Daily Sunshine

শিবগঞ্জকে আধুনিক পৌরসভা গড়ার ঘোষণা মেয়র রাজিনের

Share

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি: চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ পৌরসভা। এটিকে আধুনিক পৌরসভা হিসেবে গড়ে তোলার ঘোষণা দিয়েছেন বর্তমান মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এআরএম আজরি মোহাম্মদ কারিবুল হক রাজিন।
এজন্য তৃণমূল থেকে কেন্দ্র পর্যন্ত সবার সহযোগিতা চেয়েছেন শিবগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক এ সভাপতি। বৃহস্পতিবার বিকেলে একান্ত সাক্ষাৎকারে সানশাইনকে এ কথা জানান মেয়র।
মেয়র রাজিন বলেন, আমি প্রাচীনতম জনপদ এ জনপদকে নিয়ে নানা স্বপ্ন দেখি। শিবগঞ্জকে পরিকল্পিত আধুনিক স্বপ্নের শহর হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। আমি বিশ্বাস করি, বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর যে আন্তরিকতা রয়েছে এবং পৌরসভার নাগরিকরা ত্যাগ স্বীকার করে আন্তরিক সহযোগিতা করলে অভীষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছা খুব কঠিন হবে না। ইতোমধ্যে শহর উন্নয়নে মহাপরিকল্পনা প্রণয়নের কার্যক্রম শুরু করেছি।
তিনি বলেন, আমার ইচ্ছা বা আন্তরিকতার কোনো অভাব নেই। গত পাঁচ বছরে আমার সাধ্যমত চেষ্টা করেছি পৌর এলাকার উন্নয়নে। উন্নয়নের অনেককাজ শুরু করেছি নতুনভাবে, সে কাজগুলো ও আমার অসমাপ্ত স্বপ্নপূরণে আসন্ন নির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন নিয়ে নির্বাচনে জয়ী হতে মাঠেও থাকবো, ইনশাআল্লাহ।
শিবগঞ্জকে আধুনিক শহরে রূপান্তর করতে প্রথমে কোন বিষয়ে গুরুত্ব দেবেন বা এ বিষয়ে আপনার কোনো পরিকল্পনা রয়েছে জানতে চাইলে রাজিন বলেন, অর্থনীতি, শিল্প-সাহিত্য, সংস্কৃতি থেকে সবক্ষেত্রেই সমৃদ্ধ এ উপজেলা। এজন্য ঐতিহ্যের সমন্বয়ে আধুনিকভাবে গড়ে তোলা হবে শিবগঞ্জ পৌরসভাকে।
রাজিনের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনার মধ্যে রয়েছে সরু রাস্তাগুলো প্রশস্তকরণ, বিনোদনের জন্য ১টি আধুনিক পার্ক, একটি আধুনিক বাসস্ট্যান্ড নির্মাণ, যানজট নিরসন, অপরাধ দমনে ও শহরের বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় মনিটরিং করতে সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হবে। বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন কার্যক্রম হাতে নেয়া হয়েছে।
উল্লেখ্য, কারিবুল রাজিন আওয়ামী লীগের মনোনয়নে ২০১১ সালের নির্বাচন করে তিনি সামান্য ব্যবধানে সেবার বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীর কাছে পরাজিত হন। এরপর ২০১৩ সালে রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার হয়ে সন্ত্রাসী হামলায় একটি পা হারান মেয়র রাজিন। পরবর্তীতে ২০১৫ সালে প্রথমবারের মত দলীয় প্রতীকে প্রথমবারের মতো পৌর নির্বাচনে রাজিনকে সরিয়ে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পান ময়েন খান।
তবে ময়েন খান একেবারেই জনবিচ্ছিন্ন নেতা ও নতুন প্রার্থী হওয়ায় সে সময় স্থানীয় আওয়ামী লীগের একটি অংশ তা মেনে নিতে পারেননি। ফলে একাংশের নেতাকর্মীদের চাপে রাজিন স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নেন এবং মেয়র নির্বাচিত হন। নির্বাচনে রাজিনের জনপ্রিয়তার কাছে ধরাশায়ী হন বিএনপির প্রার্থী সফিকুল ইসলাম, জামায়াতের প্রার্থী সাবেক মেয়র জাফর আলী।
অপরদিকে নৌকার মনোনয়ন নিয়ে জামানত হারান ময়েন খান। ইতোমধ্যে নির্বাচন কমিশন আগামী ডিসেম্বরে পৌর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভাব্য সময় ঘোষণা করেছেন। নির্বাচনের সময় যতই এগিয়ে আসছে ততই সরব হয়ে উঠছেন মেয়র পদ প্রত্যাশীরা।
এবার অন্য দলের একাধিক পদপ্রত্যাশীর পাশাপাশি মেয়রের পদ পেতে আওয়ামী লীগেরও একাধিক নেতা মাঠে ছুটছেন।
আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে অন্যতম গত নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে বিজয়ী বর্তমান মেয়র কারিবুল হক রাজিন।

নভেম্বর ২০
০৬:৩১ ২০২০

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

শীতের আমেজে আহা…ভাপা পিঠা

শীতের আমেজে আহা…ভাপা পিঠা

রোজিনা সুলতানা রোজি : প্রকৃতিতে এখন হালকা শীতের আমেজ। এই নাতিশীতোষ্ণ আবহাওয়ায় ভাপা পিঠার স্বাদ নিচ্ছেন সবাই। আর এই উপলক্ষ্যটা কাজে লাগচ্ছেন অনেক ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী। লোকসমাগম ঘটে এমন মোড়ে ভাপা পিঠার পসরা সাজিয়ে বসে পড়ছেন অনেকেই। ভাসমান এই সকল দোকানে মৃদু কুয়াশাচ্ছন্ন সন্ধ্যায় ভিড় জমাচ্ছেন অনেক পিঠা প্রেমী। রাজশাহীর বিভিন্ন

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

৭ ব্যাংকের সমন্বিত নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত

৭ ব্যাংকের সমন্বিত নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত

সানশাইন ডেস্ক: সাত ব্যাংকের সিনিয়র অফিসার পদের সমন্বিত নিয়োগ পরীক্ষা (২০১৮ সালভিত্তিক) স্থগিত করা হয়েছে। আগামী ৫ ডিসেম্বর রাজধানীর ৬৭টি কেন্দ্রে এ পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল। শনিবার (২৮ নভেম্বর) ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটির (বিএসসি) সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। যে সাতটি ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষার স্থগিত করা হয়েছে সেগুলো হলো হলো—সোনালী

বিস্তারিত