Daily Sunshine

রাবির ইমেরিটাস অধ্যাপক এবিএম হোসেন আর নেই

Share

স্টাফ রিপোর্টার : ইমেরিটাস অধ্যাপক ড. ফখরুল ইসলামের মৃত্যুর শোক কাটতে না কাটতেই আরেক অধ্যাপককে হারালো রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি)। ফখরুল ইসলামের মৃত্যুর দশদিন পরই এবার না ফেরার দেশে চলে গেলেন বিশ্ববিদ্যালয়টির ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের ইমেরিটাস অধ্যাপক ড. এবিএম হোসেন (ইন্নালিল্লাহ…রাজিউন)। মৃত্যৃকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৬ বছর। শনিবার সকালে রাবির ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের অধ্যাপক ড. মাহফুজুর রহমান আখন্দ বিষয়টি নিশ্চিত করেন।
তিনি জানান, শুক্রবার দিনগত রাতে রাজধানীর স্পেশালাইজড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ড. এবিএম হোসেন মারা যান। শনিবার বাদ আসর রাজধানীর কলাবাগান ডলফিন লেন জামে মসজিদে নামাজের জানাজা শেষে তাকে মিরপুর বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে দাফন করা হয়।
অধ্যাপক ড. মাহফুজুর রহমান আখন্দ বলেন, এবিএম হোসেন স্যারের মৃত্যুতে আমরা একজন অভিভাবক হারালাম। আমরা তার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি, সেই সঙ্গে তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি।
অধ্যাপক ড. এবিএম হোসেন ২০০১ সালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথম প্রফেসর ইমেরিটাস হিসাবে সম্মাননা প্রাপ্ত হন। ইতিহাস বিষয়ে তার ১১টি গ্রন্থ রয়েছে। মধ্যপ্রাচ্যের রাজনীতি নিয়ে তিনি অসংখ্য গবেষণা করেছেন। ১৯৭৭ সালে নরওয়েজিয়ান পার্লামেন্ট নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য গঠিত বোর্ডে ড. এবিএম হোসেনকে সদস্য মনোনীত করে। তিনি বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি ও বাংলা একাডেমির সম্মানিত আজীবন ফেলো।
এর আগে, করোনা আক্রান্ত হয়ে গত ২ জুলাই দুপুরে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যুবরণ করেন রাবির ইমেরিটাস প্রফেসর ড. ফখরুল ইসলাম।

জুলাই ১২
০৫:৫২ ২০২০

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

রাজশাহীর রেশম শিল্পেও করোনার থাবা

রাজশাহীর রেশম শিল্পেও করোনার থাবা

স্টাফ রিপোর্টার : চলমান করনোকালে চরম অস্তিত্ব সংকটে রাজশাহীর রেশম শিল্প। বিশ্বব্যাপী মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে ধুঁকে ধুঁকে চলা এ শিল্পখাত আরো অস্তিত্ব সংকটে পড়েছে। করোনা ভাইরাসের কারণে গত দুই মাসের লকডাউনে কোটি কোটি টাকার লোকসানে পড়েছে সিল্কের তৈরি পোশাকখাত। এখন সিল্কের তৈরি পোশাকের শো-রুম খোলা থাকলেও বেচাবিক্রি নেমে এসেছে

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

সরকারি চাকরিতে আরও বেড়েছে ফাঁকা পদ

সরকারি চাকরিতে আরও বেড়েছে ফাঁকা পদ

সানশাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে সরকারি চাকরির বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ না হওয়ায় বেড়েছে চাকরিপ্রার্থীর সংখ্যা, সঙ্গে ফাঁকা পদের সংখ্যাও বাড়ছে। সরকারি চাকরিতে এখন তিন লাখ ৮৭ হাজার ৩৩৮টি পদ ফাঁকা পড়ে আছে, যা মোট পদের ২১ দশমিক ২৭ শতাংশ। জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলছেন, অগাস্ট মাসে কোভিড-১৯ সংক্রমণ কমে আসবে

বিস্তারিত