Daily Sunshine

নির্বাচনে প্রার্থীদের অপরাধের রেকর্ড প্রকাশের নির্দেশ

Share

সানশাইন ডেস্ক: রাজনৈতিক দলগুলোকে নির্বাচনে দেওয়া প্রার্থীদের অপরাধের রেকর্ড সবিস্তারে ওয়েবসাইটে জানানোর নির্দেশ দিয়েছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। অপরাধের রেকর্ড থাকা এসব ব্যক্তিদের কেন নির্বাচনে প্রার্থী করা হবে তার ব্যাখ্যাও দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে আদালত।
বৃহস্পতিবার বিচারপতি এফ নরিম্যানের বেঞ্চ বলেছে, ‘জয়ের সম্ভাবনাই প্রার্থী বাছাইয়ের একমাত্র মাপকাঠি হতে পারে না। বরং প্রার্থী বাছতে হবে তার গুণাগুণ বিচার করে।’ আদালত বলেছে, মনোনয়ন জমা দেওয়ার ৪৮ ঘণ্টা আগে প্রার্থীর নামে কোনো অপরাধমূলক অভিযোগ থাকলে তা দলের নিজস্ব ওয়েবসাইটে ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে জানাতে হবে। এই বিষয়ে নির্বাচন কমিশনকে নথি দিতে হবে অন্তত ৭২ ঘণ্টা আগে। এছাড়া কেন অপরাধমূলক কাজে যুক্ত থাকার অভিযোগ সত্ত্বেও ওই ব্যক্তিকে প্রার্থী করা হয়েছে, তার ব্যাখ্যাও ওয়েবসাইটে আপলোড করতে হবে সংশ্লিষ্ট রাজনৈতিক দলকে। কোনো রাজনৈতিক দল এই নির্দেশিকা না মানলে তা আদালত অবমাননার সামিল হবে।
অ্যাসোসিয়েশন অব ডেমোক্রেটিক রিফর্ম নামের একটি সংস্থা জানিয়েছে, ২০১৪ সালের জাতীয় নির্বাচনে বিজয়ী প্রার্থীদের মধ্যে ৩৪ শতাংশের অপরাধের রেকর্ড ছিল। পরের বার অর্থাৎ, ২০১৯ সালের নির্বাচনে এ সংখ্যা বেড়ে ৪৩ শতাংশে দাঁড়ায়। কিছু এমপির বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা ছিল রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। তবে অধিকাংশের বিরুদ্ধে চুরি, সরকারি কর্মচারীদের ওপর হামলা, হত্যা ও ধর্ষণের মামলা রয়েছে।

ফেব্রুয়ারি ১৪
০৫:০১ ২০২০

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

আলোকিত সিটি পেয়েছেন মহানগরবাসী

আলোকিত সিটি পেয়েছেন মহানগরবাসী

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহী মহানগরীর শহীদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামান চত্বরে দাঁড়িয়ে আছে মাস্তুল আকৃতির মজবুত দুইটি পোল। প্রতিটি পোলের উপর রিং বসিয়ে তার চতুরদিকে বসানো হয়েছে উচ্চমানের এলইডি লাইট। আর সেই লাইটের আলোয় আলোকিত বিস্তৃত এলাকা। শুধু শহীদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামান চত্বর নয়, এভাবে মহানগরীর আরো গুরুত্বপূর্ণ ১৪টি চত্বর আলোকিত হয় প্রতি

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

সরকারি চাকরি প্রার্থীর বয়সে ছাড়

সরকারি চাকরি প্রার্থীর বয়সে ছাড়

সানশাইন ডেস্ক : করোনা মহামারিতে সাধারণ ছুটিতে স্বাভাবিক জীবনযাত্রার সঙ্গে স্থগিত ছিল সরকারি-বেসরকারি চাকরির নিয়োগ প্রক্রিয়া। এ কয়েক মাসে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি পায়নি দেশের শিক্ষিত বেকার জনগোষ্ঠী। অংশ নিতে পারেনি কোনো নিয়োগ পরীক্ষাতেও। অনেকেরই বয়স পেরিয়ে গেছে ৩০ বছর। স্বাভাবিকভাবেই সরকারি চাকরির আবেদনে সুযোগ শেষ হয়ে যায় তাদের। তবে এ দুর্যোগকালীন

বিস্তারিত