Daily Sunshine

চাঁ’নবাবগঞ্জে চার ব্যবসায়ীর চাল আমদানী হয়নি, বাজার উদ্ধমুখী

Share

স্টাফ রিপোর্টার, শিবগঞ্জ: চাঁপাইনবাবগঞ্জের ৪টি সহ দেশে আরো ১৯টি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে ২ লাখ ২৫ হাজার টন চাল আমদানির অনুমতি দিয়েছে সরকার।
তবে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে চাঁপাইনবাবগঞ্জের অনুমতি পাওয়া এসব ব্যবসায়ী ৩৫ হাজার টন চাল আমদানীর অনুমতি পেলেও এখনও কোন চাল আমদানীর এলসি খোলেননি তারা।এদিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জের চালের বাজারে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে,চালের দাম নতুন করে না বাড়লেও গত এক সপ্তাহ আগের বর্র্ধিত দামেই চাল বিক্রি হচ্ছে।
চাঁপাইনবাবগঞ্জে আমদানীর অনুমতি প্রাপ্ত মেসার্স হোসেন ট্রেডার্স ১০ হাজার টন, মেসার্স ইসলাম ট্রেডার্স ৫ হাজার টন, মেসার্স নবাব ফুড প্রোডাক্টস ১০ হাজার টন এবং মেসার্স নজরুল সুপার রাইস মিল ১০ হাজার টন চাল আমদানির অনুমতি পেয়েছে।কিন্তু এসব প্রতিষ্ঠানের কেউই বিভিন্ন অজুহাতে চাল আমদানী করছেনা।
চাল আমদানির শর্তে বলা হয়েছে, বরাদ্দপত্র ইস্যুর সাত দিনের মধ্যে ঋণপত্র (এলসি) খুলতে হবে। এ-সংক্রান্ত তথ্য খাদ্য মন্ত্রণালয়কে তাৎক্ষণিকভাবে জানাতে হবে। ব্যবসায়ীদের মধ্যে যারা ৫ হাজার টন বরাদ্দ পেয়েছেন, তাদের এলসি খোলার ১০ দিনের মধ্যে ৫০ শতাংশ এবং ২০ দিনের মধ্যে পুরো চাল বাজারজাত করতে হবে। এছাড়া যেসব প্রতিষ্ঠান ১০ থেকে ৫০ হাজার টন বরাদ্দ পেয়েছে তাদের এলসি খোলার ১৫ দিনের মধ্যে ৫০ শতাংশ এবং ৩০ দিনের মধ্যে সব চাল এনে বাজারজাত করতে হবে শর্ত দিয়েছে খাদ্য মন্ত্রণালয়।কিন্তু চাঁপাইনবাবগঞ্জের ব্যবসায়ীরা এখনও চাল আমদানীর কোন উদ্যোগ নিচ্ছেননা।
এ ব্যাপারে নবাব ফুড প্রোডাক্টস এর সত্তাধিকারী মো: আকবর হোসেন জানান, তিনি অনুমতি পাবার পর ভারতে খোঁজ নিয়ে জানতে পেরেছেন ভারতের বাজারে বস্তাপ্রতি ২৮ জাতের চালের দাম ২১শ টাকা থেকে ৩শ টাকা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৪শ টাকায়।এছাড়া ভারতে চাল আমদানীর অর্ডার দেয়া হলে ট্রাফিক জামের কারনে সে চাল আসতে আরও ১৫ দিন লেগে যাবার সমভাবনা থাকায় তিনি এখনও চাল আমদানী শুরু করতে পারেননি।
অন্যদিকে নজরুল অটো রাইস মিলের সত্তাধিকারী জানান, সরকারের এত অল্প সময়ে বেধে দেয়া শর্ত মেনে আমাদের পক্ষে চাল আমদানী করা অসম্ভব।এরপরও আমি দেড় হাজার টন সোনামসজিদ বন্দর দিয়ে আমদানী করেছি।ভারতে আমাদের প্রতিনিধি করোনার কারনে ঢুকতে না পারায় চাল কেনা সম্ভব হয়নি।তাই চাল আমদানী করতে পারিনি।
এদিকে সোনামসজিদ বন্দর পরিচালনাকারী পানামা পোর্ট লিংক লিমিটেডের অপারেশন ম্যানেজার কামাল হেসেন জানান, সোনামসজিদ বন্দর দিয়ে এখন পর্যন্ত কোন চাল আমদানী হয়নি।তবে আমদানীকারক নজরুলের চাল আমদানীর বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি দাবী করেন কোন আমদানীকারকের কোন চাল এ বন্দরে প্রবেশ করেনি।
এদিকে জেলার বিভিন্ন পাইকারী বাজারগুলোতে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে।গত সপ্তাহে চালের দাম কেজি প্রতি ৩-৪ টাকা বাড়লেও বর্তমানে বাড়তি দামেই চাল বিক্রি হচ্ছে। তবে চাল আমদানী না হলে মিলাররা চালের দাম যেকোন মুহুর্তে আবারো বাড়িয়ে দিতে পারে।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরের পুরাতন বাজারের চালের পাইকারী ব্যবসায়ী টি ইনসান জানান, গত এক সপ্তাহে নতুন করে চালের দাম না বাড়লেও গত সপ্তাহের বর্তিত দামেই বর্তমানে তিনি চাল বিক্রি করছেন।তিনি চিকন ২৮ জাতের ৫০ কেজি বস্তার চাল ২৮শ, মিনিকেট ৩ হাজার টাকা, মোটা স্বর্ণা জাতের ২ হাজার ১৫০ টাকা এবং আতব চাল রকম ভেদে কেজি প্রতি ৮৪ থেকে ৮৬ টাকা দরে বিক্রি করছেন।
চাল আমদানির শুল্ক ৬২ দশমিক ৫০ শতাংশ থেকে ২৫ শতাংশে কমিয়ে লাগামহীন চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে গত ৩ জানুয়ারি ১ লাখ ৫ হাজার টন সিদ্ধ চাল আমদানির জন্য ১০টি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে এবং পরে চাঁপাইনবাবগঞ্জের ৪টিসহ ১৯টি প্রতিষ্ঠানকে চাল আমদানীর অনুমতি দিয়েছিল খাদ্য মন্ত্রণালয়।

