Daily Sunshine

রাজশাহীতে বাঁচার আশা’র এ্যাডভোকেসি অনুষ্ঠিত

Share

প্রেস বিজ্ঞপ্তি: রাজশাহীতে বাঁচার আশা সংগঠনের আয়োজনে জেলা পর্যায়ে এ্যাডভোকেসী সভা অনুষ্ঠিত হয়। নগরীর অলকার মোড়ে একটি চাইনিজ রেস্টুরেন্টে দি এশিয়া ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় এসো গড়ি সম্প্রিতির বন্ধন প্রকল্পের মাধ্যমে ধর্মীয় দ্বন্দ, সহিংসতা বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধি ও সমাজের পিছিয়ে পড়া তৃতীয় লিঙ্গের জনগোষ্ঠির নিজ ধর্ম পালনের অধিকার বাস্তবায়নে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় সভাপতিত্ব করেন বাঁচার আশা সংগঠনের সভাপতি মোস্তফা সরকার বিজলী। প্রধান অতিথি ছিলেন রাজশাহী সমাজ সেবা কার্যালয়ের উপপরিচালক হাসিনা মনতাজ। বিশেষ অতিথি ছিলেন সোনার দেশ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আকবারুল হাসান মিল্লাত, রাসিক সংরক্ষিত নারী আসন জোন-৭ এর কাউন্সিলর উম্মে সালমা বুলবুলি, হাফেজ মাওলানা আনোয়ার হোসেন, বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ, খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদ রাজশাহী জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক শ্যামল কুমার ঘোষ, রাজশাহী ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক সেকেন্দার আলী ও দি এশিয়া ফাউন্ডেশনের সিনিয়র প্রোগ্রাম অফিসার তাহেরুল ইসলাম।
এছাড়াও ব্লাস্ট রাজশাহীর সমন্বয়কারী এ্যাডভোকেট সামিয়া বেগম শিরিন, দিনের আলো হিজড়া সংঘের সভাপতি মোহনা, দি এশিয়া ফাউন্ডেশনের প্রজেক্ট অফিসার মাহমুদা সুলতানা, মিতা সরকার ও মোশাররফ হোসেন এবং সিনিয়র প্রোগ্রাম অফিসার জিলহাজ আযম চৌধুরীসহ হিজড়া সম্প্রদায়ের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সোনালী দিন মানব কল্যাণ সংস্থার সভাপতি রায়হানুল হক ও দিনের আলো হিজড়া সংঘের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জয়িতা পলি।
সভায় হিজড়াদের ধর্ম পালনের বাধা প্রদান না করে সহযোগিতা করার কথা বলা হয়। সেইসাথে হিজড়াদের একটি রুপ ধারণ করার পরামর্শ প্রদান করেন উপস্থিত অতিথিবৃন্দ। তারা বলেন, একই ব্যক্তি একবার নারী এবং আরেকবার পুরুষ রুপ ধারণ করলে ধর্মীয় ক্ষেত্রেও যেমন সমস্যা, তেমনি পিতার সম্পদের ওয়ারিশনেও সদস্যা দেখা দেবে। তারা আরো বলেন, দেশে বর্তমানে হিজড়াদের ধর্মীয় ও কোরআন শিক্ষার জন্য একটি মাদ্রাসা হয়েছে। প্রয়োজনে প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় তাদের জন্য মাদ্রাসা করা যেতে পারে বলে জানান তারা।

নভেম্বর ২০
০৬:২৯ ২০২০

আরও খবর