Daily Sunshine

স্বদেশ প্রত্যাবর্তনে রাজশাহীতে বঙ্গবন্ধুকে স্মরণ

Share

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহী ও আশেপাশের জেলা, উপজেলাতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালন করা হয়েছে। দিবসটিতে আওয়ামী লীগের বিভিন্ন জায়গায় উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, বঙ্গবন্ধুর ভাষণ সম্প্রচার, আলোচনাসভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।
নগর আ’লীগ : সকালে নগরীর কুমারপাড়াস্থ স্বাধীনতা চত্বরে বঙ্গবন্ধু সহ জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগ।
এ দিবস উপলক্ষে গৃহীত কর্মসূচীসমূহের মধ্যে ছিল সূর্যোদয়ের সাথে সাথে কুমারপাড়াস্থ দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, মাইকযোগে নগরীতে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ প্রচার, সকাল সাড়ে ১০টায় দলীয় কার্যালয়ের স্বাধীনতা চত্বরে বঙ্গবন্ধুসহ জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ। এরপর বেলা ১১টায় দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, রাজশাহী মহানগরের সভাপতি ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, রাজশাহী মহানগরের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, সহসভাপতি শাহীন আকতার রেনী, বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল, বীর মুক্তিযোদ্ধা নওশের আলী ও সাংগঠনিক সম্পাদক মীর ইসতিয়াক আহম্মেদ লিমন।
সভাপতির বক্তব্যে এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর ঢাকায় তৎকালিন রেসকোর্স ময়াদনে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর আত্মসমর্পনের মধ্যে দিয়ে তাদের পরাজয় স্বীকার করেছিলো। যার মধ্যে দিয়ে পৃথিবীর মানচিত্রে স্বাধীন দেশ হিসেবে বাংলাদেশ আত্মপ্রকাশ লাভ করে। বাঙ্গালী স্বীকৃতি পেয়েছিলো বীরের জাতি হিসেবে। বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের মধ্যে দিয়ে বাংলাদেশের স্বাধীনতা পূর্ণতা লাভ করে। ১০ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধুকে লক্ষ লক্ষ জনতা হৃদয় নিংড়ানো ভালোবাসায় বরণ করে নেয়। সেদিন ঢাকায় লক্ষ লক্ষ মানুষ সমাবেত হয়েছিলো মহান মুক্তিযুদ্ধের মহানায়ক, বাঙ্গালী জাতির স্বপ্নদ্রষ্টা ও সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে এক নজর দেখার জন্য এবং নেতার বক্তব্য শোনার জন্য।
তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু মাত্র তিন বছর সাত মাস দেশ পরিচালনা করেছিলেন। তিনি দেশ পূর্ণগঠনে অক্লান্ত পরিশ্রম করে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য কাজ করছিলেন ঠিক তখনই ষড়যন্ত্রকারীরা ষড়যন্ত্র শুরু করে দিলো। সেইসময় একদিকে জাসদ গণবাহিনী গঠন করে গুপ্ত হত্যা, এদেশীয় পাকিস্তানি এজেন্ট রাজাকার-আলবদররা মুসলিম বাংলা কায়েমের নামে দেশে নানান ষড়যন্ত্র মেতে উঠল। পাটের গুদামে আগুন দেওয়া, খাদ্য মজুদ করে খাদ্যের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে সরকারকে বেকায়দায় ফেলার নানান চক্রান্তে লিপ্ত হয়েছিলো। ঈদের নামাজে বোমা হামলা করে মানুষ হত্যা ও কুষ্টিয়ায় আওয়ামী লীগের এমপিকে হত্যা করে দেশের আইন শৃঙ্খলার অবনতি ঘটানো সহ নানা অপকর্মে লিপ্ত হয়েছিলো এই স্বাধীনতা বিরোধীরা। ঐ স্বাধীনতা বিরোধী শক্তিরা সু-কৌশলে বঙ্গবন্ধুর বিরুদ্ধে অপপ্রচার শুরু করেছিলো।
তিনি দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ বন্ধু তোফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া’র পত্রিকা দৈনিক ইত্তেফাক স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় যে গৌরবোজ্জ্বল ভূমিকা রেখেছিলো। স্বাধীনতার পরে মানিক মিয়ার মৃত্যুর পরবর্তী সময়ে সেই পত্রিকায় বঙ্গবন্ধুর পরিবার ও তার সরকারের বিরুদ্ধে কুৎসা রটনা করে সংবাদ পরিবেশ করে মানিক মিয়া’র কু-সন্তান মইনুল হোসেন এর প্রত্যক্ষ মদদে। কুড়িগ্রামের মানসিক ভারসাম্যহীন বাসন্তি’র শরীরে মাছ ধরার জাল পড়িয়ে দিয়ে সংবাদ পরিবেশন করে সরকারকে হেয় প্রতিপন্ন করার মতো নোংড়ামিতে মেতে উঠে দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকা। তাদের এহেন কর্মকান্ডই বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করার ক্ষেত্র তৈরী করে। ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার মধ্যে দিয়ে বাংলাদেশকে আবার পাকিস্তানি ভাবধারায় পরিচালিত করে। যার নেপথ্যের নায়ক ছিলো মেজর জিয়াউর রহমান। জিয়াউর রহমানের প্রত্যক্ষ মদদেই সেনাবাহিনীর উশৃঙ্খল সদস্যরা বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করে। জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধুর হত্যার দায় এড়াতে পারে না। কারণ জিয়াউর রহমানই বঙ্গবন্ধুর হত্যাকান্ডের সুবিধাভোগী।
