Daily Sunshine

বাঘায় করোনা প্রতিরোধে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের লিফলেট

Share

স্টাফ রিপোর্টার, বাঘা: সারাবিশ্বে মহামারি আকারে বিস্তারকারী করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে রাজশাহীর বাঘায় লিফলেট বিতরণ কর্মসূচি ও জনসচেতনতা মূলক সভা শেষে বাজারে গিয়ে সেমিনার করছেন নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজা। বৃহস্পতিবার দিন ব্যাপী শিক্ষক, স্কাউট দল, জনপ্রতিনিধি,ডাক্তার ও বনিক সমিতির নেতাসহ ব্যবসায়ীদের সাথে তিনি পৃথক পৃথক সভা সেমিনার করেন।
সকাল ১১ টায় নির্বাহী কর্মকর্তার দপ্তরে আয়োজিত সভায় করোনা ভাইরাসের লক্ষণ ও কিভাবে এটি প্রতিরোধ করা যায় সে বিষয়ে আলোচনা করা হয়। আলোচনায় নির্বাহী কর্মকর্তা বলেন, সরকার এ রোগ থেকে নিরাপদ থাকার জন্য বিশেষ নির্দেশনা প্রদান করেছেন। আমরা সে লক্ষে কাজ করে যাচ্ছি। বর্তমানে উপজেলা দু’টি পৌর সভা এবং ৭ টি ইউনিয়নে ২ জন করে সরকারি কর্মকর্তার সমান্বয়ে মনিটরিং টিম-সহ কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ ছাড়াও উপজেলা সদরে অবস্থিত বাঘা মডের উচ্চ বিদ্যালয়ের দুটি কক্ষে আইসোলেশন কেন্দ্র প্রস্তত করা হয়েছে। আমরা যদি করোনা রুগীর সন্ধান পাই তবে তাদেরকে এ কেন্দ্রে এনে চিকিৎসা দেয়ার হবে।
বিকেলে নির্বাহী কর্মকর্তা উপজেলার নারায়নপুর ও আড়ানী বাজারের ব্যবসায়ীদের সাথে করোনা প্রতিরোধে মতবিনিময় সভা করেন। এ সময় তিনি ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্যে বলেন, দেশে প্রচুর পরিমান খাবার মৌজুদ আছে। কেও যদি লবন বিক্রীর ন্যায় সিন্ডিকেট করার চেস্টা করেন তাহলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।
তিনি করোনা প্রতিরোধে ডাক্তারদের মাধ্যমে মাস্ক এবং উপজেলার ৫১ টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের স্কাউট দলের মাধ্যমে লোকজনকে আতঙ্কিত না হওয়ার প্রত্যায় ব্যক্ত করে সর্তকতা মূলক লিফলেট প্রচারের কার্যক্রম চালু করেন। সেই সাথে বিদেশ ফেরত প্রবাসীদের তালিকা সংগ্রহের জন্য জনপ্রতিনিধিদের দায়িত্ব অর্পন করেন।

মার্চ ২০
০৪:৩৭ ২০২০

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

আঁকাআঁকি থেকেই তন্বীর ‘রংরাজত্ব’

আঁকাআঁকি থেকেই তন্বীর ‘রংরাজত্ব’

আসাদুজ্জামান নূর : ছোটবেলা থেকেই আঁকাআঁকির প্রতি নেশা ছিল জুবাইদা খাতুন তন্বীর। ক্লাসের ফাঁকে, মন খারাপ থাকলে বা বোরিং লাগলে ছবি আঁকতেন তিনি। কারও ঘরের ওয়ালমেট, পরনের বাহারি পোশাক ইত্যাদি দেখেই এঁকে ফেলতেন হুবহু। এই আঁকাআঁকির প্রতিভাকে কাজে লাগিয়েই হয়েছেন ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা। তুলির খোঁচায় পরিধেয় পোশাকে বাহারি নকশা, ছবি, ফুল

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

জোরালো হচ্ছে সরকারি চাকরিতে ‘বয়সসীমা’ বাড়ানোর দাবি

জোরালো হচ্ছে সরকারি চাকরিতে ‘বয়সসীমা’ বাড়ানোর দাবি

সানশাইন ডেস্ক : সর্বশেষ ১৯৯১ সালে সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা বাড়ানো হয়। এরপর অবসরের বয়স বাড়ানো হলেও প্রবেশের বয়স আর বাড়েনি। বেকারত্ব বেড়ে যাওয়া, সেশনজট, নিয়োগের ক্ষেত্রে দীর্ঘসূত্রতা, অন্যান্য দেশের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে চাকরিতে প্রবেশের সর্বোচ্চ বয়স বাড়ানোর দাবিতে আন্দোলন করে আসছেন শিক্ষার্থী ও চাকরিপ্রার্থীরা। তবে এ বিষয়ে উদ্যোগ নেয়নি

বিস্তারিত