Daily Sunshine

হরেক প্রজাতির ফুল-ফলে ঠাসা শামীম আরার ছাদবাগান

Share

আসাদুজ্জামান নূর : করমচা, কামরাঙ্গা, কমলা, কদবেল, ড্রাগন, মিষ্টি তেঁতুল, থাইড্রপ আম, তেঁতুল, থাই জাম, বেদানা, অভিসারিকা আম, সুইট লেমন- নামগুলো পড়েই হয়তো অনেকের জিভে জল আসবে। এগুলো সামনে পেলে কি করবেন; হয়তো ভাবছেন অনেকেই। অনেকেই বলবেন, এতগুলো ফল একসাথে? ফলের দোকানে বুঝি? না; ফলের দোকানে নয়, বাড়ির ছাদে। হ্যাঁ; রাজশাহীর গৃহবধু শামীম আরার বাড়ির ছাদে এই ফলসাম্রাজ্যের দেখা মিলবে।
এখানেই শেষ নয়, প্রায় ৮০ রকমের ফুল-ফলের গাছ নিয়ে বাড়ির ছাদে সবুজ বাগান করেছেন নগরীর মহিষবাথান এলাকার গৃহবধু শামীম আরা। তাক লাগিয়েছেন সবাইকে। তার ছাদটি যেন এক টুকরো ফলবাগান। সবুজ গ্রাম বললেও ভুল হবে না।
থরে থরে সবুজ গাছপল্লবে সাজানো পুরো ছাদ। উপরে উল্লেখিত ফল ছাড়াও তার ছাদ বাগানে জাম, জামরুল, এলাচী লেবু, ব্যানানা ম্যাংগো, পেঁপে, গৌড়মতি আম, সফেদা, মরিচ, কাগজি লেবু, মিষ্টি জলপাই, বাতাবি লেবু, নাশপাতি, বিভিন্ন ধরনের পেয়ারা, কমলা, কালো পাতার ব্ল্যাক বক্স আম, কলা, দেশি জাম ও অরুনা আমসহ আরও অনেক ফলের গাছ রয়েছে।
শুধু ফল নয়, রয়েছে বিভিন্নরকম ফুল ও মসলার গাছ। ছাদের কোনায় কোনায় স্থান করে নিয়েছে অল স্পাইস, তেজপাতা, দারুচিনি, গোলাপজামনসহ আরও বেশ কিছু মসলাজাতীয় গাছ। প্রায় ৮০ প্রজাতির শোভাবর্ধনকারী গাছ বাড়িয়ে দিয়েছে এই বাগানের সৌন্দর্য। এগুলোর মধ্যে নীল অপরাজিতাসহ বিভিন্ন রঙের অপরাজিতা, ফায়ার বল, বিভিন্ন ধরনের জবা, এ্যাডেনিয়াম, এলামুন্ডা, ৩০ থেকে ৩৫ প্রজাতির গোলাপ, লাইলী-মজনু, বিভিন্ন ধরনের পাতা বাহার, সাইকাস, এ্যারোমেটিক জুঁই, টগর, কামিনী, মধুমালতি, মাধবীলতা, বিভিন্ন ধরনের অর্কিড ও ক্যাকটাস উল্লেখযোগ্য।
প্রশ্ন জাগতে পারে, ছোট ছাদে এত গাছ কিভাবে সম্ভব? এগুলো সম্ভব করেছে বনসাই। এগুলো গাছের বনসাই করে চাষ করছেন শামীম আরা। এমন পরিশ্রমের ফল পেয়েছেন তিনি। কাজের স্বীকৃতিস্বরুপ পেয়েছেন পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের পুরস্কার। ২০১৫ সালে প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে দেশসেরার পুরস্কার গ্রহণ করেছেন তিনি।
শামীম আরা জানান, শৈশব থেকেই গাছের প্রতি তার প্রচন্ড দুর্বলতা ছিল। সেই ভালোলাগা থেকেই এই শখের বাগান। বিয়ের পর স্বামী শিহাব উদ্দীনের অনুপ্রেরণা ও সহযোগিতায় বাড়ির ছাদে গাছ লাগাতে শুরু করেন তিনি। ২০১১ সালের শেষের দিকে মাত্র কয়েকটি ফুল-ফল এবং সবজির গাছ দিয়ে বাগান শুরু করেন। ধীরে ধীরে বেড়েছে বাগানের পরিসর।
শামীম আরা জানান, শারীরিক অসুস্থতার কারণে বর্তমানে স্বামী শিহাব উদ্দিনই বাগানের পরিচর্যায় সময় বেশি দেন। তিনি অবসরপ্রাপ্ত ব্যাংক কর্মকর্তা। বাগানের পরিচর্যা করেই এখন সময় কাটে তাদের। বাগান পরিচর্যায় তাদের সঙ্গী হয়েছেন ছোট্ট ভাতিজি মেহেক।
শামীম আরার স্বামী শিহাব উদ্দীন জানান, সারাবছর পরিবারে সবজি ও ফলের চাহিদা মেটে এই ছাদবাগান থেকে। সেইসাথে আতিথেয়তা তো আছেই। অবসরের পর পুরো সময়টাই তিনি বাগানের পরিচর্যায় লাগান।
বাগান প্রক্রিয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে শিহাব উদ্দীন বলেন, ছাদে বাগান করার ক্ষেত্রে মাটি পাওয়ার বিষয়টি বেশ সমস্যায় ফেলে। পদ্মা নদীর পলিমাটি সংগ্রহ করা হয়। সেই মাটির সঙ্গে গোবর, মিশ্র সার যোগ করা হয়। এরপরে সেখানে গাছ লাগানো হয়।
রাজশাহী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক শামসুল হক বলেন, ছাদে বাগান তৈরি খুবই পরিশ্রমের বিষয়। শামীম আরা ছাদ বাগান তৈরির মডেল। তিনি নিয়মিত বাগানের পরিচর্যা করেছেন। সাফল্য পেয়েছেন। ২০১৫ সালে পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয় থেকে জাতীয়ভাবে তাকে পুরস্কৃত করা হয়েছে।
তিনি বলেন, রাজশাহী মহানগরের প্রায় দুই শতাধিক বাড়ির ছাদে ফুল ও ফলের চাষ করা হয়। বিশেষ করে নগরের আমচত্বর, পাঠান পাড়া, হেতেম খান, লক্ষীপুর, পুলিশ লাইন, কোর্ট স্টেশন, মহিষ বাথান উত্তরপাড়া- এইসব এলাকার বাসিন্দারা বেশি বেশি ছাদ বাগান গড়ে তোলেন। ছাদে চাষ করেন ফুল ও ফলের।
তিনি আরও বলেন, ছাদ বাগান কৃষির একটি বড় সুবিধা। ইতোপূর্বে আমরা ছাদ বাগানের জন্য অনেককেই পরামর্শ দিয়েছি। ছাদ বাগানে কিছু বিশেষ ধরনের পোকামাকড় আক্রমণ করে। এগুলো দমনের কৌশলগুলো নিয়ে তাদেরকে পরামর্শ দিয়েছি। এছাড়া ছয় মাস পূর্বে নগরীর ১০০ ছাদ বাগান চাষিদের নিয়ে একটি কর্মশালার আয়োজন করেছি। ছাদবাগান করতে আগ্রহীদের সবধরণের সহায়তা করার আশ্বাস দেন এই কর্মকর্তা।