তিনি আরও বলেন, একসময় যারা বাংলাদেশকে ভিক্ষুকের দেশ হিসেবে কটুক্তি করতো, আজকে তারা বাংলাদেশের উন্নয়নে সমীহ করছে। বিশ্বের কাছে বাংলাদেশ আজ একটি বিস্ময়। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা’র নেতৃত্বে বৈশ্বিক মহামারি করোনা মোকাবিলা করে বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন আজ বিশ্বের রোল মডেল হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে। যার কারণে ঐ পাকিস্তানিরা, যারা আমাদের দেশকে শোষণ করেছিলো, আমাদের নায্য অধিকার থেকে বঞ্চিত করেছিলো, ত্রিশ লক্ষ মানুষ হত্যা করেছিলো, তিন লক্ষ মা-বোনের সম্ভ্রমহানী করেছিলো, সেই পাকিস্তানির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান যখন বলেন, আমাকে একটি বাংলাদেশ বানিয়ে দাও। তার এই বক্তব্যের মধ্যে দিয়ে আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধে যে লক্ষ লক্ষ আত্মদান করেছিলো, তাঁদের আত্মা শান্তি পেয়েছে। এটাই বঙ্গবন্ধুর কন্যা, জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা’র নেতৃত্বে আমাদের অর্জন।
তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকলে আরও অনেক আগেই বাংলাদেশ পৃথিবীর উন্নত দেশে রুপান্তরিত হতো। বঙ্গবন্ধুর হত্যার পরে দেশ অনেক পিছিয়ে গেছিলো। দেশে গণতন্ত্র ও আইনের শাসন বলে কিছু ছিলো না। বঙ্গবন্ধুর কন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনা’র নেতৃত্বে বাংলার মানুষ গণতন্ত্র এবং ভোট ও ভাতের অধিকার পেয়েছে। তারা গণতন্ত্রের সুফল ভোগ করছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের শোষণমুক্ত সোনার বাংলা কায়েম হয়েছে। অতি স্বল্প সময়ের মধ্যে বাংলাদেশ উন্নত দেশে রুপান্তরিত হবে। যার যাত্রা অনেক আগেই শুরু হয়ে গেছে।
নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, দেশের চলমান উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে জননেত্রী শেখ হাসিনা’র হাতকে শক্তিশালী করার জন্য নেতৃত্বের প্রতি আস্থাশীল হয়ে দলীয় কর্মকান্ড পরিচালনা করতে হবে। দলীয় নেতৃত্বের ভুল-ক্রুটি নিয়ে দলীয় ফোরামে আলোচনা আহ্বান জানিসয়ে বলেন, জনসম্মুক্ষে নেতৃত্বের সমালোচনা থেকে বিরত থাকতে হবে এবং দল ও নেতৃত্বের ক্ষতি হয় এমন কোন বিষয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশিত না করার আহ্বান জানান।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, রাজশাহী মহানগরের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামাল, মাহফুজুল আলম লোটন, অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান বাদশা, রেজাউল ইসলাম বাবুল, ডাঃ তবিবুর রহমান শেখ, নাঈমুল হুদা রানা, বদরুজ্জামান খায়ের, যুগ্ম সম্পাদক মোস্তাক হোসেন, আসাদুজ্জামান আজাদ, কৃষি সম্পাদক মীর তৌফিক আলী ভাদু, দপ্তর সম্পাদক মাহাবুব-উল-আলম বুলবুল, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক ফিরোজ কবির সেন্টু, ধর্ম সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম জাহিদ, বন ও পরিবেশ সম্পাদক রবিউল আলম রবি, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা সফিকুর রহমান রাজা, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক মকিদুজ্জামান জুরাত, শিল্প ও বানিজ্য সম্পাদক ওমর শরীফ রাজিব, সাংস্কৃতিক সম্পাদক কামারউল্লাহ সরকার কামাল, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা সম্পাদক ডাঃ ফ ম আ জাহিদ, উপ-দপ্তর সম্পাদক পংকজ দে, কোষাধ্যক্ষ হাবিবুল্লাহ ডলার প্রমূখ।
জেলা আ’লীগ : রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের অয়োজনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করেছে। রাজশাহী কলেজে অবস্থিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিত্বে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগ।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক এমপি মেরাজ উদ্দিন মোল্লা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও বাঘা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এড. লায়েব উদ্দিন লাভলু, বাগমারা উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান জকিরুল ইসলাম সান্টু , আওয়ামী লীগ নেতা এড. আব্দুস সামাদ মোল্লাসহ সকল সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। পরে জাতির পিতার স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।
জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক এমপি মেরাজ উদ্দিন মোল্লার বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে সভাপতিত্বে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
যুব লীগ : বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী যুবলীগ বিভিন্ন কর্মসচি পালন করেছে। এ উপলক্ষে রোববার সকালে নগর স্বাধীনতা চত্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী মহানগর যুবলীগের সভাপতি রমজান আলী, সাধারণ সম্পাদক মোশারফ হোসেন বাচ্চু, যুগ্ম সম্পাদক তৌরিদ আল মাসুদ রনিসহ যুবলীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
