Daily Sunshine

শিল্প জগতের এক অনন্য হীরা

Share

স্টাফ রিপোর্টার : শিল্পী প্রফেসর মো. আবদুস সোবাহান হীরা। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের ‘চিত্রকলা, প্রাচ্যকলা ও ছাপচিত্র’ বিভাগের অধ্যাপক। ড. হীরা সোবাহান নামে অধিক পরিচিত ও সমাদৃত। তিনি একজন সুপরিচিত প্রিন্টমেকার, পেইন্টার, ডিজাইনার, গবেষক ও লেখক। যিনি মূর্ত, অর্ধবিমূর্ত ও বিমূর্ত আধুনিক শিল্পরীতিতে শিল্পনির্মাণে খ্যাতি অর্জন করেছেন।
উডকাট, এচিং, অ্যাকোয়াটিন্ট, সফটগ্রাউন্ড, ড্রাইপয়েন্ট, স্টোনলিথোগ্রাফি, মনোটাইপ, মেজোটিন্ট, কলোগ্রাফ ও মিশ্রমাধ্যমে এদেশের প্রকৃতি, চলমান জীবনযাত্রা, দুর্যোগ, সমাজের নানা অসঙ্গতি, সমাজের অবক্ষয়, ক্ষয়িষ্ণু দেয়ালচিত্র, সময়ের বেড়াজালে আবদ্ধ মানবকুল, সুখ-দুঃখ ইত্যাদি বিষয়ের ওপর গেথেঁছেন শিল্প-সম্ভার।
জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ের অসংখ্য প্রদর্শনীতে গুনী এই শিল্পীর রয়েছে পদচিহ্ন, সক্রিয় অংশগ্রহণ ও অবদান। তিনি ২০১৯ সালে ঢাকায় আলিয়ঁস ফ্রসেজঁ-এ গ্যালারিতে ‘জীবন ও সময়ের আখ্যান’ শীর্ষক তৃতীয় একক মিনিয়েচার চিত্রপ্রদর্শনী করেন। ২০০৩ সালে বংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি’র জাতীয় চিত্রশালায় ‘জীবন ও সময়ের চিত্রকল্প’ শীর্ষক প্রথম একক ছাপচিত্রকলা প্রদর্শনী ও একই বছর সেখানেই দ্বিতীয় একক চিত্রকলা প্রদর্শনী করেন। ১৯৮৯ সাল থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত প্রায় ৮৯টি জাতীয়, আন্তর্জাতিক ও অন্যান্য দলীয় চিত্রকর্ম প্রদর্শনীতে অংশগ্রহণ করেছেন এই প্রতিভাধর শিল্পী।
জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে কদর রয়েছে তাঁর শিল্পকর্মের। বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরসহ দেশ-বিদেশে প্রাতিষ্ঠানিক ও ব্যক্তিগত পর্যায়ে তাঁর বহু চিত্রকর্ম সংগৃহীত রয়েছে। স্বীকৃত জার্নালে চারুকলা বিষয়ের ওপর ড. হীরার গবেষণামূলক ৬টি প্রবন্ধ প্রকাশিত হয়েছে। এছাড়াও ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে প্রকাশিত হয়েছে ‘ছাপচিত্রকলা’ ও ‘ছাপাই ছবির করণকৌশল’ বিষয়ক দুটি অ্যাকাডেমিক গ্রন্থ।
শিল্পচর্চার পাশাপাশি সমাজসেবা ও সংস্কারমূলক স্বেচ্ছাসেবী কাজের সঙ্গেও জড়িত ড. হীরা। তিনি বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটির সদস্য, ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা পৌর পাঠাগারের আজীবন সদস্য, মুক্তাগাছাস্থ ‘এফ রহমান ও কে নেসা ফাউন্ডেশন’র চেয়ারম্যান হিসেবে কাজ করছেন মানুষের জন্য।
এছাড়াও ১৯৮৩-১৯৮৮ সাল পর্যন্ত মুক্তাগাছা কিশলয় কচি কাঁচার মেলার সদস্য, ১৯৮৫-১৯৮৬ সাল পর্যন্ত স্কাউট, ১৯৮৭-১৯৮৮ সাল পর্যন্ত রোভার স্কাউট সদস্য হিসেবে কাজ করেছেন এই অধ্যাপক।
শিল্পকর্মের জন্য বহু সম্মাননা লাভ করেছেন শিল্পী ড. হীরা সোবাহান। ছাপচিত্রে বিশেষ অবদানের জন্য ২০১৯ সালের ১২ অক্টোবর ‘এস এম সুলতান সম্মাননা ২০১৯’, ২৯ নভেম্বর ‘মাওলানা ভাসানী স্মৃতি সম্মাননা ২০১৯’, ২৮ ডিসেম্বর ‘জয়নুল আবেদিন সম্মাননা’ লাভ করেন। এছাড়াও শিল্পচিত্রে বিশেষ অবদানের জন্য ২০২০ সালের ১৫ জানুয়ারি ‘মসি গুণীজন সংবর্ধনা ২০১৯’ লাভ করেন।
অনন্য প্রতিভার অধিকারী অধ্যাপক ড. হীরা সোবাহানের ঝুলিতে রয়েছে অসংখ্য পুরস্কার। এগুলোর মধ্যে-
২০০৩ সালে কথা ললিতকলা একাডেমি থেকে সম্মান পুরস্কার, ২০০২ বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমান পদক, ২০০০ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদে প্রিন্টমেকিং বিভাগে শ্রেষ্ঠ নিরীক্ষামূলক পুরস্কার, ১৯৯৯ সালে সকল মাধ্যমে শ্রেষ্ঠ ‘বঙ্গবন্ধু স্বর্ণপদক’, ১৯৯৮ সালে ১২তম জাতীয় নবীনশিল্পী শিল্পকর্ম প্রদর্শনীতে সম্মানসূচক পুরস্কার, ১৯৯৮ সালে তৃতীয় তরুণশিল্পী শিল্পকর্ম প্রদর্শনীতে সম্মানসূচক পুরস্কার, ১৯৯৭ সালে ‘মানবতার জন্য শিল্প ৯৬’ শীর্ষক শিল্পকর্ম প্রদর্শনীতে সম্মানসূচক পুরস্কার, ১৯৯৭ সালে প্রিন্টমেকিং বিভাগে শ্রেষ্ঠ নিরীক্ষামূলক পুরস্কার, ১৯৯৫ সালে তরুণশিল্পী চিত্রকলা প্রতিযোগিতা ও প্রদর্শনীতে সম্মানসূচক পুরস্কার এবং বাংলাদেশ শিশু একাডেমি আয়োজিত বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় একাধিকবার পুরস্কার ছাড়াও অসংখ্য পুরস্কার লাভ করেছেন।
গুনী এই মানুষটি ময়মনসিংহের মুক্তাগাছার নন্দীবাড়ি গ্রামে ১৯৭০ সালের ২৪ মে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৯৩ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদ থেকে প্রিন্টমেকিংয়ে বিএফএ ডিগ্রি এবং ১৯৯৫ সালে প্রথম শ্রেণিতে প্রথম হয়ে এমএফএ ডিগ্রি অর্জন করেন।
২০১১ সালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ‘বাংলাদেশের ছাপচিত্রকলা এবং তিনজন শিল্পী : সফিউদ্দীন আহমেদ, মোহাম্মদ কিবরিয়া ও মনিরুল ইসলাম (১৯৪৮-২০০৮)’ শীর্ষক অভিসন্দর্ভ রচনা করে বাংলাদেশে প্রিন্টমেকিং বা ছাপচিত্রে সর্বপ্রথম পিএইচডি ডিগ্রী অর্জন করেন।

