Daily Sunshine

ফাইনালে রাজশাহী

Share

সানশাইন ডেস্ক : চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সকে হারিয়ে বিপিএলের ফাইনালে উঠলো রাজশাহী রয়্যাালস। আন্দ্রে রাসেলের অতিমানবীয় ইনিংসে ২ উইকেটের জয় পায় তারা। বড় টার্গেটে খেলতে নেমে শুরুতেই চাপে পড়ে রাজশাহী। দুই ওপেনার ফিরে যান মাত্র ১৪ রানে। এরপর ইরফান শুক্করের ৪৫ রান ছাড়া আর কেউই সেভাবে দাড়াতে পারেননি। তবে দায়িত্ব একাই কাঁধে তুলে নেন অধিনায়ক আন্দ্রে রাসেল। স্বভাবসুলভ ঝড় তুলে দলকে জয় এনে দেন।
এর আগে ক্রিস গেইল ঝড়ে রাজশাহীর বিপক্ষে বড় স্কোর দাঁড় করায় চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। নির্ধারিত ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৬৪ রান করে বন্দরনগরীর দল। এর আগে, টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ভালো শুরু হয়নি চট্টগ্রামের। শুরুতে বিদায় নেন ওপেনার জিয়াউর রহমান। ১২ বলে ৬ রান করে আউট হন তিনি। তার বিদায়ে শুরু হয় গেইল ঝড়। খেলেন ২৪ বলে ৬০ রানের টর্নেডো ইনিংস।
এদিকে, শুরু থেকে বিপিএলে ভালো করতে থাকা ইমরুল কায়েসও আজ ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছেন। ৭ বলে ৪ রান করেন এই বাঁ-হাতি। এরইমাঝে ১৮ বলে ৩৩ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন দলপতি মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। তার বিদায়ে শুরু হয় উইকেট ঝড়। ফিরে যান ওয়ালটন, নুরুল হাসান রায়াদ এমরিট। শেষ দিকে গুনারান্তের ঝড়ে লড়াইয়ের পুঁজি পায় বন্দরনগরীর দল।
চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স : ১৬৪-৯ (ওভার ২০), জিয়াউর রহমান ৬ (১২), ক্রিস গেইল ৬০ (২৪), ইমরুল কায়েস ৫ (৭), মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ৩৩ (১৮), চাঁদউইক ওয়ালটন ৫ (১১), নুরুল হাসান ০ (২), আসলে গুনারান্তে ৩১ (২৫), রুবেল হোসাইন ০ (২), নাসুম আহমেদ ০ (২), মেহেদী হাসান রানা ০* (১)।
বোলার- মোহাম্মদ ইরফান ৪-১-১৬-২, আবু জায়েদ রাহী ১-০-১৬-০, শোয়েব মালিক ১-০-১৮-০, কামরুল ইসলাম ২-০-১৬-০, আন্দ্রে রাসেল ৪-০-৩৫-১, মোহাম্মদ নাওয়াজ ৪-১-১৩-২, আফিফ হোসেন ১-০-২০-১, অলক কপালি ৩-০-১৯-১।
রাজশাহী রয়্যালস : লিটন দাস ৬ (৬), আফিফ হোসেন ২ (৪), ইরফান সুক্কুর ৪৫ (৪২), অলক কাপালি ৯ (১১), শোয়েব মালিক ১৪ (২২), আন্দ্রে রাসেল, মোহাম্মদ নওয়াজ ১৪ (৫), ফরহাদ রেজা ৬ (৩), কামরুল ইসলাম রাব্বি ০ (১), আবু জায়েদ।
বোলার- মেহেদী হাসান, রুবেল হোসেন ৪-০-৩২-২, এমরিত ৪-০-৪১-২, নাসুম আহমেদ ২-০-১১-০, মাহমুদুল্লাহ ১-০-১০-১, জিয়াউর রহমান ৪-০-১৬-১।

জানুয়ারি ১৬
০৪:৩৯ ২০২০

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

আঁকাআঁকি থেকেই তন্বীর ‘রংরাজত্ব’

আঁকাআঁকি থেকেই তন্বীর ‘রংরাজত্ব’

আসাদুজ্জামান নূর : ছোটবেলা থেকেই আঁকাআঁকির প্রতি নেশা ছিল জুবাইদা খাতুন তন্বীর। ক্লাসের ফাঁকে, মন খারাপ থাকলে বা বোরিং লাগলে ছবি আঁকতেন তিনি। কারও ঘরের ওয়ালমেট, পরনের বাহারি পোশাক ইত্যাদি দেখেই এঁকে ফেলতেন হুবহু। এই আঁকাআঁকির প্রতিভাকে কাজে লাগিয়েই হয়েছেন ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা। তুলির খোঁচায় পরিধেয় পোশাকে বাহারি নকশা, ছবি, ফুল

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

জোরালো হচ্ছে সরকারি চাকরিতে ‘বয়সসীমা’ বাড়ানোর দাবি

জোরালো হচ্ছে সরকারি চাকরিতে ‘বয়সসীমা’ বাড়ানোর দাবি

সানশাইন ডেস্ক : সর্বশেষ ১৯৯১ সালে সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা বাড়ানো হয়। এরপর অবসরের বয়স বাড়ানো হলেও প্রবেশের বয়স আর বাড়েনি। বেকারত্ব বেড়ে যাওয়া, সেশনজট, নিয়োগের ক্ষেত্রে দীর্ঘসূত্রতা, অন্যান্য দেশের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে চাকরিতে প্রবেশের সর্বোচ্চ বয়স বাড়ানোর দাবিতে আন্দোলন করে আসছেন শিক্ষার্থী ও চাকরিপ্রার্থীরা। তবে এ বিষয়ে উদ্যোগ নেয়নি

বিস্তারিত