রাবি : যথাযোগ্য মর্যাদায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৯তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উদযাপিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে রোববার সকাল সোয়া ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।
এ সময় বঙ্গবন্ধুর আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া ও এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। পরে বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ সিনেট ভবনে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।
আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান বলেন, বঙ্গবন্ধু বাঙালির মুক্তি সংগ্রামের ইতিহাসে এক ক্ষণজন্মা মহাপুরুষ, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি। এই মহান নেতার অনুপস্থিতিতে মুক্তিযুদ্ধে চূড়ান্ত জয়ের উল্লাস-উদ্দীপনায় যা অপূর্ণ ছিল, ১০ জানুয়ারি বাংলার মানুষ তাদের প্রিয় নেতাকে স্বদেশে ফিরে পাওয়ায় তা পূর্ণতা পায়। বঙ্গবন্ধু যে উন্নত সমৃদ্ধ সোনার বাংলাদেশ বিনির্মাণের স্বপ্ন দেখেছিলেন, সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নে সকল ষড়যন্ত্র প্রতিহত করে মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় ঐক্যবদ্ধভাবে আমাদের ভূমিকা রাখতে হবে। এসময় তিনি বলেন, জাতির পিতার স্বদেশ প্রতাবর্তন দিবসে আমাদের প্রতিজ্ঞা হোক, প্রয়োজনে সর্বোচ্চ আত্মত্যাগের বিনিময়ে হলেও ৩০ লক্ষ শহীদ ও ২ লক্ষ মা-বোনের সম্ভ্রমের বিনিময়ে অর্জিত স্বাধীনতাকে সমুন্নত রাখা।
এছাড়া দুপুর ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ ক্যাপ্টেন এম মনসুর আলী প্রশাসন ভবনের ৪০১ নং কক্ষে নব-নির্মিত ‘অফিস অব দি ইন্টারন্যাশনাল অ্যাফেয়ার্স’র উদ্বোধন করেন উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান।
রাজশাহী কলেজ : অনন্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে রাজশাহী কলেজে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালন করা হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মের উপর সৃজনশীল লেখা নিয়ে বিভিন্ন বিভাগ কর্তৃক নির্মিত দেয়ালিকা উৎসবের আয়োজন করা হয়। এছাড়াও অনুষ্ঠিত হয়েছে ভার্চুয়াল সেমিনার।
এদিন বেলা সাড়ে ১১টায় দেয়ালিকা উৎসব উদ্বোধন করেন কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মহা. হবিবুর রহমান। অনুষ্ঠানে বক্তব্য প্রদান করেন উপাধ্যক্ষ প্রফেসর মোহাঃ আব্দুল খালেক, শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক প্রফেসর ড. জুবাইদা আয়েশা সিদ্দীকা, শিক্ষক পরিষদের প্রাক্তন সম্পাদক প্রফেসর পিযুষ কান্তি ফৌজদার এবং সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক কমিটির আহবায়ক প্রফেসর ড. মোঃ ইব্রাহিম আলী।
উদ্বোধনী বক্তৃতায় অধ্যক্ষ প্রফেসর মহা. হবিবুর রহমান জাতির পিতার প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ধারণ ও লালন করার জন্য একটা মাইলফলক হিসেবে দেয়ালিকাগুলো শিক্ষার্থীদের বিশেষভাবে অনুপ্রাণিত করবে। এ সময় কলেজের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষকবৃন্দসহ দেয়ালিকার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট শিক্ষার্থী, বিভিন্ন গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব ও সুধীজন উপস্থিত ছিলেন।
পবা উপজেলা আ.লীগ: বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রর্তাবর্তন দিবস উপলক্ষে পবা উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে বিভিন্ন কর্মসুচি পালিত হয়েছে। রোববার র‌্যালি ও বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুলের শ্রদ্ধা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
এসব কর্মসুচিতে উপস্থিত ছিলেন পবা উপজেলা অওয়ামী লীগ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ইয়াসিন আলী, সাধারণ সম্পাদক মাজদার রহমান সরকার, সহসভাপতি গোলাম মোস্তফা, বেগম সুফিয়া হাসান, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক, দপ্তর সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, সহ দপ্তর সম্পাদক নজরুল ইসলাম, আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কালাম আজাদ, আলহাজ্ব ইয়াছিন আলী, জেবর আলী, আনছার আলী, উপজেলা আওয়ামী মহিলা লীগ সভাপতি নারিফা বেগম, সাধারণ সম্পাদক আফরোজা বেগম, যুব মহিলালীগ সভাপতি হাসিনা বেগম, সাধারণ সম্পাদক মুসলিমা আক্তার খুশি, সহসভাপতি শাহানাজ মুক্তা প্রমুখ।
মহানগর সৈনিক লীগ: বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগ রাজশাহী মহানগরের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন নেতৃবৃন্দ।
