Daily Sunshine

আতংকিত না হয়ে এই রোগ সম্পর্কে সচেতন হন

Share

করোনার বিস্তার ঘটে চলেছে
করোনা ভাইরাস এখন বিশ্বব্যাপী এক আতংকের বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। চীনে এর প্রাদুর্ভাব প্রথম হলেও এটি ইউরোপে বিশেষত: ইতালিতে মহামারি রূপ ধারণ করেছে। ইরানসহ মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতেও এই রোগের বিস্তার ঘটেছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেও করোনার ফলে সেখানকার জনজীবনে স্থবিরতা দেখা দিয়েছে। বাংলাদেশে প্রথম সনাক্ত তিনজন করোনা রোগী সুস্থ হলেও আরো দু’জনের শরীরে নতুন করে এই রোগ সনাক্ত হয়েছে। আর নিকট প্রতিবেশী দেশ ভারতে কারোনার বিস্তার ঘটে চলেছে। এই অবস্থায় দেশটির মধ্যে আলোচনার মাধ্যমে পরিস্থিতি মোকাবেলায় করণীয় ঠিক করতে সরকার প্রধানদের আহবান রেখেছেন। এতে ছ’টি দেশের সম্মতি মিলেছে। বৈশ্বিক এই সমস্যা কার্যত: এখন সব দেশকে বিচলিত করছে।
এই পরিস্থিতিতে করোনার ভয়াবহতা থেকে রক্ষা পেতে সব দেশেই নিজ নিজ অবস্থান থেকে যে যার মতো করে ব্যবস্থা নিচ্ছে। দেশে দেশে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে একে একে বিমানের ফ্লাইট। বন্ধ করে দেয়া হচ্ছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে। জনসামগম এবং প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের না হওয়ার জন্যে বলা হচ্ছে। স্পষ্টত:ই করোনা এক এখন বড় সমস্যা বিশ্বের সব দেশে জন্যে। এই রোগ দেশ’ বেশী দেশে ইতোমধ্যে ছড়িয়ে পড়েছে। দেড় লাখের বেশী মানুষ এতে আক্রান্ত হয়েছে এবং পাঁচ হাজারের বেশী মানুষ মারা গেছে। স্বাভাবিক ভাবে বিশ্বব্যাপী আতংক ছড়িয়েছে। তবে আশার কথা এখনো ৩০ বছরের নীচে কেউ এই রোগে মারা যায়নি।
করোনায় মৃত্যু হার কম হলেও এই আতংক যেন কারো পিছু ছাড়ছে না। বাংলাদেশে এই রোগের তেমন বিস্তার না হলেও করোনা উপদ্রুত দেশ থেকে প্রবাসীরা দেশে ফেরার উদ্বেগ ও আতংক দেখা দিয়েছে। যদিও এখনো দেশের সব কিছু স্বাভাবিক ভাবে চলছে। এর পরেও এক করোনার আতংক মানুষকে তাড়িয়ে ফিরছে। যে কারণে মানুষ প্রতিরোধ ব্যবস্থা হিসেবে মাস্কসহ বিভিন্ন ধরনের উপকরণ কেনার জন্যে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন। তবে আশার কথা এই সংখ্যা একেবারে নগন্য। বরং অধিকাংশ মানুষ এতে আতংকিত নন। তারা দৈনন্দিন সব কাজই স্বাভাবিক ভাবে করছেন।
সরকার করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জনসচেতনতার উপর জোর দিয়েছে এবং সে মতো বেতার টেলিভিশনে নিয়মিত প্রচার চালানো হচ্ছে। জনগণকে যেখানে সেখানে কফ থুথু না ফেলার জন্যে বলা হচ্ছে। হাত দিয়ে বারবার নাক মুখ স্পর্শ না করার এবং বারবার হাত ধোয়ার পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। সর্দ্দি জ্বর হলে বাড়ি থেকে বের না হওয়ার জন্যে বলা হচ্ছে। প্রয়োজনে স্বাস্থ্য পরামর্শ পেতে ১৬২৬৩ নম্বরে অথবা ৩৩৩ নম্বরে কল করার জন্যে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে বলা হয়েছে। স্বাস্থ্য সুরক্ষায় এসব পদক্ষেপের পাশাপাশি সরকার করোনার বিস্তার রোধে দেশজুড়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়েছে। বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া এই মহামারির ছোবল থেকে রক্ষা পেতে তাই অহেতুক আতংকিত না হয়ে নিজ নিজ অবস্থা থেকে প্রতিরোধ ব্যবস্থা নিতে হবে এবং মহান আল্লাহ’র কাছে সাহায্য চাইতে হবে তিনি যেন আমাদের এই মহামারির হাত থেকে রক্ষা করেন আমাদের হেফাজত করেন।

মার্চ ১৬
০৪:৪২ ২০২০

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

রাজশাহীর রেশম শিল্পেও করোনার থাবা

রাজশাহীর রেশম শিল্পেও করোনার থাবা

স্টাফ রিপোর্টার : চলমান করনোকালে চরম অস্তিত্ব সংকটে রাজশাহীর রেশম শিল্প। বিশ্বব্যাপী মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে ধুঁকে ধুঁকে চলা এ শিল্পখাত আরো অস্তিত্ব সংকটে পড়েছে। করোনা ভাইরাসের কারণে গত দুই মাসের লকডাউনে কোটি কোটি টাকার লোকসানে পড়েছে সিল্কের তৈরি পোশাকখাত। এখন সিল্কের তৈরি পোশাকের শো-রুম খোলা থাকলেও বেচাবিক্রি নেমে এসেছে

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

সরকারি চাকরিতে আরও বেড়েছে ফাঁকা পদ

সরকারি চাকরিতে আরও বেড়েছে ফাঁকা পদ

সানশাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে সরকারি চাকরির বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ না হওয়ায় বেড়েছে চাকরিপ্রার্থীর সংখ্যা, সঙ্গে ফাঁকা পদের সংখ্যাও বাড়ছে। সরকারি চাকরিতে এখন তিন লাখ ৮৭ হাজার ৩৩৮টি পদ ফাঁকা পড়ে আছে, যা মোট পদের ২১ দশমিক ২৭ শতাংশ। জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলছেন, অগাস্ট মাসে কোভিড-১৯ সংক্রমণ কমে আসবে

বিস্তারিত