জানুয়ারি ১১
০৫:৩৪ ২০২১

আরও খবর

বিশেষ সংবাদ

পা নেই তবুও ফুডপান্ডার রাইডার পলাশ

পা নেই তবুও ফুডপান্ডার  রাইডার পলাশ

আসাদুজ্জামান নূর : রাজশাহী নগরীর উপশহরে প্রসিদ্ধ মাষকলাই রুটির দোকান ‘কালাই হাউজ’। দোকানের সামনে হুইল চেয়ারে বসে আছেন এক প্রতিবন্ধী যুবক। একটি পা নেই, আরেকটি অক্ষম। চেয়ারের পেছনে ফুডপান্ডার খাবার বহন করার ব্যাগ। কিছুক্ষণ পরেই দোকানের এক কর্মচারী কালাইরুটি ও অন্যান্য খাবার নিয়ে এলেন। ভরে দিলেন হুইল চেয়ারের পেছনের ব্যাগে।

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

৪০তম বিসিএস লিখিত পরীক্ষার ফল প্রকাশ

৪০তম বিসিএস লিখিত পরীক্ষার ফল প্রকাশ

সানশাইন ডেস্ক : ৪০তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে। বুধবার (২৭ জানুয়ারি) ফল প্রকাশ করে সরকারি কর্মকমিশন (পিএসসি)। লিখিত পরীক্ষায় পাস করেছেন ১০ হাজার ৯৬৪ জন। পরীক্ষা অংশ নেন ২০ হাজার ২৭৭ জন প্রার্থী। পাস করা ওই প্রার্থীরা এখন মৌখিক পরীক্ষা দেবেন। প্রায় এক বছর পর এই ফল

বিস্তারিত