সৈনিক লীগ রাজশাহী মহানগর এর নব নির্বাচিত আহ্বায়ক কমিটির পক্ষ থেকে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগ পার্টি অফিসে বঙ্গবন্ধু চত্তরে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। এছাড়াও শহীদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামান এর সমাধীস্থলে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের আহ্বায়ক সুমন চৌধুরী, আইয়ুব আলী, খাজা খালেদ লিজার, এজাজ আহম্মেদ পিন্টু, শেখ ইমরান মিয়া, শাহিন ও শাহাদত হোসেন প্রমুখ।
রাজশাহী শিক্ষাবোর্ড : দিবসটি উপলক্ষে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড রাজশাহী কর্তৃক সকাল ১০টায় রাজশাহী শিক্ষাবোর্ড চত্বরে অবস্থিত বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। এরপর বোর্ড চত্বরে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক প্রফেসর হাবিবুর রহমান।
উক্ত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. মোহা. মোকবুল হোসেন। আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- রাজশাহী শিক্ষাবোর্ডের সচিব ড. মোয়াজ্জেম হোসেন, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক আরিফুল ইসলাম, উপপরিচালক (হিসাব ও নিরীক্ষা) বাদশা হোসেন, সিনিয়র সিস্টেম এনালিস্ট (চলতি দায়িত্ব) প্রকৌশলী মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম, অফিসার্স কল্যাণ সমিতির সভাপতি মুঞ্জুর রহমান খান ও সাধারণ সম্পাদক ওয়ালিদ হোসেন এবং কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি মোহা. হুমায়ুন কবীর ও সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব আলী। এ ছাড়াও বোর্ডের সকল স্তরের কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন।
প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন- এই দিনটি আমাদের জন্য বিশেষ আনন্দের। বিজয়ের আনন্দের পূর্ণতা লাভ করেছে আজকের এই দিনে। তিনি উপস্থিত সকলকে স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের শুভেচ্ছা জানান। তিনি বঙ্গবন্ধু এবং সকল শহিদদের আত্মার শান্তি কামনা করেন।
নর্থ বেঙ্গল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি : নর্থ বেঙ্গল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত হয়েছে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে দিবসটি উপলক্ষে সকাল ১০টায় রাজশাহী নগরীর বিনোদপুরে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ভবনে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ এবং আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।
আলোচনা সভায় ইউনিভার্সিটির উপাচার্য শিক্ষাবিদ প্রফেসর ড. আবদুল খালেকের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টিবোর্ডের চেয়ারম্যান নারীনেত্রী ও কথাশিল্পী অধ্যাপিকা রাশেদা খালেক। সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক জোনাব আলী, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের প্রধান ও প্রক্টর ড. আজিবার রহমান, আইন বিভাগের প্রধান ড. নাসরিন লুবনা, সহকারি প্রক্টর আব্দুল কুদ্দুস, যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের কো-অর্ডিনেটর আবু জার।
ছাত্রকল্যাণ উপদেষ্টা হাসান ঈমাম সুইট এর সঞ্চালনায় আলোচনা অনুষ্ঠানে রেজিস্ট্রার, বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান, কো-অর্ডিনেটর, শিক্ষক- কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
রাকাব : রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক (রাকাব) এর প্রধান কার্যালয় চত্ত্বরে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করেন প্রধান কার্যালয়ের নিরীক্ষা, হিসাব ও আদায় মহাবিভাগ এর মহাব্যবস্থাপক কামিল বুরহান ফিরদৌস।
এসময় রাকাব প্রধান কার্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের উপ-মহাব্যবস্থাপক/বিভাগীয় প্রধান, এইসিপি’র প্রকল্প পরিচালক, ব্যবস্থাপক, স্থানীয় মুখ্য কার্যালয়, রাজশাহী; রাকাব কর্মচারী সংসদ (সিবিএ) এর নেতৃবৃন্দসহ ব্যাংকের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারী।
একই সময় রাকাব কর্মচারী সংসদ (সিবিএ) এর পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে পুষ্পস্তবক অর্পনের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন সংসদের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সভাপতি এস এম আব্দুল হান্নান ও সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম ফজলে রাব্বী।
আরোও উপস্থিত ছিলেন রাকাব সিবিএর সহঃসাধারণ সম্পাদক আশরাফুল হক নিজামী, অর্থ সম্পাদক হাবিবুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক মিঠুন রায়, দপ্তর সম্পাদক আনোয়ার সাদাৎ সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। পরবর্তীতে বঙ্গবন্ধুর অঙ্গনের সামনে রক্ষিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পন করা হয় এবং অনুষ্ঠানের শেষে বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবার এবং স্বাধীনতা সংগ্রামে জীবন উৎসর্গকারী লাখো শহীদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করেন রাকাব প্রধান কার্যালয় মসজিদের পেশ ঈমাম সাইদুর রহমান।
বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ : রাজশাহীর উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত হয়েছে। রোববার দুপুর ২টায় নগরীর এ কমিউনিটি সেন্টারে দিবসটি উপলক্ষে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।
বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ কেন্দ্রিয় সম্মেলন প্রস্তুত কমিটির সদস্য ও রাজশাহী জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পিপি এ্যাডভোকেট ইব্রাহীম হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চ্যুয়ালি অনুষ্ঠানে বক্তব্য পেশ করেন বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের হিউম্যান রাইটস্ এন্ড লিগ্যাল এইন কমিটির চেয়ারম্যান ও বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ কেন্দ্রিয় সম্মেলন প্রস্তুত কমিটির সদস্য মোহাম্মদ মোখলেসুর রহমান বাদল।
অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাড. নুরুল ইসলাম সরকার( আসলাম সরকার), রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক আইন বিষয়ক সম্পাক এ্যাড. এজাজুল হক মানু, রাজশাহী মহানগর আওয়ামীলীগের আইন সম্পাদক এ্যাড. মুসাব্বিরুল ইসলাম, সিনিয়র আইনজীবী এ্যাড. মতিউর রহমান, এ্যাড. বজলে তৌহিদ আল হাসান বাবলা প্রমূখ। সভা পরিচালনা করেন এ্যাড. নাসরিন আখতার মিতা। সভায় বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করা হয়।
পবা উপজেলা আ.লীগ: বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রর্তাবর্তন দিবস উপলক্ষে পবা উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে বিভিন্ন কর্মসুচি পালিত হয়েছে। রোববার র‌্যালি ও বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুলের শ্রদ্ধা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
এসব কর্মসুচিতে উপস্থিত ছিলেন পবা উপজেলা অওয়ামী লীগ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ইয়াসিন আলী, সাধারণ সম্পাদক মাজদার রহমান সরকার, সহসভাপতি গোলাম মোস্তফা, বেগম সুফিয়া হাসান, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক, দপ্তর সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, সহ দপ্তর সম্পাদক নজরুল ইসলাম, আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কালাম আজাদ, আলহাজ্ব ইয়াছিন আলী, জেবর আলী, আনছার আলী, উপজেলা আওয়ামী মহিলা লীগ সভাপতি নারিফা বেগম, সাধারণ সম্পাদক আফরোজা বেগম, যুব মহিলালীগ সভাপতি হাসিনা বেগম, সাধারণ সম্পাদক মুসলিমা আক্তার খুশি, সহসভাপতি শাহানাজ মুক্তা প্রমুখ।
মহানগর সৈনিক লীগ: বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগ রাজশাহী মহানগরের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন নেতৃবৃন্দ।
সৈনিক লীগ রাজশাহী মহানগর এর নব নির্বাচিত আহ্বায়ক কমিটির পক্ষ থেকে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগ পার্টি অফিসে বঙ্গবন্ধু চত্তরে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। এছাড়াও শহীদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামান এর সমাধীস্থলে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের আহ্বায়ক সুমন চৌধুরী, আইয়ুব আলী, খাজা খালেদ লিজার, এজাজ আহম্মেদ পিন্টু, শেখ ইমরান মিয়া, শাহিন ও শাহাদত হোসেন প্রমুখ।
শ্রমিক লীগের আয়োজন: দিবসটি উপলক্ষে রাজশাহী জেলা জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি আলহাজ্ব মো: আবদুল্লাহ খানের নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধাঞ্জলী নিবেদন করা হয়। এসময় উপস্তিত ছিলেন রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদসাধারন, জেলা শ্রমিকলীগের সাধারণ সম্পাদক আজাদ আলী, আতাউর রহমান, আনোয়ার পাশা, আওয়ালসহ জেলা শ্রমিক লীগের নেতৃবৃন্দ।
নওগাঁ: নওগাঁয় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে রবিবার সকালে জেলা আওয়ামীলীগের দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। পরে দলীয় কার্যালয়ে বঙ্গবন্ধুসহ জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিত্বে পুষ্পমাল্য অর্পন, এক মিনিট নিরাবতা ও সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা মো: আব্দুল মালেক, সহ-সভাপতি নির্মল কৃষ্ণ সাহা ও সাবেক এমপি শাহিন মনোয়ারা হক, সাংগঠনিক সম্পাদক বিভাস মজুমদার গোপাল, যুবলীগের সাধারন সম্পাদক বিমান কুমার রায় প্রমৃখ।
