Daily Sunshine

‘দেহ বন্টন বিষয়ক দ্বিপক্ষীয় চুক্তি স্বাক্ষর’ পাচ্ছেন দুপুর বেলার শয়তানে!

Share

রিজভী আহমেদ, রাবি: ‘দুপুর বেলার শয়তান’, ‘তোমাকে ছাড়া ফিলিংস হচ্ছে না- হোক-আমি অনেক কিছুই ছাড়া আসা লোক! নামটি শুনতেই কেমন যেন লাগছে! এমনই একটি ব্যানার টাঙিয়ে একটি বইয়ের নাম দেওয়া হয়েছে।
এখানে যেমন ভালোবাসার প্রতীক ফুল আছে তেমনি আছে মারজুক রাসেলের আলোচিত ‘দেহ বন্টন বিষয়ক দ্বিপক্ষীয় চুক্তি স্বাক্ষর’ বই।
বসন্ত উৎসব ও ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃবিজ্ঞান বিভাগের ২০ তম ব্যাচের আয়োজনে সিরাজী ভবনের সামনে এই বইয়ের দোকান দিয়েছে। এখানে শুধু বই নয় আরো যুক্ত করেছে হরেক রকমের ফুল।
বইয়ের দোকানের এমন নাম দেওয়ার বিষয়ে আয়োজকদের একজন পাভেল বলেন, এই বসন্ত ও ভালোবাসা দিবসে ভিন্নধর্মী কিছু করার চিন্তা থেকে দোকানের নাম দেওয়া হয় ‘দুপুর বেলার শয়তান’।
নৃবিজ্ঞান বিভাগের আসিফ ফয়সাল বলেন, এবারের এই বসন্ত উৎসব এবং ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে ‘দুপুর বেলার শয়তান’ দোকানটি একটি ভিন্নধর্মী দোকান। এখানে যেমন ভালোবাসার প্রতীক ফুল আছে তেমনি আছে মারজুক রাসেলের আলোচিত ‘দেহ বন্টন বিষয়ক দ্বিপক্ষীয় চুক্তি স্বাক্ষর’ বইটি রাখা হয়েছে।
তিনি আরো বলেন, বসন্ত উৎসব এবং ভালোবাসা দিবস দুইদিন হবার কারণে দুইদিন ধরেই ফুল বিক্রি হতো। কিন্তু এইবার বসন্ত উৎসব এবং ভালোবাসা দিবস একই দিনে হওয়ার কারণে শুধুমাত্র আগামীকাল ১৪ ফেব্রুয়ারিতে ভালো বিক্রি হবে।
আয়োজকরা জানান, বিশেষ স্টল হিসেবে এখানে হরেক রকম ফুলের সাথে মারজুক রাসেলের ‘দেহ বন্টন বিষয়ক দ্বিপক্ষীয় চুক্তি স্বাক্ষর” বইটি পাওয়া যাচ্ছে। উল্লেখ্য যে বইটি অমর একুশে বইমেলায় বহুল আলোচিত ও সম্ভাব্য বেস্ট সেলার বই। বইটি পাওয়া যাবে চারুকলা অনুষদের বসন্তবরণ ও পিঠা উৎসব চত্ত্বরে। বইটির দাম রাখা হয়েছে মাত্র ২০০ টাকা। বইটির প্রচ্ছদ একেছেন রাজীব দত্ত এবং প্রকাশনায় “বায়ান্ন ৫২”। এছাড়াও দোকানটিতে থাকছে বসন্তে প্রিয়জনকে উপহার দেওয়ার জন্য গোলাপ, রজনীগন্ধা, গাদা, জার্ভেরা,ডালিয়া এবং ঘাসফুলসহ বিভিন্ন ধরনের ফুলে সজ্জিত ক্রাউনসহ নানান ধরনের চমক।

ফেব্রুয়ারি ১৪
০৫:০৭ ২০২০

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

আঁকাআঁকি থেকেই তন্বীর ‘রংরাজত্ব’

আঁকাআঁকি থেকেই তন্বীর ‘রংরাজত্ব’

আসাদুজ্জামান নূর : ছোটবেলা থেকেই আঁকাআঁকির প্রতি নেশা ছিল জুবাইদা খাতুন তন্বীর। ক্লাসের ফাঁকে, মন খারাপ থাকলে বা বোরিং লাগলে ছবি আঁকতেন তিনি। কারও ঘরের ওয়ালমেট, পরনের বাহারি পোশাক ইত্যাদি দেখেই এঁকে ফেলতেন হুবহু। এই আঁকাআঁকির প্রতিভাকে কাজে লাগিয়েই হয়েছেন ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা। তুলির খোঁচায় পরিধেয় পোশাকে বাহারি নকশা, ছবি, ফুল

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

জোরালো হচ্ছে সরকারি চাকরিতে ‘বয়সসীমা’ বাড়ানোর দাবি

জোরালো হচ্ছে সরকারি চাকরিতে ‘বয়সসীমা’ বাড়ানোর দাবি

সানশাইন ডেস্ক : সর্বশেষ ১৯৯১ সালে সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা বাড়ানো হয়। এরপর অবসরের বয়স বাড়ানো হলেও প্রবেশের বয়স আর বাড়েনি। বেকারত্ব বেড়ে যাওয়া, সেশনজট, নিয়োগের ক্ষেত্রে দীর্ঘসূত্রতা, অন্যান্য দেশের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে চাকরিতে প্রবেশের সর্বোচ্চ বয়স বাড়ানোর দাবিতে আন্দোলন করে আসছেন শিক্ষার্থী ও চাকরিপ্রার্থীরা। তবে এ বিষয়ে উদ্যোগ নেয়নি

বিস্তারিত