Daily Sunshine

কৃষি জমি রক্ষায় দ্রুতই ব্যবস্থা নেয়া দরকার

Share

চলছে রাজশাহী জুড়ে পুকুর খনন
পুকুর খনন রাজশাহীর কৃষি জমি এবং গ্রামীণ পরিবেশের উপর হুমকী হয়ে দাঁড়িয়েছে। কৃষি জমি নষ্ট করে পুকুর খননের উপর নিষেধাজ্ঞা রয়েছে আদালতের। কিন্তু তারপরেও অবাধে পুকুর খনন চলছে জেলার বিভিন্ন উপজেলায়। আর প্রভাবশালী ও রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় চলছে পুকুর খনন। তাই অভিযান চালিয়েও বন্ধ হচ্ছে না পুকুর খনন। উল্টো এই নিয়ে কেউ প্রতিবাদ করলে অথবা পত্রিকায় খবরাখবর হলে তাতেও ক্ষুদ্ধ হয়ে উঠেন পুকুর খনন ব্যবসায় যুক্তরা। এ সংক্রান্ত একটি খবর গতকালকের পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে।
রাজশাহীর পবা, বাগমারা, গোদাগাড়ী, দুর্গাপুর ও পুঠিয়া উপজেলায় পুকুর খননের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন আদালত সংশ্লিষ্ট এলাকার ক্ষতিগ্রস্তদের আবেদনের প্রেক্ষিতে। প্রশাসনও তৎপর অবৈধ পুকুর খনন বন্ধে। কিন্তু তারপরও সব কিছুকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে চলছে পুকুর খনন।
প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছে পুকুর খননে বড় বড় খনন যন্ত্র ব্যবহার করা হচ্ছে। আর মাটি বহন করা হচ্ছে গ্রামীণ সড়ক দিয়ে। এতে কৃষি জমি কমে যাওয়ার সাথে সাথে গ্রামীণ সড়ক নষ্ট হচ্ছে এবং পরিবেশ হুমকীর মুখে পড়েছে। জেলায় ইতোমধ্যে অবাধে পুকুর খননের ফলে ১৫ হাজার হেক্টর কৃষি জমি নষ্ট হয়েছে বলেও খবরে বলা হয়েছে।
এভাবে পুকুর খনন জেলার কৃষিতে বড় ধরনের সংকট তৈরী করতে পারে। নষ্ট করবে প্রকৃতি পরিবেশ ও গ্রামীণ জনপদের স্বাভাবিক বৈচিত্র। তাই আমরা মনে করি অবাধে পুকুর খনন বন্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া দরকার। বিশেষত: আদালতের নিষেধাজ্ঞা কার্যকর যেন হয় সেদিকে দৃষ্টি দেখা প্রয়োজন। আমরা আশা করি এ ব্যাপারে যথাযথ পদক্ষেপ নেয়া হবে প্রশাসনিক ভাবে।

জানুয়ারি ১৫
০৩:৫৭ ২০২০

আরও খবর

পত্রিকায় যেমন

বিশেষ সংবাদ

শীঘ্রই শেষ হচ্ছে করোনার প্রকোপ!

শীঘ্রই শেষ হচ্ছে করোনার প্রকোপ!

সানশাইন ডেস্ক : গোটা বিশ্বকে ভালোই ভুগিয়েছে ছোট্ট একটি জীবাণু। বিশ্বের নানা দেশ ও অঞ্চলে আধিপত্য বিস্তার করে এই ভাইরাস এখন অনেকটা সহনীয় হয়ে এসেছে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। তাদের দাবি, এখন ৪০ শতাংশ মানুষ করোনা আক্রান্ত হলেও তাদের কোনো উপসর্গ প্রকাশ পাচ্ছে না। আর এতেই আশার কথা শোনাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। এদিকে,

বিস্তারিত




এক নজরে

আমাদের সাথেই থাকুন

চাকরি

সরকারি চাকরিতে আরও বেড়েছে ফাঁকা পদ

সরকারি চাকরিতে আরও বেড়েছে ফাঁকা পদ

সানশাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে সরকারি চাকরির বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ না হওয়ায় বেড়েছে চাকরিপ্রার্থীর সংখ্যা, সঙ্গে ফাঁকা পদের সংখ্যাও বাড়ছে। সরকারি চাকরিতে এখন তিন লাখ ৮৭ হাজার ৩৩৮টি পদ ফাঁকা পড়ে আছে, যা মোট পদের ২১ দশমিক ২৭ শতাংশ। জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলছেন, অগাস্ট মাসে কোভিড-১৯ সংক্রমণ কমে আসবে

বিস্তারিত