Daily Sunshine

পুলিশের বিরুদ্ধে ঘাতককে বাদ দিয়ে সাক্ষীদের আসামি করার অভিযোগ

Share

স্টাফ রিপোর্টার : বাকিতে সিগারেট না পেয়ে রাজশাহী নগরীতে আদর (৩৮) নামে এক দোকানিকে ছুরির আঘাতে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। সোমবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে পুলিশের রাজশাহী রেঞ্জের উপমহাপরিদর্শকের (ডিআইজি) কার্যালয় সংলগ্ন নগরীর ভেড়িপাড়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় বাদী হয়ে রাজপাড়া থানায় হত্যা মামলা করেন নিহতের ভাই আবদুল হান্নান। তবে পরিবারের দাবি, পুলিশ মূল আসামিদের বাদ দিয়ে সাক্ষীদের আসামি করেছে। এর প্রতিবাদে তারা লাশ নিয়ে নগরীতে বিক্ষোভ করে।
নিহত আদর ভেড়িপাড়া এলাকার আবদুল গফুরের ছেলে। এ ঘটনায় নিহতের ভাই আবদুল হান্নান বাদী হয়ে ছয় জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন। তবে পরিবারের দাবি, ঘটনার সঙ্গে জড়িত ঘাতকদের বাদ দিয়ে ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী দুই সাক্ষীকে মামলার আসামি করা হয়েছে। এদিকে এই ঘটনার প্রতিবাদে বিকালে নিহতের স্বজন এবং এলাকাবাসী নগরীর ভেড়িপাড়া মোড়ে লাশ নিয়ে বিক্ষোভ শুরু করে। প্রায় ৩০ মিনিট রাস্তা অবরোধ করে আহাজারি শুরু করেন স্বজনরা। এ সময় পুলিশ গিয়ে তাদের আশস্ত করে প্রকৃত আসামিদের আইনের আওতায় আনা হবে বলে জানান। একই সাথে কেউ জড়িত না থেকেও যদি আসামি হন তবে সংশ্লিষ্টকে অভিযোগ থেকে বাদ দেয়া হবে। এরপর তারা অবরোধ তুলে নেন ও লাশ নিয়ে ফিরে যান।
এদিকে ঘটনার পর ওই রাতেই অভিযান চালিয়ে এজাহারনামীয় দুই আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতাররা হলেন- কেশবপুর এলাকার মৃত আতাহার হোসেনের ছেলে রফিকুল ইসলাম দর্পন (৪৫) ও একই এলাকার বাবর আলীর ছেলে বাপ্পা রাজ (২৮)। পুলিশের দেয়া তথ্য মতে, মধ্যরাতে দোকানি আদরের কাছে বাকিতে পান-সিগারেট চেয়েছিলেন এলাকার কয়েকজন। কিন্তু তাতে রাজি না হওয়ায় বাগবিতণ্ডার এক পর্যায়ে দোকানিকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে নেন। কিন্তু জরুরি বিভাগের দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে মরদেহ রামেক হাসপাতাল মর্গে নেয়া হয়। ময়নাতদন্তের পর মঙ্গলবার দুপুরে স্বজনদের কাছে নিহত আদরের লাশ হস্তান্তর করা হয়।
মঙ্গলবার বিকালে লাশ নিয়ে বিক্ষোভের সময় স্বজনরা জানান, মামলার এজাহার হয়েছে পুলিশের ইচ্ছায়। পুলিশ এজাহার প্রস্তুত করে শুধু হান্নানের স্বাক্ষর নিয়েছে। এ মামলায় বাপ্পারাজ ও দর্পনকে আসামি করে গ্রেপ্তার দেখানো হলেও তারা ঘটনার সাক্ষী। খুনের সঙ্গে তাদের সম্পৃক্ততা নেই। পুলিশ সাক্ষীকে আসামি করেছে। এছাড়া আরও দুইজনকে আসামি করা হয়েছে যারা এই খুনের সঙ্গে জড়িত নন। আর নাম বাদ দেয়া হয়েছে ঘটনার সঙ্গে জড়িত চারজনকে।
মামলার বাদী ও নিহতের ভাই আবদুল হান্নান বলেন, যখন এজাহারে স্বাক্ষর করি তখন রাত ৪টা। আমার ভাইয়ের লাশ পড়ে ছিল মর্গে। আমার মাথা কাজ করছিল না। পুলিশ কাগজ এনে স্বাক্ষর চেয়েছে, আমি দিয়েছি। কোন কাগজে স্বাক্ষর দিয়েছি সেটা আমি জানি না। এখন শুনছি উল্টা-পাল্টা আসামি হয়েছে। পুলিশের ইচ্ছেমতো এজাহার দায়েরের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন নগরীর রাজপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহাদাত হোসেন খান।
রাজপাড়া থানার ওসি শাহাদাত হোসেন খান বলেন, আমরা তো কাউকে চিনি না। এলাকাবাসী আর নিহতের স্বজনরা যাদের নাম বলেছেন তাদেরই ধরা হয়েছে। সে অনুযায়ী মামলার এজাহার করা হয়েছে। এখন কেউ যদি ঘটনার সঙ্গে জড়িত না থাকেন তাহলে তাকে অভিযোগপত্র থেকে বাদ দেয়া হবে। আর জড়িত কেউ বাদ পড়লে তাকে আইনের আওতায় আনার সুযোগ আছে। এরই মধ্যে মামলার দুই আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

সেপ্টেম্বর ৩০
০৬:৫৬ ২০২০

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

কোয়ারেন্টিন ব্যর্থতায় আসতে পারে ভয়াবহ বিপদ

কোয়ারেন্টিন ব্যর্থতায় আসতে পারে ভয়াবহ বিপদ

সানশাইন ডেস্ক :  দেশে আশঙ্কাজনক হারে কোয়ারেন্টিনে থাকা মানুষের সংখ্যা কমছে। এদিকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে, কোয়ারেন্টিন ব্যর্থতার কারণে আক্রান্ত বাড়ছে। আর পুরো বিশ্বের মতো বাংলাদেশেও মানুষকে কোয়ারেন্টিন না করতে পারার ব্যর্থতাকে ‘অ্যালার্মিং’ বলে মন্তব্য করেছেন বিশেষজ্ঞরা। তারা বলছেন, এমনিতেই সামনে শীতের মৌসুম। এ সময় রোগী বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে যদি

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

প্রথম শ্রেণিতে নিয়োগ পাচ্ছেন ৫৪১ জন ননক্যাডার

প্রথম শ্রেণিতে নিয়োগ পাচ্ছেন ৫৪১ জন ননক্যাডার

|সানশাইন ডেস্ক: ৩৮তম বিসিএস পরীক্ষার নন-ক্যাডার থেকে প্রথম শ্রেণির বিভিন্ন পদে ৫৪১ জনকে নিয়োগের জন্য সুপারিশ করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি) থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ৩৮তম বিসিএসের নন-ক্যাডার থেকে প্রথম শ্রেণির (৯ম গ্রেড) বিভিন্ন পদে নিয়োগের জন্য সুপারিশ করা

বিস্তারিত