়ে এলে উভয় পক্ষের মাধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।
বাঘা পৌর মেয়র আব্দুর রাজ্জাকও উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়াহেদ সাদিক কবির জানান, তিনি ঘটনাস্থালে গিয়েছিলেন। পুর্বে যে শালিস করা হয়েছিল সেটি স্বপন সাহা মানলেও উত্তম এবং তার ভাই অপুর্ব মানেননি। এ জন্য স্বপন সাহাকে পুর্বেরস্থালে কাজ করতে বলা হয়েছে। তবে কাজ করতে গেলে সংঘাতের ঘটনা ঘটতে পারে এমনটা তারা বুজতে পারেনি। ঘটনায় বর্তমান প্রেক্ষপটে শালিস বোর্ড এবং স্থানীয় লোকজন কেউই স্বপন সাহাকে দায়ি করেনি। বরং অভিযোগ ছিল উত্তম সাহা পক্ষের লোকজনের উপর।
বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নজরুল ইসলাম জানান, উভয় পক্ষ থেকে অভিযোগ পেয়েছি। পুর্বের তদন্তে স্বপন সাহার বিরুদ্ধে কোন অপরাধ পায়নি। তবে সংঘর্ষের বিষয়ে তদন্ত সাপেক্ষে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ফেব্রুয়ারি ০৭
০৪:০০ ২০২১

আরও খবর

বিশেষ সংবাদ

প্রাণ ফিরে পাচ্ছে রাবির টুকিটাকি চত্বর

প্রাণ ফিরে পাচ্ছে রাবির টুকিটাকি চত্বর

স্টাফ রিপোর্টার ,রাবি: টুকিটাকি চত্বর। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের চিরপরিচিত একটি চত্বর। প্রায় ৩৫ বছর আগে বিশ্ববিদ্যালয়টির লাইব্রেরি চত্বরে ‘টুকিটাকি’ নামের ছোট্ট একটি দোকান চালু হয়। খুব অল্প সময়ের মধ্যেই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মুখে মুখে টুকিটাকি নামটি ছড়িয়ে পড়ে। দোকানটি ভীষণ জনপ্রিয়তা পায়। ফলে সবার অজান্তেই একসময় লাইব্রেরি চত্বরটির নাম হয়ে যায়

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

৪১তম বিসিএস প্রিলিমিনারি পরীক্ষা ১৯ মার্চ

৪১তম বিসিএস প্রিলিমিনারি পরীক্ষা ১৯ মার্চ

সানশাইন ডেস্ক : ৪১তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা নির্ধারিত সময়ে নেয়ার পক্ষে মত দিয়েছে বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন। এই পরীক্ষা ১৯ মার্চ নেয়ার দিন ধার্য করেছে পিএসসি। বুধবার বিকেলে পিএসসিতে এক অনির্ধারিত সভায় যথাসময়ে এই পরীক্ষা নেয়ার মত দেয়া হয়। পরীক্ষা পেছানোর বিষয়ে এ অনির্ধারিত সভায় কোনো আলোচনা হয়নি। ২০১৯ সালের

বিস্তারিত