Daily Sunshine

উন্নয়ন নিয়ে যা বললেন কাটাখালী পৌরবাসী

Share

স্টাফ রিপোর্টার : কাটাখালী পৌরসভায় কাপাশিয়ার পশ্চিমপাড়া, মৃধাপাড়া, পালপাড়া, হাটপাড়া, পূর্বপাড়া, ফকিরপাড়া, তালুকদারপাড়া, সরদারপাড়া ও পাহাড়পুর মহল্লা নিয়ে ১নং ওয়ার্ড গঠিত। নাগরিক সুযোগ সুবিধা ও অবকাঠামো উন্নয়নের বিষয়ে সরজমিনে খোঁজ নিলে মেয়র আব্বাসের উন্নয়ন নিয়ে পৌরবাসী যে মন্তব্য করেছেন তা তুলে ধরা হলো-কাপাশিয়ার পশ্চিমপাড়ার বাজারে অবস্থিত ফার্মেসি দোকান মালিক নির্মল সরকার (৪০) জানান, তিনি দীর্ঘদিন ধরে ব্যবসা করছেন এ বাজারে। বর্তমানে পৌরসভার কাজের গতি আগের মেয়রের চেয়ে অনেক বেশি। তবে সাথে দাবি রাখেন বাজারের রাস্তাটি নতুন করে সংস্কারের।

পাশের আরেক ব্যবসায়ি সোহেল রানা (২৮) বলেন, আমি ব্যক্তিগত ভাবে খুশি এই এলাকার ভোটার হিসেবে এই মেয়র সাহেব কাজ দেখে। অনেক কাজ করেছে আমাদের এখানে। কাউকে কোন চাঁদা দেয়া লাগে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে জানান, কেউ আসেনা এখানে চাঁদা নিতে।
কসমেটিকসের দোকানি রতন (২৬) বলেন, এই মেয়র ভোট করার সময় বাসা বাড়িত খাবার পানির লাইন করার কথা বলেছিল, এখন সামনে স্কুল মাঠে পাম্প বসানোর কাজ হচ্ছে। মেয়র কথা রেখেছে।

খোশগল্পে মেতে থাকা ভরুয়াপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক কাপাশিয়া পূর্বপাড়ার মুকসুদ আলী(৫৫) কে বর্তমান পৌরসভার কাজের অবস্থা সম্পর্কে জানতে চাইলে উচ্ছাস নিয়ে জানালেন, আমার মনে হয় গত ১৩ বছরে যে পরিমান ত্রাণ দেয়া হয়েছে কুরবানী ঈদে তার সমান ত্রাণ মেয়র দিয়েছে এবার। তবে তিনিও কাপাশিয়া বাজারের সড়কটি সংস্কারের জোর দাবি জানান।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক প্রবীন আওয়ামীলীগের একজন কর্মি পরিচয় দিয়ে জানালেন, মেয়র হওয়ার আগে উনি আমাদের ডাক দিতো, দলীয় বিষয়ে কথা বলতো। এখন নিজস্ব কিছু কর্মি দিয়ে পৌরসভা চালায়। আমাদের দরকার পড়ে না। তবে এলাকায় কাজ হচ্ছে বলে তিনি জানান।

কাপাসিয়া সরদারপাড়া নিবাসি মহানগর টেকনিক্যাল কলেজের কর্মচারি মোখলেসুর রহমান (৪৭) ও সানাউল্লাহ(৫৫) জানান, আগে পৌরসভায় ঢোকা যেতো না, এখন গেলে আরামে কাজ করা যায়। এই মেয়র কাজ ভালো করছেন, সাথে যোগ করলেন সরদার পাড়ার রাস্তা খুব খারাপ আর কাপাশিয়া বাজার থেকে দিঘীরপাট বাজার পর্যন্ত এবং পালপাড়ার সড়কটি জরুরিভাবে সংস্কারের।

পালপাড়ার অধিবাসী ওষুধের দোকানদার সোহেল রানা (৩২) পৌরসভার কার্যক্রম বিষয়ে জানতে চাইলে তৃপ্তির সাথে জানালেন, এই মেয়রের একটা গুণ ভালো লাগছে, কে কোন দলে সেটা উনি দেখেন না। মেয়র নিজে বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভাতাভোগিদের কার্ড করে দিয়েছেন। মুরব্বীরা চাল পাচ্ছেন ঠিকমত বলে জানান। আগে চাল কম হতো এখন হয় না। এলাকার সমস্যা বলতে পালপাড়া মসজিদ ও কাচা রাস্তাটি পাকা করার দাবি জানান। সোহেল আরো বলেন, তবে কাজ চলছে। পোলপাড়ার মাটির রাস্তায় মেয়রের লোক ৬ ট্রলি রাবিস ফেলেছে আর ১৩ টা কারেন্টের পোল বসিয়েছে।

আরেকজন বাসিন্দা কাপাসিয়া বাজারের দোকানদার শ্রী বুদু কুমার পাল(৩৫) জানালেন, পালপাড়ার মাটির সড়ক পাকা হলেই খুশি। পেশায় ভ্যান চালক পালপাড়া নিবাসী শ্রী আনন্দ পাল বলেন, বর্ষায় অনেক কষ্ট হয় তাদের ভ্যান বের করতে। এই মাটির রাস্তা কবে যে পিচের রাস্তা হবে। অন্য কোন দাবি তিনি জানান নি।

অক্টোবর ০১
১৯:৪১ ২০২০

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

নগরীর পুরাতন বইয়ের বাজার, কেমন আছেন দোকানীরা?

নগরীর পুরাতন বইয়ের বাজার, কেমন আছেন দোকানীরা?

আবু সাঈদ রনি: সোনাদীঘি মসজিদের কোল ঘেষে গড়ে উঠেছে রাজশাহীর ঐতিহ্যবাহী পুরাতন বইয়ের দোকান। নিম্নবিত্ত ও অস্বচ্ছল শিক্ষার্থীদের একমাত্র আশ্রয়স্থল এই পুরাতন লাইব্রেরী। মধ্যবিত্তরা যে যায় না ঠিক তেমনটিও না। কি নেই এই লাইব্রেরীতে? একাডেমিক, এডমিশন, জব প্রিপারেশনসহ সব ধরনের বই রাখা আছে সারি সারি সাজানো। নতুন বইয়ের দোকানের সন্নিকটে

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

চাকুরির নিয়োগ দিচ্ছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

চাকুরির নিয়োগ দিচ্ছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

সানশাইন ডেস্ক : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভিন্ন পদে জনবল নিয়োগ দেয়া হবে। রাবির নিজস্ব ওয়েবসাইটে এই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। পদের নাম: কম্পিউটার অপারেটর পদ সংখ্যা: ০১ টি। বেতন: ১২৫০০-৩০২৩০ টাকা। পদের নাম: মেডিক্যাল টেকনােলজিস্ট (ফিজিওখেরাপি) পদ সংখ্যা: ০২ টি। বেতন: ১২৫০০-৩০২৩০ টাকা। পদের নাম: মেডিক্যাল টেকনােলজিস্ট (ডেন্টাল) পদ সংখ্যা:

বিস্তারিত