Daily Sunshine

রবিশস্যে স্বপ্ন দেখছেন রাজশাহীর কৃষক

Share

আবু সাঈদ রনি : ভাগ্য বদলের আশায় আগামজাতের শীতকালীন সবজি চাষ করছেন রাজশাহীর অধিকাংশ কৃষক। শীতের আগমনে ব্যস্ততা বেড়েছে সবজি গাছের রক্ষণাবেক্ষণে। দাম ভালো পাওয়ায় চাষীদের মুখেও ফুটছে তৃপ্তির হাসি।
সরেজমিনে দেখা যায়, শীত পুরোপুরি না এলেও বাজারগুলো সেজেছে হরেক রকম সবজিতে। কৃষকরাও ব্যস্ত সবজি তোলা, কীটনাশক দেওয়া ও আগাছা পরিষ্কারের কাজে। ফুলকপি, বাঁধাকপি, শিম, টমেটো, লাউ, মূলা, মিষ্টিকুমড়াসহ বিভিন্ন জাতের সবজিতে নয়নাভিরাম দৃশ্য বিরাজ করছে ফসলের মাঠে।
রাজশাহী জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, ২০১৯-২০ মৌসুমে জেলায় ১২ হাজার ৯২৫ হেক্টর জমিতে সবজি চাষাবাদ হয়। চলতি ২০২০-২১ মৌসুমেও সমপরিমাণ জমিতে সবজি চাষের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে। এ পর্যন্ত ১০ হাজার ২৩৩ হেক্টর জমিতে সবজির চাষ হয়েছে। এ বছর সবজির চাষের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাবে বলেও আশা করেন জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর।
জেলায় সর্বোচ্চ ৩ হাজার ২৫৮ হেক্টর জমিতে টমেটোর চাষ হয়েছে। এছাড়াও লাল শাক ৫৩৪ হেক্টর, পালং শাক ২২৪ হেক্টর, পুঁই শাক ২০৩ হেক্টর, ডাটা শাক ১৩০ হেক্টর, চাল কুমড়া ৮৭ হেক্টর, কলমি শাক ৭৭ হেক্টর, ধনে পাতা ৫৮ হেক্টর, ধুন্দল ২০ হেক্টর, মটরশুটি ২০ হেক্টর, চিচিঙ্গা ১ হেক্টর এবং ওলকপি ৪ হেক্টর।
চাষাবাদের বিষয়ে জানতে চাইলে নগরীর শাহমখদুম থানার পাতানি পাড়া এলাকার সবজিচাষী আক্কাস আলী বলেন, আড়াই বিঘা জমিতে সবজির চাষ করেছি। সবজি চাষ করতে খুব বেশি জমির প্রয়োজন হয় না। তুলনামূলক অল্প সময়ের মধ্যেই সবজি বাজারজাত করা যায়। নিজেদের চাহিদা মিটিয়ে বাজারেও বিক্রি করা যায়। এতে কৃষকের বেশ লাভ হয়, যা অন্য ফসলে সম্ভব না।
আরেক চাষী আলতাফ হোসেন বলেন, ৮ বিঘা জমি বর্গা নিয়ে বেগুন, ঢেঁড়শ, পালংশাক, পুঁই শাক, ফুল কপি এবং বাঁধা কপির চাষ করেছি।। চলতি বছর বন্যায় ব্যাপক সবজির ক্ষতি হয়েছে। তাই ক্ষতি পুষিয়ে নিতে আবারও লাভের আশায় বিভিন্ন সবজি চাষ করেছি।
শীতকালীন সবজিতে ভাগ্য বদলের চেষ্টা রাজশাহীর চাষিদের। ক্ষেতে নিয়মিত কাজ করতে এতটুকু উপোষ নেই কারো। ভালো দামের আশায় পরিচর্যায় সারাদিন ব্যস্ত তারা। ইতোমধ্যে শীতের আগাম সবজি বাজারে বিক্রি করেছেন অনেকেই। তাতে আরো উৎসাহ-উদ্দীপনায় সবজি উৎপাদন করছেন চাষিরা।
শীতকালীন সবজিতে ভাগ্য বদলের চেষ্টায় রাজশাহীর চাষীরা। ক্ষেতে নিয়মিত কাজ করতে বিন্দু মাত্র ক্লান্তি নেই কারো। ভালো দামের আশায় পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় পার করছেন তারা। শীতের আগাম সবজি বাজারে বিক্রি শুরু করেছেন অনেকেই। যা সবজি উৎপাদনে উৎসাহ-উদ্দীপনা বাড়িয়েছে কয়েকগুণ।

নভেম্বর ১১
০৬:৪৫ ২০২০

আরও খবর