বাগমারা: রবিবার সকালে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর কমপ্লেক্সের দলীয় কর্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। উপজেলা আ’লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ভবানীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আব্দুল মালেক মন্ডলের সভাপতিত্বে এবং উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ গোলাম সারওয়ার আবুলের পরিচালনায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনীর উপরে স্মৃতিচারণ মূলক আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।
এ বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আ’লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সিরাজ উদ্দীন সুরুজ, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদ, দপ্তর সম্পাদক নুরুল ইসলাম। এ সময় উপজেলা, ইউনিয়ন এবং পৌরসভা আ’লীগের ও অংগ সহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
ভোলাহাট: দিবসটি উপলক্ষে মেডিকেল মোড় মুজিব চত্বরে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ডাঃ আশরাফুল হক চুনুর সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ইয়াসিন আলী শাহ, আওয়ামীলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রাব্বুল হোসেন, জেলা আওয়ামীলীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক ও জেলা পরিষদ সদস্য হোসনে আরা পাখি, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান গরিবুল্লাহ দবির প্রমুখ।
এক্সিম ব্যাংক কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়: বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক (পিআরডি) ড. মোঃ সোহেল আল বেরুনী-এর পরিচালনায় ভার্চুয়াল প্লাটফর্ম জুমের মাধ্যমে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এবিএম রাশেদুল হাসান।
বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ও ট্রেজারার (অ.দা) জনাব মোঃ শাহরিয়ার কবির, ও আইন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান এসএম শহীদুল ইসলাম। সভাপতিত্ব করেন কৃষি অনুষদের ডীন ও রেজিষ্ট্রার (অ.দা) ড. মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন। আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) জনাব মোঃ মকবুল হোসেন, ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ড. মোস্তফা মাহমুদ হাসান, কৃষি অর্থনীতি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ড. আশরাফুল আরিফ সহ সকল শিক্ষক, কর্মকর্তা ও শিক্ষার্থীবৃন্দ।
কুড়িগ্রাম: এদিন কুড়িগ্রামে জেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে দলীয় কার্যালয়ে দলটি ও এর অঙ্গ সংগঠন বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে মাল্যদান, আলোচনা সভা ও দোয়ার অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো:জাফর আলী (সাবেক এমপি), জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আমান উদ্দিন আহমেদ মঞ্জু, নবনির্বাচিত আওয়ামী লীগের পৌর মেয়র কাজিউল ইসলাম প্রমুখ।
বড়াইগ্রাম: নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলা পরিষদ এই কর্মসূচীর আয়োজন করে। প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ডাঃ সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারী উপস্থিত ছিলেন। আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুস সোবাহানে সভাপতিত্বে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল উনুষ্ঠিত হয়।
এনবিআইইউ: নর্থ বেঙ্গল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে যথাযাগ্য মর্যাদায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত হয়েছে। আলোচনা সভায় ইউনিভার্সিটির উপাচার্য বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ প্রফেসর ড. আবদুল খালেকের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টিবোর্ডের চেয়ারম্যান নারীনেত্রী ও কথাশিল্পী অধ্যাপিকা রাশেদা খালেক। বক্তব্য রাখেন, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক জোনাব আলী, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের প্রধান ও প্রক্টর ড. আজিবার রহমান, আইন বিভাগের প্রধান ড. নাসরিন লুবনা, সহকারি প্রক্টর আব্দুল কুদ্দুস, যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের কো-অর্ডিনেটর আবু জার। ছাত্রকল্যাণ উপদেষ্ঠা হাসান ঈমাম সুইট এর সঞ্চালনায় আলোচনা অনুষ্ঠানে রেজিস্ট্রার, বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান, কো-অর্ডিনেটর, শিক্ষক- কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
নাচোল: রবিবার আওয়ামীলীগ নাচোল উপজেলা শাখার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আবুল হোসেনের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র আব্দুর রশিদ খাঁন ঝালু, সাধারণ সম্পাদক আনারুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এ,কে জোহা পলাশ, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল হালিম, নেজামপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক চেয়ারম্যান নিতাই চন্দ্র বর্মন প্রমুখ।

