Daily Sunshine

পবায় ৪৭ ভূমিহীন শিগগিরই পাচ্ছেন পাকাবাড়ি

Share

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী জেলায় ভূমিহীন দরিদ্র পরিবারের মাঝে জমিসহ ৬৯২টি বাড়ি বিতরণ করা হবে। বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে সরকার এই উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। রাজশাহী জেলায় এই প্রকল্পে ব্যয় হচ্ছে প্রায় ১২ কোটি টাকা। ৯টি উপজেলায় ভূমিহীন পরিবারের মাঝে এই বাড়িগুলো বিতরণ করা হবে। এরই মধ্যে বাড়ি নির্মাণের অধিকাংশ কাজ শেষ হয়েছে। আগামী ২৩ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী আনুষ্ঠানিকভাবে সংশ্লিষ্ট দরিদ্র পরিবারগুলোর মাঝে বাড়িগুলো হস্তান্তর করবেন বলে জানা গেছে।
রাজশাহীতে জমি নাই বাড়ি নাই এমন পরিবারকে এসব বাড়ি দেয়া হচ্ছে। এ জেলায় নির্মাণাধীন ৬৯২টি বাড়ির মধ্যে পবা উপজেলায় নির্মিত হচ্ছে ৪৭টি বাড়ি। যারমধ্যে হরিয়ান ইউনিয়নে ১৮টি, হরিপুর ইউনিয়নে ১৮টি ও পারিলা ইউনিয়নে ১১টি বাড়ি।
জেলা প্রশাসনের দেওয়া তথ্য মতে, খাসজমির প্রাপ্যতার ওপর ভিত্তি করে সংশ্লিষ্ট উপজেলায় এই বাড়িগুলো নির্মাণ করা হচ্ছে। ২ শতক জায়গার ওপর সরকারি ভাবে নির্মিত প্রতিটি বাড়িতে থাকছে দুইটি ঘর, একটি রান্নাঘর, একটি বাথরুম এবং একটি করে টয়লেট। ইটের দেয়াল এবং টিনের চালা দিয়ে নির্মিত এই বাড়িগুলোতে থাকছে স্বাস্থ্য সম্মত পরিবেশ। প্রতিটি বাড়ি নির্মাণে ব্যয় ধরা হয়েছে ১ লাখ ৭১ হাজার টাকা।
বাড়িগুলো নির্মাণে সার্বিক তদারকি করছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট উপজেলা ও ইউপি চেয়ারম্যানরা। ঠিকাদাদের মাধ্যমে বাড়ি নির্মাণের কাজ না করিয়ে স্থানীয় প্রশসনের তদারকিতে ও ব্যবস্থাপনায় এই বাড়িগুলো নির্মাণ করা হচ্ছে। উপজেলায় খাসজমির প্রাপ্যতার ওপর ভিত্তি করে বাড়িগুলো নির্মাণ করা হচ্ছে।
সোমবার সরোজমিন কুখন্ডি গ্রামে দেখা যায়, অনেকগুলো মিস্ত্রি শ্রমিক কাজ করছেন। কেহ পলেস্টারে ব্যস্ত, কেহ ঘরের ছাউনিতে। আবার কেহ রং-এ। হরিয়ান ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মফিদুল ইসলাম বাচ্চু বলেন, ২০১৫ সালে শিক্ষকগণ ইউনিয়নে যাচাই-বাছাই শেষে ২৭টি পরিবারকে নির্বাচিত করেন। যারমধ্যে ১৮টি বাড়ি নির্মাণ করা হচ্ছে। জাতিরপিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এসব বাড়ি উপহার দিচ্ছেন।
পবা উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা রেজাউল করিম বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জমি নাই বাড়ি নাই-এমন পরিবারকে এসব উপহার বাড়ি দিবেন। জেলা প্রশাসক মহোদয়ের সার্বিক তত্বাবধায়নে ও রাজশাহী জেলার দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদফতরের ত্রাণ এবং পুনর্বাসন কর্মকর্তার নির্দেশনায় ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার তদারকিতে খুবই দ্রুততার সাথে নির্মাণ কাজ এগিয়ে চলেছে।
পবা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শিমুল আকতার বলেন, ইতোমধ্যে ঘরগুলো নির্মাণের কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। অনেক বাড়িতে ঘরে টিন বসানো হয়েছে। এছাড়া কিছু ঘরে টিন বসানো ও রংয়ের কাজ বাকি আছে। আশা করি দ্রুত ঘরগুলোর কাজ শেষ করতে পারবো।
রাজশাহী জেলার দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদফতরের ত্রাণ এবং পুনর্বাসন কর্মকর্তা আমিনুল হক জানান, বাড়িগুলোর নির্মাণ কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। এখন শুধু টিন লাগানো বা রংয়ের কাজ বাকি আছে। সামান্য যে কাজ বাকি আছে তাও শেষ পর্যায়ে।

জানুয়ারি ১৯
০৬:১৩ ২০২১

আরও খবর

বিশেষ সংবাদ

প্রাণ ফিরে পাচ্ছে রাবির টুকিটাকি চত্বর

প্রাণ ফিরে পাচ্ছে রাবির টুকিটাকি চত্বর

স্টাফ রিপোর্টার ,রাবি: টুকিটাকি চত্বর। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের চিরপরিচিত একটি চত্বর। প্রায় ৩৫ বছর আগে বিশ্ববিদ্যালয়টির লাইব্রেরি চত্বরে ‘টুকিটাকি’ নামের ছোট্ট একটি দোকান চালু হয়। খুব অল্প সময়ের মধ্যেই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মুখে মুখে টুকিটাকি নামটি ছড়িয়ে পড়ে। দোকানটি ভীষণ জনপ্রিয়তা পায়। ফলে সবার অজান্তেই একসময় লাইব্রেরি চত্বরটির নাম হয়ে যায়

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

৪১তম বিসিএস প্রিলিমিনারি পরীক্ষা ১৯ মার্চ

৪১তম বিসিএস প্রিলিমিনারি পরীক্ষা ১৯ মার্চ

সানশাইন ডেস্ক : ৪১তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা নির্ধারিত সময়ে নেয়ার পক্ষে মত দিয়েছে বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন। এই পরীক্ষা ১৯ মার্চ নেয়ার দিন ধার্য করেছে পিএসসি। বুধবার বিকেলে পিএসসিতে এক অনির্ধারিত সভায় যথাসময়ে এই পরীক্ষা নেয়ার মত দেয়া হয়। পরীক্ষা পেছানোর বিষয়ে এ অনির্ধারিত সভায় কোনো আলোচনা হয়নি। ২০১৯ সালের

বিস্তারিত