নভেম্বর ১২
০৮:০৪ ২০২০

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

শীতের আমেজে আহা…ভাপা পিঠা

শীতের আমেজে আহা…ভাপা পিঠা

রোজিনা সুলতানা রোজি : প্রকৃতিতে এখন হালকা শীতের আমেজ। এই নাতিশীতোষ্ণ আবহাওয়ায় ভাপা পিঠার স্বাদ নিচ্ছেন সবাই। আর এই উপলক্ষ্যটা কাজে লাগচ্ছেন অনেক ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী। লোকসমাগম ঘটে এমন মোড়ে ভাপা পিঠার পসরা সাজিয়ে বসে পড়ছেন অনেকেই। ভাসমান এই সকল দোকানে মৃদু কুয়াশাচ্ছন্ন সন্ধ্যায় ভিড় জমাচ্ছেন অনেক পিঠা প্রেমী। রাজশাহীর বিভিন্ন

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

রাজশাহী মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে স্থগিত নিয়োগ পরীক্ষার সূচি প্রকাশ

রাজশাহী মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে স্থগিত নিয়োগ পরীক্ষার সূচি প্রকাশ

সানশাইন ডেস্ক : রাজশাহী মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের গত ৩ এপ্রিলের স্থগিতকৃত নিয়োগ পরীক্ষার নতুন সময়সূচি প্রকাশ করা হয়েছে। আগামী ৪ ডিসেম্বর শুক্রবার সকাল ১০টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত সেকশন অফিসার ও পাবলিক রিলেশন অফিসার পদের লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। একই দিন দুপুর ১২টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত ব্যক্তিগত কর্মকর্তা পদের লিখিত

বিস্তারিত