জানুয়ারি ১১
০৫:৪৮ ২০২১

আরও খবর

বিশেষ সংবাদ

পাথর কুড়িয়ে চলে সংসার

পাথর কুড়িয়ে চলে সংসার

স্টাফ রিপোর্টার, রাবি : ভোর ছয়টা। মাঘের কনকনে শীত। কুয়াশার চাদরে আবৃত চারপাশ। রোদ নেই, উল্টো মৃদু বাতাস বইছে। বাংলাবান্ধা ইউনিয়ন সংলগ্ন জিরো পয়েন্ট স্থলবন্দরের পাশে মহানন্দা নদীতে নিজেদের কাজে ব্যস্ত সময় পার করছেন শত শত শ্রমিক। নদীর স্বচ্ছ জলে তারা সকলেই পাথর কুড়োচ্ছেন। হিমালয় থেকে উদ্ভূত হয়ে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

৪১ও ৪২তম বিসিএস পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা

৪১ও ৪২তম বিসিএস পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা

সানশাইন ডেস্ক : ৪১তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি এবং ৪২তম বিশেষ বিসিএসের এমসিকিউ পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা করেছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। আগামী ১৯ মার্চ সকাল ১০টা থেকে ১২টা পর্যন্ত ৪১তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, সিলেট, রংপুর ও ময়মনসিংহ কেন্দ্রে একযোগে হবে। তার আগে আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি বিকাল ৩টা

বিস্তারিত