জানুয়ারি ২৭
০৪:৪৮ ২০২০

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

সাহস সংগ্রাম নেতৃত্বে অবিচল

সাহস সংগ্রাম নেতৃত্বে অবিচল

সানশাইন ডেস্ক : মহামারি কোভিড-১৯ এর ধাক্কায় দুমড়ে-মুচড়ে যাচ্ছে বিশ্বব্যবস্থা। বৈশ্বিক এ মহামারির নিদারুণ প্রভাব পড়েছে বাংলাদেশেও। অথচ এমন ঘোর অমানিশার মাঝেও আশার প্রদীপ জ্বালিয়ে রেখেছেন তিনি। তিনি-ই সম্প্রতি রিজার্ভ ও রেমিট্যান্সে রেকর্ড গড়ার খবর দিয়েছেন। বিশ্লেষকরা মনে করেন, মহামারিকালে জরুরি ভিত্তিতে প্রায় এক লাখ কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

অস্ত্র মামলায় সাহেদের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

অস্ত্র মামলায় সাহেদের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

সানশাইন ডেস্ক : রিজেন্ট গ্রুপ ও রিজেন্ট হাসপাতাল লিমিটেডের চেয়ারম্যান সাহেদ করিম ওরফে মোহাম্মদ সাহেদের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে করা একটি মামলায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশ এ রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার আগে সাহেদকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা

বিস্তারিত